সরাইলে জুনায়েদ হত্যা

দু’জনের যাবজ্জীবন

বাংলারজমিন

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি | ১৪ নভেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার
সরাইলে মাদরাসা ছাত্র জুনায়েদ (১০) হত্যা মামলার রায় দিয়েছেন আদালত। গত রোববার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার শিশু আদালতের বিচারক মাইনুদ্দিন এ রায় দেন। রায়ে আসামি সুকুমার চন্দ্র দাস সুমন (৩৫) ও ছানাউল্লাহ (২৫) কে যাবজ্জীবন আর সুমন মিয়া (২০) কে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। দীর্ঘ ৩ বছর পর শিশুপুত্র হত্যা মামলার রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন নিহত জুনায়েদের মা ফিরোজা বেগম। অভিযোগপত্র, আদালত ও জুনায়েদের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ঘটনাটি ২০১৪ সালের ১৩ই সেপ্টেম্বর। টিঘর গ্রামের রফিকুল হকের ছেলে জুনায়েদ।
সরাইল সদরের আলীনগর মাদরাসায় থেকে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ত। ওইদিন সকাল ৮টার দিকে গ্রামের বাড়ি থেকে জুনায়েদ মাদরাসার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। পূর্ব পরিকল্পনা মতে আসামিরা মাদরাসার সামনের রাস্তা থেকে জুনায়েদকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। সন্ধ্যায় জুনায়েদেরে চাচা নাজমুল হক সরাইল থানায় একটি জিডি করেন। অপহরণের পর থেকেই জুনায়েদের চাচাসহ অন্যান্য আত্মীয় স্বজনের কাছে মুঠোফোনে মুক্তিপণ দাবি করতে থাকে অপহরণকারীরা। দরিদ্র পরিবারের লোকজন অনেক কষ্টে বেশকিছু টাকা ও বিকাশের মাধ্যমে পাঠায়। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি জুনায়েদের। অপহরণের ৩ দিন পর ১৫ই সেপ্টেম্বর জুনায়েদকে হত্যা করে  কালিকচ্ছের ধরন্তী বিলসংলগ্ন মৎস্য প্রজেক্টের বেড়িবাঁধের পার্শ্বে পানিতে লাশ ফেলে রাখে। বাদী পক্ষের কৌশলী ছিলেন অ্যাডভোকেট এ কে এম আহসানুল হক। তিনি রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, আসামি সুমন মিয়া ৩ বছর আগে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিল তার বয়স ২০ বছর। আর ৩ বছর পর একই ব্যক্তির বয়স কিভাবে ১৮ বছরের নিচে নেমে গেল। তা ভেবে পাচ্ছি না। আসামি পক্ষের লোকজন কৌশলে ও মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে এ অপকর্মটি করেছে। আর আসামিদের পক্ষের কৌশলী অ্যাডভোকেট আবিদ উল্লাহ বলেন, আমরা এ রায়ে মোটেও সন্তুষ্ট নয়। এমন রায় কিভাবে দিলেন ভেবে পাচ্ছি না। আমরা ন্যায়বিচার পাওয়ার জন্য অবশ্যই উচ্চ আদালতে যাব।
এ বিষয়ে গতকাল সরাইল প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন জুনায়েদের মা ফিরোজা বেগম ও বাবা রফিকুল হক। ফিরোজা বলেন, আমরা ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছি। চেয়ারম্যান সাহেবের স্ত্রীর কাছ থেকে এমনটি আশা করিনি। আমরা সর্বোচ্চ বিচারের জন্য উচ্চ আদালতে যাব। তারা আমার বুক খালি করেছে। আল্লাহ তাদের মায়ের বুক খালি না করলে বুক খালির ব্যথা বুঝবে না।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘আপাতত ভাত-রুটি থেকে দূরে আছি’

মা ও ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করলো যুবক

দেখা হলো কথা হলো

দল থেকে বহিষ্কার মুগাবে

‘রোহিঙ্গাদের নির্যাতন যুদ্ধাপরাধের শামিল’

আন্ডা-বাচ্চা সব দেশে, বিদেশে কেন টাকা পাচার করবো

জেনেভায় বাংলাদেশের পক্ষে থাকবে জাপান

প্রেমিকের সঙ্গে পালাতে গিয়ে কিশোরী ধর্ষিত

আসামি ‘আতঙ্কে’ সিলেটে আওয়ামী লীগ নেতারা

ত্রাণসামগ্রী বিক্রি করছে রোহিঙ্গারা

ভারতের সঙ্গে সম্প্রীতি নষ্ট করতেই রংপুরে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা

সময় হলে বাধ্য হবে সরকার

কানাডার উন্নয়নমন্ত্রী আসছেন মঙ্গলবার

ব্যক্তির নামে সেনানিবাসের নামকরণ মঙ্গলজনক হবে না: মওদুদ

কায়রোয় আরব নেতাদের জরুরি বৈঠক

পুলিশি জেরার মুখে নেতানিয়াহু