রংপুরে সহিংসতা

টিটু রায়কে ধরতে নারায়ণগঞ্জে অভিযান

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর থেকে | ১৪ নভেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার
পুলিশের রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বলেছেন, অভিযুক্ত টিটু রায়কে ধরতে নারায়ণগঞ্জে রংপুর ও পুলিশ হেডকোয়ার্টারের বিশেষ কয়েকটি টিম কাজ করছে। দ্রুত তাকে গ্রেপ্তার করলেই মূল ঘটনা উদঘাটিত হবে। এদিকে ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু রাফা মোহাম্মদ আরিফ জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, এমডি টিটু নামের আইডিটি ফেক। তবে, এই ফেক আইডি টিটু রায়ের কিনা তা নিয়ে তদন্ত চলছে। খুব দ্রুতই তদন্ত রিপোর্ট  পেশ করা হবে। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পুনরায় পরিদর্শন করে রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি ও তদন্ত কমিটির প্রধান সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।
এদিকে, রংপুরে পাগলাপীর সলেয়াশাহ্‌ ঠাকুরপাড়ার ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করে বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার। তিনি গতকাল ঠাকুরপাড়ায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের দেয়া সাক্ষাৎকারে এ দাবি জানান। তিনি বলেন, ফেসবুকে ধর্ম অবমাননা নিয়ে একটি গোষ্ঠী হিন্দুদের উপর হামলা চালায় এবং তাদের বাড়িঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়। এটা অত্যন্ত নিন্দনীয় কাজ করেছে। যা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। এদিকে, ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার রাজশাহীর অভিজিৎ চট্টোপাধ্যায়। তবে, তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি। অপরদিকে, ঠাকুরপাড়া এলাকায় ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ২টি মামলায় রোববার রাতে আরো ২৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ নিয়ে তিন দিনে মোট ১৩৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হলো। সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেপ্তারদের মধ্যে ৪ অগ্নিসংযোগকারীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন রংপুর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান। ঠাকুরপাড়ার ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে কাজ করছে স্থানীয় প্রশাসন। সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে বিভিন্ন সংগঠন। উল্লেখ্য, টিটুর ফেসবুক স্ট্যাটাসে ধর্ম অবমাননা নিয়ে  শুক্রবার মুসল্লি ও এলাকাবাসী ঠাকুরপাড়ায় ৮টি বাড়িতে অগ্নিসংযোগসহ ১৫টি বাড়ি ভাঙচুর করে। এ নিয়ে পুলিশের সঙ্গে মুসল্লি ও এলাকাবাসীর সংঘর্ষে ২ জন নিহত ও পুলিশসহ ৬০ জন আহত হয়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন