৬ মাস পর সেন্টমার্টিনে জাহাজ চলাচল শুরু

বাংলারজমিন

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি | ১৪ নভেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার
রাখাইনে সহিংসতা ও রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের জেরে দীর্ঘ ছয় মাস বন্ধ থাকার পর সোমবার থেকে  টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে জাহাজ চলাচল শুরু হয়েছে। প্রায় চার শতাধিক পর্যটক নিয়ে সোমবার সকাল ১০টায় টেকনাফের দমদমিয়া জেটিঘাট থেকে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে পর্যটকবাহী জাহাজ কেয়ারী সিন্দাবাদ রওনা দিয়ে দুপুর ১২টায় নিরাপদে সেন্টমার্টিন জেটিঘাটে পৌঁছে। সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ, টেকনাফ কেয়ারী ট্যুর ট্রাভেলসের ম্যানেজার মো. শাহ আলম, সেলস কো-অর্ডিনেটর আজিজুর রহমান, কাস্টমার সার্ভিস আব্দুল মোক্তাদির সুমন এবং সোহেল, সেন্টমার্টিন ইনচার্জ নুরুল মোস্তফা প্রমুখ পর্যটকদের সঙ্গে সেন্টমার্টিন গমন করেন। এই সময় বিআইটিডব্লিউই প্রতিনিধি দল জাহাজ ঘাট পরিদর্শন করেন। দ্বীপের বাসিন্দারা আগত পর্যটকদের স্বাগত জানায়।
এদিকে প্রতিবছর অক্টোবর মাস থেকে পর্যটন মৌসুম শুরু হলে সেন্টমার্টিনে পর্যটকদের ঢল নামে। কিন্তু চলতি বছর মিয়ানমারে সহিংসতা শুরু হওয়ায় নিরাপত্তা জনিত কারণে কর্তৃপক্ষ জাহাজ চলাচলের অনুমতি দেয়নি।
কারণ হিসাবে জানা গেছে, সেন্টমার্টিন যাওয়ার পথে জাহাজগুলোতে এক জায়গায় নাব্যতা সংকটের কারণে মিয়ানমার জলসীমা দিয়ে চলাচল করতে হয়।
সর্বশেষ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের প্রক্রিয়া সম্পন্নের পর কক্সবাজারের  জেলা প্রশাসক জাহাজ চলাচলে অনুমতি দিয়েছেন। টেকনাফ- সেন্টমার্টিন নৌপথের অভিজাত জাহাজ কেয়ারি সিন্দাবাদ টেকনাফের ব্যবস্থাপক মো. শাহ আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
 সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুর আহমদ জানান, জাহাজ চলাচলের অনুমতি পাওয়ায় সেন্টমার্টিনবাসীর মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে। কেননা সেন্টমার্টিনের অধিকাংশ মানুষ জীবিকা পর্যটন নির্ভর।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘সম্মতি ছাড়া নারীকে স্পর্শ নয়’

‘বোতলবন্দি ভূত’ বিক্রি করতে গিয়ে আটক ৪

লালবাগে হেলে পড়েছে পাঁচতলা ভবন

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ব্রিফিং শুরু

‘আমাকে অবরুদ্ধ রাখা হয়নি’

‘ভূমির মালিকানা পার্বত্য চট্টগ্রামবাসীরই থাকবে’

জনগণ সতর্ক নজর রাখছে

ময়নাতদন্তে আত্মহত্যার লক্ষণ

কেরানীগঞ্জে প্রকৌশলী হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ৩

যে ছবি নিয়ে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কে বিতর্কের ঝড়

১৩ ঘণ্টা বন্দুকযুদ্ধ, অবরুদ্ধ অবস্থার সমাপ্তি

সৌদির সঙ্গে হজ চুক্তি স্বাক্ষর সম্পন্ন

সঙ্ঘকে ধরে দিল্লির কাছে পৌঁছতে চাইছেন খালেদা

যুক্তরাষ্ট্রে সরকারি সেবা বন্ধ হওয়ায় দুর্ভোগে পর্যটকরা

‘এটি অন্যরকম অনুভূতি’

অচলাবস্থা নিয়ে দ্বিতীয় বর্ষে পা রাখলেন ট্রাম্প