বিনামূল্যে ২০ লাখ ‘অপরাজিতা’ সিম বিতরণ

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার | ২৩ অক্টোবর ২০১৭, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:১৭
প্রথম সাবমেরিন ক্যাবল মেরামতের কাজ চলার কারণে ২৪ থেকে ২৬শে অক্টোবর ইন্টারনেটের গতি কমে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ  প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। গতকাল সচিবালয়ে টেলিটকের সিম বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ তথ্য জানান। অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী নারীর ‘ক্ষমতায়ন’ ও তাদের ‘জীবনযাত্রার মানোন্নয়নে’ টেলিটক বিনামূল্যে ২০ লাখ ‘অপরাজিতা’ সিম বিতরণ করছে বলেও জানান। ইন্টারনেট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ওই সময় দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলে সংযুক্ত থাকায় বিকল্প পদ্ধতিতে ইন্টারনেট সেবা দেয়া হবে। দেশের প্রথম সাবমেরিন ক্যাবল ১২ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো দীর্ঘ সময়ের জন্য বিচ্ছিন্ন থাকাকালে পটুয়াখালীতে স্থাপিত দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের (সিমিইউ-৫) ল্যান্ডিং স্টেশনের মাধ্যমে সংযুক্ত থাকবে দেশের ইন্টারনেট। তারানা হালিম বলেন, সিমিইউ-৪ রক্ষণাবেক্ষণের জন্য কাজ হয়ে যাবে।
বন্ধ হয়ে গেলে ইন্টারনেট থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন থাকবো না। যেহেতু সিমিইউ-৫ এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছি, সে কারণে আমরা সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হচ্ছি না, ওই সময়ে গতি স্লো হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে আমাদের আইটিসি লাইসেন্সধারীরা আছে, এতে খুব বেশি সমস্যা হবে না। বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো সাবমেরিন ক্যাবল ‘সিমিইউ-৪’ এ যুক্ত হয় ২০০৫ সালে, যার মাধ্যমে ২৫০ জিবিপিএস (গিগাবাইট পার সেকেন্ড) ব্যান্ডউইডথ পাওয়া যাচ্ছে। এটি ছাড়াও বাংলাদেশ ছয়টি বিকল্প সাবমেরিন ক্যাবলের (আইটিসি বা ইন্টারন্যাশনাল টেরিস্ট্রিয়াল ক্যাবল) সঙ্গে যুক্ত রয়েছে। টেলিটকের সিম প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী বলেন, একজন নারী বিনামূল্যে সর্বোচ্চ দুটি সিম নিতে পারবেন। এই সিমে সুলভমূল্যে কল ও ইন্টারনেট সেবা পাওয়া যাবে। অপরাজিতা সিম দেশের নারীদের সামাজিক ও অর্থনৈতিক অবস্থান উন্নয়নে সুদূরপ্রসারী ভূমিকা রাখবে বলে আশা করি। ‘স্টার্ট আপ বোনাস’ হিসেবে একজন অপরাজিতা গ্রাহক সিমের সঙ্গে ১০ টাকার টক টাইম পাবেন, যা তিন মাস বহাল থাকবে। সেই সঙ্গে এক জিবি ডেটা, ১০ মিনিট টেলিটক থেকে টেলিটকে এবং টেলিটক থেকে অন্য অপারেটরে ৫ মিনিট বিনা পয়সায় কথা বলার সুযোগ পাবেন, যা ব্যবহার করতে হবে অ্যাক্টিভেশনের পর প্রথম সাত দিনের মধ্যে। অপরাজিতা গ্রাহক সাত দিন মেয়াদে ৮ টাকায় এক জিবি ডেটা এবং ১৪ টাকায় দুই জিবি ডেটার ইন্টারনেট প্যাকেজ ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। সিম অ্যাক্টিভেশনের পর তিন মাস যতবার খুশি এই প্যাকেজ তিনি উপভোগ করতে পারবেন। টেলিটকের নারী গ্রাহকদের মধ্যে যারা অন্য সিম ব্যবহার করছেন, তারাও অপরাজিতায় ‘মাইগ্রেট’ করতে পারবেন বলে অনুষ্ঠানে জানানো হয়। গতকাল থেকেই সারা দেশে টেলিটকের গ্রাহক সেবা কেন্দ্র এবং নির্ধারিত রিটেইল পয়েন্টে এ সিম পাওয়া যাচ্ছে। টেলিটকের নেটওয়ার্ক নিয়ে গ্রাহক অসন্তুষ্টির বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে তারানা হালিম বলেন, প্রকল্পের অর্থ ছাড় না হওয়ায় টেলিটকের নেটওয়ার্ক উন্নত করা যাচ্ছে না। টেলিটকের নেটওয়ার্ক সমপ্রসারণে একনেক অনুমোদিত একটি প্রকল্পের অর্থ ছাড়ের বিষয়টি এখনো ঝুলে আছে। তাছাড়া ফোরজির জন্য একনেক অনুমোদিত দুটি প্রকল্পে অর্থ ছাড়ের বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রয়েছে। এ বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে দেশে ফোরজি প্রযুক্তি চালু করা হবে জানিয়ে তারানা হালিম বলেন, অপারেটররা ২৪টি বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন। এর মধ্যে বেশিরভাগই ব্যাখ্যার মাধ্যমে সমাধান করা সম্ভব হয়েছে। বাকি দুটি বিষয়ে আলোচনা চলছে, শিগগিরই সমাধান হবে বলে আশা করছি। টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী মো. গোলাম কুদ্দুসসহ সিনিয়র কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক আকরাম ৮ দিনের রিমান্ডে

টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে রংপুর

বাড়ি ফিরেছেন নিখোঁজ ব্যবসায়ী অনিরুদ্ধ রায়

শিক্ষার্থীদের মাথা ন্যাড়ার শর্তে এসএসসি’র ফরম পূরণ!

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে

একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ

শিক্ষিকা-ছাত্রের যৌন সম্পর্ক, অতঃপর...

রাবি অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার

‘সমাবেশে জোর করে লোক আনা হয়েছে’

সমাবেশ মঞ্চে শেখ হাসিনা

যুদ্ধাপরাধের ২৯তম রায়ের আপেক্ষা

ঈদে মিলাদুন্নবী নিয়ে চাঁদ দেখা কমিটির সভা কাল

সিরিয়া ইস্যুতে আবারো রাশিয়ার ভেটো

হারিরির সৌদি আরব ত্যাগ

ঢাকায় চীন-বাংলাদেশ বৈঠক শুরু

প্যারাডাইস পেপারসে শিল্পপতি মিন্টু ও তার পরিবারের নাম