মৃত্যুর মুখে শত শত ইয়েমেনি

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১১ নভেম্বর ২০১৭, শনিবার
জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ওষুধ ও ত্রাণ না পৌঁছালে আগামী সপ্তাহে ইয়েমেনে শত শত মানুষ মারা যাবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন দেশটির চিকিৎসকরা। সেখানে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে অসুস্থ ও বয়ষ্করা। এ খবর দিয়েছে আল জাজিরা। ইয়েমেনের রাজধানী সানায় কর্মরত চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ফার্মেসিগুলোতে বিভিন্ন জরুরি প্রয়োজনীয় ওষুধের ভয়ানক স্বল্পতা দেখা দিয়েছে। এতে আগামী সপ্তাহ নাগাদ ক্যানসার, ডায়াবেটিসসহ অনেক জটিল রোগের চিকিৎসা দেয়া অসম্ভব হয়ে পড়বে। সানার আল-মুতাওয়াক্কিল হাসপাতালের চিকিৎসক আব্দুল রহমান আল আনসি বলেন, ওষুধ সরবরাহ বিপজ্জনকভাবে কমে গেছে।
ইন্সুলিন, ব্যথা-নাশক ওষুধসহ অনেক জটিল রোগের ওষুধগুলো কোথাও পাওয়া যাচ্ছে না। গত মাসে ক্যানসারের ওষুধের অভাবে এক দুই বছরের শিশু মারা গেছে। তিনি বলেন, সৌদি আরব যদি তাদের অবরোধ
শিথিল না করে, খাদ্য ও ওষুধ সরবরাহের অনুমতি না দেয়, তাহলে সব ক্যানসারের রোগী মারা যেতে পারে। এমনকি যারা ডায়াবেটিসে ভুগছেন তারাও আশঙ্কামুক্ত না। আগামী সপ্তাহেই শত শত মানুষ মারা যাবে। উল্লেখ্য, সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন জোট ২০১৫ সাল থেকে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের ওপর হামলা চালিয়ে আসছে। সম্প্রতি রিয়াদে হুতি বিদ্রোহীদের ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই জোট গত সপ্তাহের রোববার থেকে ইয়েমেনের ওপর স্থল ও নৌ অবরোধ আরোপ করেছে। এতে যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনে ত্রাণ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে। এমনকি দেশটিতে ডক্টরস উইদাউট বর্ডারস, অক্সফ্যাম ও জাতিসংঘের সংস্থাগুলোকেও ত্রাণ সরবরাহের অনুমতি দেয়া হচ্ছে না। সৌদি আরবের দাবি, এসব ত্রাণ সহায়তার আড়ালে ইরান ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদেরকে অস্ত্র সরবরাহ করছে। তবে রিয়াদের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে তেহরান।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

alim

২০১৭-১১-১১ ০১:০৪:২৯

“ সৌদি রাজ পরিবার কি মুসলমানের শত্রু না বন্ধু ?হে প্রভূ,তুমি সৌদি রাজ পরিবারকে হেদায়ত কর, বিবেকর ঘাটতি পূরন করে দাও ৷”

আপনার মতামত দিন