এবার দেশি ব্যাটসম্যানরা ম্লান

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৪ নভেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) পঞ্চম আসরের শুরু থেকেই ব্যাট হাতে এগিয়ে বিদেশি ক্রিকেটাররাই। অন্যদিকে যে দেশীয় তারকাদের উপর ভরসা ছিল তাদের পারফরম্যান্স এখনো দেখেনি আলোর মুখ। তামিম ইকবাল এবার এখনো একটি ম্যাচও খেলতে পারিনি ইনজুরির কারণে। কিন্তু মুশফিকুর রহীম, সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান রুম্মান, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, শাহরিয়ার নাফীস, এনামুল হক বিজয়, নূরুল হাসান সোহান ও মোসাদ্দেক হোসেন, নাসির হোসেনরা ব্যাট হাতে সুযোগ পেলেও কোনো চমক দেখাতে পারছেন না। সিলেট পর্ব শেষ, এরই মধ্যে ঢাকা পর্বে কেটে গেছে আরো ২ দিন। কিন্তু ব্যাট হাতে এখন পর্যন্ত সেরা পাঁচের মধ্যে সবাই বিদেশি।
১৯৭ রান করে শীর্ষে আছেন সবচেয়ে বেশি ৫ ম্যাচ খেলা সিলেট সিক্সার্সের লঙ্কান তারকা উপুল থারাঙ্গা। তারপরই আছেন একই দলের আন্দ্রে ফ্লেচার, ডায়নামাইটসের এভিন লুইস, রাইডার্সের রবি বোপারা ও চিটাগাং ভাইকিংসের রনকি। শুধু বল হাতেই দেশি ক্রিকেটাররা কিছুটা হলেও মান রক্ষা করেছেন। এখন পর্যন্ত সেরা পাঁচ বোলারের মধ্যে সিক্সার্সের বিদেশি প্লাঙ্কেট শীর্ষে থাকলেও একই সমান উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছেন আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী, তাসকিন আহমেদ। এছাড়াও ডায়নামাইটসের সুনীল নারিনের পর, আবু হায়দার রনিও সমান উইকেট নিয়ে দেশিদের মুখ রক্ষা করেছেন। কেন ব্যাট হাতে পিছিয়ে দেশিরা! অনেক ক্রিকেটারই জানিয়েছেন একাদশে পাঁচ বিদেশিই কারণ। এ কারণে যত দিন গড়াচ্ছে ততই ক্ষোভ বাড়ছে দেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে।
তবে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক ও বিপিএলে চিটাগং ভাইকিংসের পরিচালক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু মনে করেন এখনই দেশিদের নিয়ে হতাশ হবার কিছু নেই। তিনি বলেন, ‘একেকটা দল অন্তত ১২টা করে ম্যাচ পাবে। এখন পর্যন্ত প্রায় সব দলই তিনটা করে খেলেছে। আমার মনে হয়  যে, অন্তত ৭০ ভাগ ম্যাচ শেষ না হলে পারফর্ম মূল্যায়ন করতে পারবেন না। কারণ টি-টোয়েন্টিতে একজন  খেলোয়াড় খুব কম সুযোগ পায়। সুতরাং একটা দুইটা ম্যাচ দেখে বিচার করা যাবে না। এতো শর্টার ভার্সন, এখানে সব কিছু অনেক কঠিন। আমার মনে হয়  খেলোয়াড়দের আরো মনোযোগ বাড়ানো উচিত যাতে আরো ভল করতে পারে।’  
অন্যদিকে শুরু থেকে দেশিদের নিয়ে হতাশার কারণটাও বেশ যৌক্তিক। ব্যাট হাতে সেরা পাঁচে তো নয়ই, সেরা দশে মাত্র ২ জন দেশি ক্রিকেটার। এ তালিকাতে টি-টোয়েন্টি স্পেশালিস্ট, সাকিব, সাব্বির, নাসির এমনকি দেশের সেরা ব্যাটসম্যানদের মুশফিকও জায়গা নিতে পারেননি। জায়গা করে নিয়েছেন টেস্ট স্পেশালিস্ট মুমিনুল হক ও ইমরুল কায়েস। এখন পর্যন্ত সিলেটের ক্রিকেটারই সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন। থারাঙ্গার পর ১৫১ রান করে দ্বিতীয় স্থানে আছেন একই দলের ফ্লেচার। ঢাকা ডায়নামাইটসের লুইস ১৩৬, রংপুর রাইডার্সের রবি বোপারা ১৩১ ও চিটাগাং ভাইকিংসের লুক রনকি ১২০ রান করে আছেন যথাক্রমে তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে। কাটায় কাটায় ১০০ রান করে ৬ষ্ঠ স্থানে আছেন কুমিল্লার জস বাটলার।  তার পরের অবস্থানেই আছেন মুমিনুল। এ ক্রিকেটার শুধু মাত্র টেস্টই খেলতে পারেন এমন কথার বেশ প্রচলন। এ কারণে তাকে জাতীয় ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলে দেখা যায় না। কিন্তু রাজশাহী কিংসের হয়ে ওপেন করতে নেমে ইঙ্গিত দিয়েছেন দারুণ কিছুর। প্রথম দুই ম্যাচে দল হারলেও ঢাকায় ফিরে ৬৩ রানে অপরাজিত থেকে দলের জয়ে বড় ভূমিকা রাখেন। তিন ম্যাচে ৪৮.০০ গড়ে করেছেন ৯৬ রান। তারপরই আছেন তালিকার দশ স্থানে  ৮৭ রান করা কুমিল্লার ইমরুল কায়েস। এখন পর্যন্ত কোনো দেশি ব্যাটসম্যান ১শ’ও করতে পারেননি।
অন্যদিকে বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের অন্যতম ভরসা সাকিব, সাব্বির, সৌম্য সরকার, লিটন, মোসাদ্দেক হোসেনরা এখন পর্যন্ত ব্যাট হাতে নিজেদের প্রমাণ করতে পারেননি। এবার সিলেটের হয়ে খেলছেন সাব্বির। ৫ ম্যাচে তার ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ৫.৫০ গড়ে ২২ রান। তার চেয়ে বেশি রান ৩৫ করেছেন একই দলের পেসার আবুল হাসান। অবশ্য একই দলের নাসিরের সংগ্রহ ৫ ম্যাচে ৭৫ রান। সাব্বিরের সমান রান করেছেন দেশের ব্যাটিংয়ে অন্যতম নির্ভরতার নাম টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। সৌম্য সরকার খেলছেন ভাইকিংসের হয়ে। ৩ ম্যাচে তার অবদান মাত্র ৩৫ রান।
জাতীয় দলের হয়ে ফর্মে না থাকলেও কোচের আস্থার কারণে সুযোগ ছিল অফুরান। কিন্তু সেই সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি এ তরুণ প্রতিভা। এবার বিপিএলেও তাকে দেখা যাচ্ছে একই রূপে। তার ব্যাট থেকে মাত্র একটি ইনিংসে এসেছে সর্বোচ্চ ৩৮ রানের ইনিংস। এছাড়াও বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিবও ব্যাট হাতে নিষ্প্রভ। তিন ম্যাচে তার সংগ্রহ ৪২ রান। বিপিএলে বিদেশিদের ভিড়েও তারা দলের পক্ষ থেকে সুযোগ পেয়ে তা কাজে লাগাতে পারেননি। অন্যদিকে নাফীস, সোহান, মোসাদ্দেকদের অভিযোগ তারা বিদেশিদের কারণে নিজেদের পজিশন মতই খেলতে পারছে না।  
মূলত বিদেশি নির্ভরতায় দলগুলো জয় তুলে নিচ্ছে। এর মধ্যে অন্যতম গত আসরের চ্যাম্পিয়ন ঢাকা। তাদের জয় রথে বড় ভূমিকা রেখেছে শহীদ আফ্রিদি, লুইসরা। সিলেট সিক্সার্স তিনটি ম্যাচ জিতে শীর্ষে থাকলেও সেখানে দুই বিদেশি ওপেনার থারাঙ্গা ও ফ্লেচারের অবদান অনেক বেশি। এসব কারণেই এখন থেকে শঙ্কা আরো বাড়ছে সামনের আসরগুলোতে বিপিএলে আরো বিদেশি প্রভাব বাড়ার। আর তা হলে দেশি ক্রিকেটারদের সুযোগও আরো সংকুচিত হয়ে আসবে।

বিপিএলে এখন পর্যন্ত বিদেশি সেরা ৫ ব্যাটসম্যান
ক্রিকেটার    ম্যাচ    রান     সর্বোচ্চ    গড়     ১০০/৫০
উপল থারাঙ্গা, সিলেট সিক্সার্স    ৫    ১৯৭    ৬৯*    ৪৯.২৫    ০/৩
আন্দ্রে ফ্লেচার, সিলেট সিক্সার্স    ৪    ১৫১    ৬৩    ৩৭.৭৫    ০/১
এভিন লুইস, ঢাকা ডায়নামাইটস    ৩    ১৩৬    ৬৬    ৬৮.০০    ০/১
রবি বোপারা, রংপুর রাইডার্স    ৩    ১৩১    ৫৪*    ১৩১.০০    ০/১
রনকি, চিটাগাং ভাইকিংস    ৩    ১২০    ৭৮    ৪০.০০    ০/১
বিপিএলে এখন পর্যন্ত  দেশি সেরা ৫ ব্যাটসম্যান
ক্রিকেটার    ম্যাচ     রান     সর্বোচ্চ     গড়    ১০০/৫০
মুমিনুল  হক, রাজশাহী কিংস    ৪    ৯৮    ৬৩*    ৩২.০০    ০/১
ইমরুল কায়েস, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স    ৩    ৮৯    ৪৪*    ৮৯.০০    ০/০
মোহাম্মদ মিঠুন, রংপুর রাইডার্স    ৩    ৮৭    ৪৬    ২৯.০০    ০/০
শাহরিয়ার নাফীস, রংপুর রাইডার্স    ৩    ৮৪    ৩৫    ২৮.৪৫    ০/০
নাসির হোসেন, সিলেট সিক্সার্স    ৫    ৭৫    ৪৭*    ৩৭.৫০    ০/০

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে চীনের তিন দফা প্রস্তাব

সিএনজি অটোরিকশার ৪৮ঘন্টার ধর্মঘট

শাহজালালে ৩ কোটি টাকা মূল্যের স্বর্ণসহ আটক ১

দীপিকার মাথা কাটলে পুরস্কার ১০ কোটি রুপি!

নিউ ক্যালেডোনিয়ায় ৭ মাত্রার ভূমিকম্প

কেন সৌদি আরব ও ইরান পরস্পরের প্রতিপক্ষ?

বন্দুকের নলের মুখেও ক্ষমতা ছাড়তে রাজি নন মুগাবে

বাংলাদেশের বন্ধু, মার্কিন কূটনীতিক হাওয়ার্ড বি শেফার আর নেই

তারেক রহমানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

গেদে সীমান্তে পিতা-পুত্রের মিলন, আবেগঘন এক দৃশ্য

বিএনপির নেতার বাসার সামনে থেকে বোমা উদ্ধার

‘পুরুষের চেয়ে নারীরা বেশি যৌন নিপীড়ক’

দুদকের মামলায় গ্রেপ্তার পঙ্কজ রায়

কেক কেটে তারেক রহমানের জন্মদিন পালন

ডাকাতি, নিরাপত্তাহীনতায় ঢাকায় ভারতীয় কোম্পানি সম্প্রসারণ পরিকল্পনা স্থগিত

মা ও ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করলো যুবক