আলাপন

‘দর্শক এখন নাটক দেখে বিভ্রান্ত হচ্ছে’

বিনোদন

এন আই বুলবুল | ১৫ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৪১
জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। অভিনয়কে ঘিরেই প্রতিদিনের ব্যস্ততা এই অভিনেতার। বৈচিত্রময় চরিত্র দিয়ে দর্শকদের মন জয় করেন তিনি। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই তাকে নানামাত্রিক চরিত্রে দেখা গেছে। এই অভিনেতা বর্তমানে মাসে ২০/২২ দিন কাজ করেন। প্রতিদিনই তাকে বিভিন্ন ধরনের চরিত্রের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।
কাজ তিনি বেশ উপভোগ করেন। তাই কাজের মধ্যে থাকতেই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন সবসময়। সম্প্রতি আরটিভিতে প্রচার শুরু হয়েছে চঞ্চল চৌধুরী অভিনীত ‘মজনু একজন পাগল নহে’ শীর্ষক একটি ধারাবাহিক নাটক। এরই মধ্যে এটির তিনিটি পর্ব প্রচার হয়েছে। বৃন্দাবন দাসের রচনায় ধারাবাহিকটি পরিচালনা করেছেন সঞ্জিত সরকার। নাটকটি নিয়ে চঞ্চল চৌধুরী কতটা আশাবাদী জানতে চাইলে বলেন, ধারাবাহিকটির প্রথম দুটি পর্ব আমিও দেখেছি। এটি দর্শকদের মধ্যে বেশ সাড়া ফেলবে বলে মনে হয়। এই ধারাবাহিকে সমাজের কিছু বাস্তব চিত্র তুলে ধরা হয়েছে। দর্শক নিয়মিত নাটকটি দেখলে সেই বিষয়গুলো বুঝতে পারবে। এছাড়া অন্য সব ধারাবাহিকের চেয়ে এটির গল্প অনেক শক্তিশালী। গতানুগতিকতার বাইরে এর প্রেক্ষাপট। তিনি আরো বলেন, বৃন্দাবন দাসের সঙ্গে অনেক দিন ধরে কাজ করছি। তার নাটকে অন্যদের চেয়ে সব সময় ভিন্ন কিছু থাকে। এটিও তার ব্যতিক্রম নয়। এই ধারাবাহিকটি ছাড়াও বিভিন্ন চ্যানেলে চঞ্চল অভিনীত ‘ডুগডুগি’, ‘পোস্ট গ্রাজুয়েট’সহ বেশ কিছু ধারাবাহিক নাটক প্রচার হচ্ছে। কিন্তু এই সময়ের ধারাবাহিকগুলোর গল্প অনেক দূর্বল বলে দর্শকদের অভিমত। এ সর্ম্পকে চঞ্চলের মন্তব্য কি? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দর্শক এখন নাটক দেখে বিভ্রান্ত হচ্ছে। ধারাবাহিকগুলোর গল্প নেই বলা যায়। এদিকে নাটকও নকল করা শুরু হয়েছে। গ্রামীণ পটভূমির নাটকগুলো একেকটি একেক নাটকের ছায়া অবলম্বনে করা হচ্ছে। কোনো নতুনত্ব নেই। কিন্তু এমন কেন হচ্ছে? এই সর্ম্পকে চঞ্চল বলেন, অনেক কারণে এমনটি হচ্ছে। সস্তা বিনোদনের প্রতিযোগিতায় সবাই মেতে উঠেছে। একটি ভালো কাজের জন্য ভালো বাজেট, ভালো  পরিচালক, স্ক্রীপ্ট রাইটার ও অভিনয় শিল্পীর প্রয়োজন। এখন এগুলোর কোনো সমন্বয় হচ্ছে না। দর্শক নাটক দেখেও কোনো আনন্দ পাচ্ছে না। দর্শকদের নাটক বিমুখ হওয়ার ক্ষেত্রে এটি প্রধান কারণ। গল্পের পাশাপাশি আজকাল নাটকের লোকেশনেও কোনো বৈচিত্র নেই বলে অভিযোগ রয়েছে। একই ধরনের লোকেশন কাজ করতে শিল্পীরাও অনিহা প্রকাশ করছেন। এই সর্ম্পকে চঞ্চল চৌধুরীর কাছে মন্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন, একই লোকেশনেও বিভিন্ন ভাবে কাজ করা যায়। যদি নির্মাতার কাজ করার  মতো দক্ষতা থাকে। একজন শিল্পী যদি বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করতে পারেন তাহলে একই লোকেশনে বৈচিত্র দেখানোও সম্ভব। এছাড়া বাজেট সীমিত থাকার কারণেও নির্মাতারা বেশি লোকেশনে কাজ করতে পারেন না। আমাদের টিভি চ্যানেলগুলো বাজেটের বিষয়ে উদাসীন। যথাযথ বাজেট থাকলে অনেক নির্মাতা ভালো ভালো কাজ দর্শকদের উপহার দিতে পারতেন। ভালো নাটকের জন্য টিভি চ্যানেলগুলোকেও এগিয়ে আসতে হবে। ছোট পর্দার বাইরে বড় পর্দায়ও চঞ্চল চৌধুরী জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। সম্প্রতি তিনি ‘দেবী ছবির শুটিং শেষ করেছেন। হুমায়ূন আহমেদের ‘দেবী’ উপন্যাস অবলম্বনে সরকারি অনুদানে চলচ্চিত্রটি নির্মাণ হচ্ছে। এই ছবিতে হুমায়ূন আহমেদের আলোচিত চরিত্র মিসির আলীর ভূমিকায় তাকে দেখা যাবে। এই চরিত্রটি তার ক্যারিয়ারে নতুন মাত্রা যোগ করবেও বলে জানান চঞ্চল। অমিতাভ রেজার ‘আয়নাবাজি’ চঞ্চল চৌধুরী অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি। এই ছবিটি দর্শকদের মধ্যে কতটা সাড়া ফেলেছে তা সবারই জানা। সিনেমা হলে নতুন দর্শক তৈরি করতে পেরেছে এই ছবিটি। মুক্তি প্রতিক্ষিত ছবিটিও সব ধরনের দর্শক গ্রহণ করবে বলে মনে করেন তিনি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘দোষ প্রমাণ হলে ব্যবস্থা’

দুই পাণ্ডার পরিবেশ বান্ধব বিমানযাত্রা

এমপি তাপসের আশ্বাসে অবরোধ প্রত্যাহার করলেন ব্যবসায়ীরা

‘মামলা প্রত্যাহার না করলে নির্বাচন করতে দেয়া হবে না’

চলন্ত ট্রেনে উঠতে গিয়ে দুই পা হারালেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশী সহ নিহত ৯

‘সরকার ব্যর্থ হলে বিএনপিই দাবি পূরণ করবে’

সিরিয়ায় প্রবেশ করেছে তুরস্কের স্থলবাহিনী

‘অভিযোগের ভিত্তিতেই শিক্ষামন্ত্রীর পিওসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার’

চা: একটি শব্দের ইতিবৃত

ছুরিকাঘাতে এক রোহিঙ্গা নিহত

‘পদ্মাবত’ ছবি নিয়ে উত্তেজনা

কাল শুরু রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন, উদ্বেগ-অভিযোগ

স্মৃতি ফেরাতে ৫৫ বছর পর ফের বিয়ে! দেখুন ভিডিওসহ

আগামীকাল আদালতে যাবেন খালেদা জিয়া

রংপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১