কটিয়াদীর পল্লীতে তাণ্ডব হামলাকারীরা অধরা

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, কিশোরগঞ্জ থেকে | ১৫ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার
স্থানীয় বিরোধের জেরে গত ১৮ই অক্টোবর কটিয়াদী উপজেলার সতেরদ্রোন গ্রামে মামুন (২৫) নামের এক যুবকের ওপর হামলা চালিয়ে তাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে প্রতিপক্ষের লোকজন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় মামুনকে প্রথমে বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় আহত মামুনের চাচা মো. হাবিজ মিয়া বাদী হয়ে গত ২৬শে অক্টোবর গ্রামেরই ছয় জনের নামোল্লেখ করে কটিয়াদী থানায় মামলা করেন। মামলার ছয় আসামির মধ্যে চার আসামি গত পহেলা নভেম্বর আদালত থেকে জামিন পান। মামলায় আসামি করাকে কেন্দ্র করে এর পরের দিন ২রা নভেম্বর সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সতেরদ্রোন গ্রামটিতে চলে নারকীয় তাণ্ডব। পুলিশের উপস্থিতিতে আসামিপক্ষের লোকজন হামলা, ভাঙচুর আর লুটপাটের মহাউৎসব চালায় গ্রামের প্রতিপক্ষের ঘরে ঘরে।
ঘরে থাকা পরিবারের লোকজনদের আহত করে একই সঙ্গে আসবাবপত্র, স্বর্ণালঙ্কার, নগদ টাকা এমনকি সোলার প্যানেলের ব্যাটারি পর্যন্ত লুট করে নেওয়া হয়েছে। কয়েক ঘন্টার এই তাণ্ডবের সময় গ্রামের অন্তত ১০টি বাড়ি ব্যাপক ভাঙচুর করা হয়। হামলায় তিনপুত্র ও তাদের বাবাসহ অন্তত ১৫ নারী-পুরুষ আহত হন। এ ঘটনার ৮দিন পর গত ১০ নভেম্বর পুলিশ থানায় মামলা নিলেও এখন পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। ফলে হামলার শিকার পরিবারগুলোসহ এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মো. আশরাফ জানান, গত ২রা নভেম্বর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই হামলাকারীরা তার বাড়ি ছাড়াও অন্তত ১০টি বাড়িতে হামলা চালায়। অর্ধশতাধিক হামলাকারীর প্রত্যেকের হাতেই লাঠিসোটা, রামদাসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র ছিল।
বাড়িতে থাকা তার স্ত্রী আয়েশা আক্তারকে ঘর থেকে বের করে দিয়ে তার বাড়িঘর ভাঙচুর করা ছাড়াও ঘরের স্টিলের আলমারিতে থাকা স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা তারা লুট করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় তার ছেলে রাসেল কবির বাদী হয়ে থানায় মামলা করলেও পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করছে না। তাদের মামলা দায়েরের দুই দিন পর গত রোববার (১২ই নভেম্বর) উল্টো নিরীহ লোকজনকে আসামি করে হামলাকারীদের মিথ্যা মামলা নিয়েছে পুলিশ।
কটিয়াদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাকির রব্বানী জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। দুই পক্ষই থানায় পাল্টাপাল্টি মামলা করেছে। তবে কোন মামলাতেই কেউ আটক বা গ্রেপ্তার নেই। বিষয়টির স্থানীয়ভাবে মিটমাটের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলেও ওসি জানিয়েছেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘আপাতত ভাত-রুটি থেকে দূরে আছি’

মা ও ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করলো যুবক

দেখা হলো কথা হলো

দল থেকে বহিষ্কার মুগাবে

‘রোহিঙ্গাদের নির্যাতন যুদ্ধাপরাধের শামিল’

আন্ডা-বাচ্চা সব দেশে, বিদেশে কেন টাকা পাচার করবো

জেনেভায় বাংলাদেশের পক্ষে থাকবে জাপান

প্রেমিকের সঙ্গে পালাতে গিয়ে কিশোরী ধর্ষিত

আসামি ‘আতঙ্কে’ সিলেটে আওয়ামী লীগ নেতারা

ত্রাণসামগ্রী বিক্রি করছে রোহিঙ্গারা

ভারতের সঙ্গে সম্প্রীতি নষ্ট করতেই রংপুরে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা

সময় হলে বাধ্য হবে সরকার

কানাডার উন্নয়নমন্ত্রী আসছেন মঙ্গলবার

ব্যক্তির নামে সেনানিবাসের নামকরণ মঙ্গলজনক হবে না: মওদুদ

কায়রোয় আরব নেতাদের জরুরি বৈঠক

পুলিশি জেরার মুখে নেতানিয়াহু