ব্যক্তির নামে সেনানিবাসের নামকরণ মঙ্গলজনক হবে না: মওদুদ

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ নভেম্বর ২০১৭, রবিবার, ৯:১৭
রাজনীতিবিদের নামে সেনানিবাসের নামকরণ হলে তা দেশের জন্য মঙ্গলজনক হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেছেন, খবরের কাগজে দেখলামÑ পটুয়াখালীতে সেনানিবাস হবে, সে সেনানিবাসের নাম হবে নাকি শেখ হাসিনা সেনানিবাস। এটা তো কল্পনাতীত ব্যাপার। যশোর ক্যান্টমেন্ট, ঢাকা ক্যান্টমেন্ট, সাভার ক্যান্টমেন্ট যত জায়গায় সেনানিবাস আছে কোথাও কোনো রাজনীতিবিদের নামে সেনানিবাস নেই। কোনো রাজনীতিবিদের নামে যদি সেনানিবাস হয়, তখনই রাজনীতি চলে আসে। আমি দাবি জানাচ্ছি, সেনাবাহিনীকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখুন, তাদের সঙ্গে রাজনীতিকে সম্পৃক্ত করবেন না।
কোনো ব্যক্তির নামে, কোনো রাজনীতিবিদের নামে সেনা নিবাস করবেন না। এটা করলে দেশের জন্য মঙ্গলজনক হবে না। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কারাবন্দি মশিউর রহমান ও সাবেক এমপি আবদুল ওহাবের মুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ঢাকাস্থ ঝিনাইদহ জাতীয়তাবাদী ছাত্র ফোরাম আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। মওদুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নামে এয়ারপোর্ট করেন, রাস্তা করেন, ব্রিজ করেনÑ কেউ আপত্তি করবে না। কিন্তু সেনানিবাস করাটা ঠিক হবে না। সেনাবাহিনীর সম্মান-মর্যাদা আলাদা ব্যাপার। সেটা মনে রাখতে হবে। তাই আমি বলব, অবিলম্বে যদি এই প্রস্তাব নিয়ে থাকেন, সেই প্রস্তাব প্রত্যাহার করুন। সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, সংবিধান অনুযায়ী প্রধান বিচারপতির পদ একদিনের জন্য শূণ্য থাকার কোনো অবকাশ নেই। কিন্তু প্রধান বিচারপতি নিয়োগে সরকার এই যে সময়ক্ষেপন করছেন তা অত্যন্ত দূরভিসন্ধিমূলক একটা কৌশল। মওদুদ বলেন, কেনো সময় নিচ্ছেন আমরা যে বুঝি না তা নয়। নানাভাবে বিচারপতিদের ওপর চাপ সৃষ্টি করে, চাপ বজায় রাখার জন্যই আজকে এসব করছেন। আমরা এর প্রতিবাদ জানাই। এই প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করবেন না। আমরা দাবি করছি, অবিলম্বে প্রধান বিচারপতি নিয়োগ করুন। প্রধান বিচারপতি পদে নিয়োগ সম্পর্কে আইনমন্ত্রীর বক্তব্যের সঙ্গে দ্বিমত করে তিনি বলেন, আইনমন্ত্রী বলেছেনÑ প্রধান বিচারপতির পদে নিয়োগ নিয়ে কোনো সময়সীমা নেই। এটা ভুল, এটা ঠিক নয়। বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রীর পদ একদিনের জন্য শূণ্য থাকতে পারবে না। প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী, প্রধান বিচারপতিÑ এসব পদে সময়ক্ষেপনের কোনো সুযোগ নেই। মওদুদ বলেন, অবিলম্বে প্রধান বিচারপতি নিয়োগ করুন। অবিলম্বে এই পদটি যেন পুরণ হয়। আমরা আশা করবো, আপিল বিভাগের সিনিয়র যিনি সদস্য থাকেন তিনিই নিয়োগ পাবেন। সংগঠনের সভাপতি তারিক উজ জামান তারিকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, নিতাই রায় চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা আজিজুল বারী হেলাল, জয়ন্ত কুমার কু-ু বক্তব্য দেন।


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভর্তি জালিয়াতি সন্দেহে রাবির দুই ছাত্রলীগ নেতা আটক

‘এটাও কিন্তু একটা চ্যালেঞ্জের বিষয়’

সৌদিই ব্যতিক্রম

তাদের কি বিবেক বলে কিছু নেই

ঢাকা উত্তরের উপনির্বাচন ফেব্রুয়ারিতে

যেভাবে উগ্রপন্থায় দীক্ষিত হয় আকায়েদ

স্বাস্থ্যসেবার ব্যয় মেটাতে দারিদ্র্যসীমার নিচে ৫ শতাংশ পরিবার

তারা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসটাকে হাইজ্যাক করে ফেলেছে

কুয়ালালামপুর বিমানবন্দর থেকে ৬০০ কর্মকর্তা প্রত্যাহার

আরো বেড়েছে দেশি পিয়াজের দাম

সময় চাইলেন ‘অসুস্থ’ বাচ্চু

ঢাকার আকাশে ঝড়ের ঘনঘটা

বিএনপির প্রচারণায় বাধার অভিযোগ

বিএনপির বিজয় র‌্যালি

ব্যবহারে বংশের পরিচয়

‘উন্নয়ন কথামালায়, মানুষ কষ্টে আছে’