নিজ দলে বিদ্রোহ, আজ মুগাবের পদত্যাগ দাবিতে বিক্ষোভ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ নভেম্বর ২০১৭, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:২০
এবার নিজের দল ক্ষমতাসীন জানু-পিএফের বিদ্রোহের মুখে পড়েছেন জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে। দলটির বিভিন্ন আঞ্চলিক শাখা তার পদত্যাগ দাবিতে সোচ্চার হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে তারা আজ শনিবার রাজধানী হারারেতে বিক্ষোভ মিছিল আয়োজন করেছে। এ মিছিলে সমর্থন রয়েছে ‘ক্ষমতা নিয়ন্ত্রণে’ নেয়া দেশটির সেনাবাহিনী। গত বুধবার তারা ক্ষমতা কেড়ে নেয়। আফ্রিকান ইউনিয়ন সহ বিভিন্ন পর্যবেক্ষক একে সামরিক অভ্যুত্থান বললেও সেনাবাহিনী তা প্রত্যাখ্যান করেছে।
তারা বলেছে, দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছে তারা। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। ওদিকে ৯৩ বছর বয়সী মুগাবের প্রতি অভ্যুত্থানের পূর্ব পর্যন্ত অনুগত বর্ষীয়ান যোদ্ধারা ও উদার গ্রুপগুলোও তার পদত্যাগ দাবি করেছে। ‘সামরিক অভ্যুত্থানে’ তাকে গৃহবন্দি করা হলেও প্রথমবারের মতো তাকে প্রকাশ্যে দেখা গেছে। গত কয়েকদিন ধরেই তিনি গৃহবন্দি ছিলেন। শুক্রবার একটি গ্রাজুয়েশন সমাপনীতে যোগ দেন। গ্রাজুয়েটদের মাঝে সনদ বিতরণ করেন। গত সপ্তাহে ক্ষমতা নিয়ে দ্বন্দ্বে ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন মনাঙ্গাগওয়াকে বরখান্ত করেন রবার্ট মুগাবে। তার সঙ্গে রয়েছে দেশটির সেনাবাহিনীর দহরম মহরম। তাকে সরিয়ে দিয়ে সেই পদে বসানোর পরিকল্পনা নিয়েছিলেন ফার্স্টলেডি গ্রেসি মুগাবেকে। এর মধ্য দিয়ে ৩৭ বছর ক্ষমতায় থাকা মুগাবে ক্ষমতাকে পারিবারিকীকরণ করার চেষ্টা করেছিলেন। এ নিয়েই সেখানে দ্বন্দ্ব। শেষ পর্যন্ত এতে হস্তক্ষেপ করে সেনাবাহিনী। তারা বলেছে, মুগাবের সঙ্গে আলাপ আলোচনা চলছে। যতটা শিগগির আলোচনার ফল জনগণকে জানানো হবে। ওদিকে মুগাবের ক্ষমতাসীন দল জানু-পিএফের আঞ্চলিক ১০টি শাকার মধ্যে কমপক্ষে আটটি শুক্রবার প্রেসিডেন্ট পদ ও দলীয় মহাসচিবের পদ ত্যাগ করার পক্ষে ভোট দিয়েছে। অপ্রত্যাশিতভাবে আঞ্চলিক বেশ কিছু নেতা প্রকাশ্যে টেলিভিশন পর্দায় এসে বলেছেন, মুগাবের পদত্যাগ করা উচিত। পাশাপাশি গ্রেসি মুগাবেকে দলীয় পদ ছাড়তেও দাবি জানানো হয়েছে। বরখাস্ত করা ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসনকে দলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে পুনর্বহাল করার দাবি জানিয়েছেন তারা। শুক্রবার সন্ধ্যার ওই ভোটাভুটির পর দলীয় সদস্যরা এর পক্ষে সমর্থন দিয়েছেন। তারা আজ শনিবারের বিক্ষোভ মিছিলে শরিক হওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। সঙ্কট সমাধাে সপ্তাহান্তে কেন্দ্রীয় কমিটির একটি অধিবেশন ডাকার পরিকল্পনা করছে জানু-পিএফ। শুক্রবার সন্ধ্যায় জিম্বাবুয়ের প্রতিরক্ষা বাহিনী একটি বিবৃতি দিয়েছে। তাদেরকে শনিবারের র‌্যালি সম্পর্কে জানানো হয়েছে। এ র‌্যালিকে তারা সংহতি র‌্যালি হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। বিবৃতিতে বলা হয়, জানু-পিএফ দল জাতিকে পরামর্শ দিয়েছে তাদের এই পরিকল্পিত র‌্যালি হবে শান্তিপূর্ণ। এতে থাকবে না কোনো ঘৃণাপ্রসূত বক্তব্য, সহিংসতা উস্কে দেয়ার কোনো তৎপরতা। তাই প্রতিরক্ষা বাহিনী এ র‌্যালিতে পূর্ণ সমর্থন দিচ্ছে। এর আগে দেশটির স্বাধীনতা যুদ্ধের বর্ষীয়ান যোদ্ধা ক্রিস্টোফার মুসভাঙ্গা আজকের র‌্যালিতে বিপুল পরিমাণ জনসমাগমের আহ্বান জানিয়েছেন। মাত্র কয়েকদিন আগেও তিনি ছিলেন মুগারের প্রতি ভীষণ অনুগত। তিনি বলেছেন, আমরা শনিবারের র‌্যালিতে আমাদের গর্ব ফিরে পেতে চাই। সেনাবাহিনী যে কাজ শুরু করেছে আমরা তা শেষ করতে চাই। মুগাবের পক্ষ নেয়ার কোনো অর্থ হয় না। তাকে পদত্যাগ করতেই হবে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভর্তি জালিয়াতি সন্দেহে রাবির দুই ছাত্রলীগ নেতা আটক

‘এটাও কিন্তু একটা চ্যালেঞ্জের বিষয়’

সৌদিই ব্যতিক্রম

তাদের কি বিবেক বলে কিছু নেই

ঢাকা উত্তরের উপনির্বাচন ফেব্রুয়ারিতে

যেভাবে উগ্রপন্থায় দীক্ষিত হয় আকায়েদ

স্বাস্থ্যসেবার ব্যয় মেটাতে দারিদ্র্যসীমার নিচে ৫ শতাংশ পরিবার

তারা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসটাকে হাইজ্যাক করে ফেলেছে

কুয়ালালামপুর বিমানবন্দর থেকে ৬০০ কর্মকর্তা প্রত্যাহার

আরো বেড়েছে দেশি পিয়াজের দাম

সময় চাইলেন ‘অসুস্থ’ বাচ্চু

ঢাকার আকাশে ঝড়ের ঘনঘটা

বিএনপির প্রচারণায় বাধার অভিযোগ

বিএনপির বিজয় র‌্যালি

ব্যবহারে বংশের পরিচয়

‘উন্নয়ন কথামালায়, মানুষ কষ্টে আছে’