প্রধানমন্ত্রীকে লেখা এক প্রধান শিক্ষকের খোলা চিঠি

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২২ অক্টোবর ২০১৭, রোববার, ৮:৪৭ | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৫৮
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে খোলা চিঠি লিখেছেন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এক প্রধান শিক্ষক। বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষক চাকরী জাতীয়করণ নিয়ে নিজের ফেসবুক ওয়ালে চিঠিটি লিখেছেন মেহেরপুর গাংনীর গাড়াডোব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল মান্নান। চিঠিটি হুবহু তুলে ধরা হলো-
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে লেখা খোলা চিঠি
শ্রদ্ধেয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
আস্সালামু ওয়ালাইকুম, প্রথমে আপনার সুস্থতা কামনা করি। বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক চাকরী জাতীয়করণের পর বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষক চাকরী জাতীয়করণ হবে, বেসরকারি শিক্ষক সমাজ আশা করেছিল। কিন্তু অদ্যাবধি তাদের আশা পূরণ হয়নি। বিদ্যালয়ের আয় সরকারি কোষাগারে জমা নিয়ে আর কত টাকা লাগতে পারে সে হিসাব আপনি পেয়েছেন কিনা জানিনা।
বিষয়টিতে আপনার হস্তক্ষেপ কামনা করছি। আপনি আমাদের শেষ আশ্রয়স্থল। আশা করি দয়া করে বিষয়টি সুবিবেচনা করবেন এবং সরকারি ও বেসরকারি বেতন বৈষম্য দূর করে শিক্ষকদের অভাব অনটনমুক্ত করতে সাহায্য করবেন।
আপনি দীর্ঘজীবী হউন।
শুভেচ্ছান্তে -
মো. আব্দুল মান্নান। প্রধান শিক্ষক। গাড়াডোব মাধ্যমিক বিদ্যালয়, গাংনী, মেহেরপুর। সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক, জেলা আওয়ামী লীগ, মেহেরপুর। ও সাধারন সম্পাদক, স্বাশিপ, গাংনী, মেহেরপুর।

[সোহাগ/আআ]

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মঞ্জুর

২০১৭-১০-২২ ০৯:১৭:২৯

দ্রুত জাতীয়করণ করা হোক

আপনার মতামত দিন

বলিউড ছবি নিয়ে ভারতে তোলপাড়, নিষেধাজ্ঞা নেই-সুপ্রিম কোর্ট

চকবাজারে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

ভারতে স্বামীর সামনে স্ত্রীকে ধর্ষণ

দেশীয় অস্ত্রসহ আটক ৯ ডাকাত

রাজধানীতে মা-মেয়ের ‘আত্মহত্যা’

লন্ডনে ফিন্সবারি পার্ক মসজিদে হামলাকারী: 'যত বেশি সম্ভব মুসলিম মারতে চেয়েছি।'

সিএনজি চালক হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ২

যুক্তরাষ্ট্রের সরকারের অচলাবস্থার অবসান

নতুন নতুন পথ খুঁজছেন সুচি

দু’বছরের মধ্যে জেরুজালেমে দূতাবাস খুলবে যুক্তরাষ্ট্র

রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন বিলম্বিত করার কথা আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয় নি মিয়ানমারকে

শিক্ষামন্ত্রণালয়ের দুই কর্মচারী ও লেকহেড স্কুলের মালিকের বিরুদ্ধে মামলা

প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচন ১৯শে ফেব্রুয়ারি

ফেরত পাঠালে রোহিঙ্গারা ঝুঁকিতে পড়বে

একই রাতে মা ও ছেলের মৃত্যু

ধনী ১ শতাংশ মানুষের হাতে বিশ্বের ৮২ শতাংশ সম্পদ