আলাপন

‘এখন ভালো কথা ও সুরের চেয়ে মিউজিকটাকেই বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়’

বিনোদন

ফয়সাল রাব্বিকীন | ২৩ অক্টোবর ২০১৭, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:২৮
জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী খুরশীদ আলম। নিজের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গান তিনি উপহার দিয়েছেন। বিশেষ করে সিনেমার গানে অনবদ্য অবদান রেখে আসছেন এ সংগীতশিল্পী। ‘চুমকি চলেছে একা পথে’, ‘চুরি করেছো আমান মনটা’, ‘মাগো মা’, ‘ওই প্রেমের দরজা খোলনা’, ‘এ আকাশকে সাক্ষী রেখে’, ‘আজকে না হয় ভালোবাসো’, ‘ও দুটি নয়নে’, ‘বন্দি পাখির মতো’ প্রভৃতি অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গান রয়েছে খুরশীদ আলমের। এ গানগুলো এখনও মানুষের মুখে মুখে। দীর্ঘ পথ পেরিয়ে আসার পরও ক্লান্তিহীনভাবে এখনও নিয়মিত গান করে চলেছেন তিনি।
ক’দিন আগেই সংগীতে সাফল্যের স্বিকৃতিস্বরূপ চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডে আজীবন সম্মাননা দেয়া হয়েছে এ শিল্পীকে। তবে পুরস্কার নয়, নিজের কাজকেই সব সময় বড় করে দেখেছেন খুরশীদ আলম। আর তারই ধারাবাহিকতায় একই রকম রোমান্টিক গানের সুরে কন্ঠ মেলাচ্ছেন তিনি এখনও। সব মিলিয়ে কেমন চলছে বর্তমান দিনকাল? উত্তরে খুরশীদ আলম বলেন, অনেক ভালো আছি সবার দোয়ায়। ভালো থাকার চেষ্টা করাটা দরকার। সেটাই করছি প্রতিনিয়ত। এই মূহূর্তে (রোববার রাতে) কি করছেন? খুরশীদ আলম বলেন, বাসাতেই আছি। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছি। ক’দিন আগেইতো চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডে আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন। অনুভূতি কেমন? খুরশীদ আলম বলেন, সত্যি বলতে পুরস্কার পেলে কারও ভালো লাগে না এটা বললে মিথ্যা বলা হবে। আমারও অনেক ভালো লেগেছে। আমাকে চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডে আজীবন সম্মাননা দেয়া হয়েছে। এটা আমার জন্য বড় স্বিকৃতি। এ জন্য আমি চ্যানেল আইয়ের কাছে কৃতজ্ঞ। যতদিন বেঁচে আছি গান গেয়ে যেতে চাই। এখন ব্যস্ততা কি নিয়ে? উত্তরে খুরশীদ আলম বেশ আতœবিশ্বাসের সুরে বলেন, টিভি প্রোগ্রাম করছি নিয়মিত। বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও গাইছি। এখনও মাঝে মধ্যে অনেকে ডাকেন সিনেমার গানে। তবে মনপছন্দ হয় না বলে করি না। আমার মনের মতো গান হলেই কেবল করবো। মনপছন্দ হয় না কেন? খুরশীদ আলম বলেন, দেখুন এখন গানের স্টাইল বদলেছে, মানুষের রুচিরও পরিবর্তন হয়েছে। যে গানের প্রস্তাবগুলো পাই সেগুলো শ্রোতারা অনেক দিন মনে রাখতে পারবে বলে মনে হয়নি। মানে ভালো কথা ও সুরের ঘাটতি। এ কারণেই মূলত করা হয়নি। এই সময়ে তাহলে গান কেমন হচ্ছে বলে মনে করেন? খুরশীদ আলম বলেন, অনেক ভালো গান হচ্ছে। তরুণদের ভালো গানগুলো শুনলে মনটা ভরে যায়। তবে সেটা সংখ্যায় খুব কম। এখন ভালো মানের কথা ও সুর কম হচ্ছে। এ কারণেই গান আগের মতো স্পর্শ করছে না। তবে মেধাবি যে ছেলে মেয়েরা কাজ করছে তাদের নিয়ে আমি আশাবাদী। কারণ ভালো ও খারাপ গান সব যুগেই ছিলো। কিন্তু টিকে  গেছে ভালো গানগুলোই। তাই চিন্তার কিছু নেই। শ্রোতারাই খারাপ গানগুলোকে প্রত্যাখ্যান করে। এখন অনেকেই বলছেন গান আগের মতো করে টিকে থাকে না। এর সঙ্গে আপনি কি একমত? খুরশীদ আলম বলেন, এটা একটি কঠিন প্রশ্ন। আগে আমরা যে গানগুলো করেছি তার বেশিরভাগই টিকে আছে। এর কারণ টিমওয়ার্ক। একটা গান তৈরির পেছনে ছিল অনেক পরিশ্রম ও ভালোবাসা। এখন টিমওয়ার্কটা কম। তাছাড়া এখন ভালো কথা ও সুরের  চেয়ে মিউজিকটাকেই বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়। কিন্তু গান হতে হবে কন্ঠ নির্ভর, মিউজিক নির্ভর নয়। তবে এখনকার গানগুলো যে টিকবে না তা নয়। যে গানগুলোর আবেদন অনেক বেশি সেগুলো নির্দ্বিধায় টিকে যাবে। এই সময়ের শিল্পীদের জন্য আপনার পরামর্শ কি? খুরশীদ আলম বলেন, দেখুন, আমি নিজে এখনও শিখছি। হয়তো অবাক হবেন। কিন্তু এটাই সত্য। শেখার কোনো সময় কিংবা বয়স নেই। তাই প্রতিটি মুহুূর্ত কাজে লাগাতে হবে। শিখতে হবে, জানতে হবে। তাহলেই সংগীতে ভালো কিছু করা সম্ভব হবে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ঢাকা ওয়াসাকে ১৩টি খাল উদ্ধারের নির্দেশ

এসডিজি অর্জন করতে হলে প্রতিবছর ৩০ শতাংশ নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ বাড়াতে হবে

‘অনুপ্রবেশকারীদের ৫০০০ পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না’

‘ক্ষমতা থাকলে সরকারকে টেনে-হিচড়ে নামান’

আগামীকাল আদালতে যাবেন খালেদা জিয়া

‘সেনা মোতায়েনের প্রয়োজন নেই’

‘তদন্তের স্বার্থেই তনুর পরিবারকে ডাকা হয়েছে’

জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন ‘কুমির মানুষ’

আশ্রয়শিবিরে সংক্রমণযুক্ত পানির বিষয়ে ইউনিসেফের সতর্কতা

চীন, উত্তর কোরিয়ার ১৩ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ

রোহিঙ্গা সঙ্কট: উচ্চ আশা নিয়ে বাংলাদেশ-মিয়ানমার বৈঠক শুরু

ঘোড়ামারা আজিজসহ ছয় জনের মৃত্যুদণ্ড

নিবিড় পর্যবেক্ষণে মহিউদ্দিন চৌধুরী

আফ্রিকার স্বৈরাচারদের মেরুদণ্ডে শিহরণ

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে চীনের প্রস্তাব, যা বললেন মুখপাত্র...

দুদকের মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন মেয়র সাক্কু