দোয়ারাবাজার সদরে দুর্ধর্ষ চুরি

বাংলারজমিন

দোয়ারাবাজার (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১৪ নভেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার
পুলিশের নাকের ডগায় দোয়ারাবাজার সদরে অন্তত ৪টি দোকানে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। সোমবার সকালে চুরির সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে খলিল মিয়া (২৪) নামের এক ব্যক্তিকে গাঁজাসহ আটক করে জনতা পুলিশে সোপর্দ করেছে। রোববার দিবাগত রাতে একাধিক দোকানে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনায় ব্যবসায়ীদের মধ্যে এখন আতঙ্ক বিরাজ করছে। এর আগেও একই কায়দায় উপজেলা সদরে বিভিন্ন দোকানপাটে একাধিক চুরির ঘটনা ঘটে। রোবরার রাতে দোয়ারাবাজার থানা থেকে মাত্র কয়েক শ’ গজ দূরে হাজী হাফিজুর রহমানের সু-স্টোর, নেওয়াজ স্টোর, মঈনুল হকের দোকানসহ একাধিক মুদির দোকানের তালা ভেঙ্গে নগদ টাকাসহ মালামাল নিয়ে যায়। ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে বলেন, উপজেলা সদরে ব্যবসা বাণিজ্য নিয়ে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি।
প্রশাসনের নাকের ডগায় এভাবে প্রতিনিয়ত চুরি হলেও দীর্ঘ দিন ধরে কোনো প্রতিকার নেই। গত সপ্তাহে একই ভাবে আব্দুন নুরের মুদির দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি হয়। এ ছাড়া গত কয়েক মাস পূর্বে উপজেলা সদরের ভাই ভাই স্টোরের তালা ভেঙ্গে নগদ টাকাসহ কয়েক লাখ টাকার মালামাল চুরি হয়ে যায়। কিন্তু এর কোনো প্রতিকার নেই। জানতে চাইলে দোয়ারাবাজার থানার ওসি এনামুল হক বলেন, বাজারে কোনো পাহারাদার নেই। যার কারণে ইদানীং চুরের প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি পেয়েছে। বাজার পাহারা দেয়ার দায়িত্ব তো আর পুলিশের নয়। তবে চুরির ঘটনাগুলো খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং বাজার কমিটির সভাপতির সঙ্গে কথা বলে পাহারাদার নিযুক্ত করার পরামর্শ দেয়া হবে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন