‘ঢাকার জলাবদ্ধতা কী দেখেছেন, কলকাতা যান’

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২২ অক্টোবর ২০১৭, রবিবার, ৫:০০
স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ বলেছেন, যারা ঢাকা শহরের জলাবদ্ধতা নিয়ে সমালোচনা করেছেন তাদের কলকাতা বা মুম্বইয়ের মতো শহরের পরিস্থিতি দেখে আসা উচিৎ। তিনি বলেন, ঢাকার জলাবদ্ধতা কী দেখেছেন, কলকাতা যান, বোম্বে যান। আজ রোববার ঢাকার একটি হোটেলে ‘মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ক’ এক সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নে মন্ত্রীর এমন মন্তব্য করেন মন্ত্রী।
খন্দকার মোশাররফ আরো বলেন, পৃথিবীর ক্রমবর্ধমান সিটিতে এটা একটা সমস্যা। আমরা এর সমাধান করব। ঢাকার ভেতরে থাকা ৪৭টি খালের সব পুনরুদ্ধার হলেই সরকার সেগুলো খননের মাধ্যমে সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করবে এবং এক বছরের মধ্যে জলাবদ্ধতার সমস্যা ঢাকায় আর থাকবে না।
জলাবদ্ধতা নিরসনে সরকার কী কী ব্যবস্থা নিচ্ছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা কি দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে বলা যাবে? এটা তো বিরাট ব্যাপার।
আজকে যদি আপনি হিসাব দেখেন, ঢাকায় জনসংখ্যা হওয়া উচিত ছিল ৭৫ লাখ থেকে এক কোটি। সে জায়গায় ঢাকার জনসংখ্যা তিন গুণ বেড়ে গেছে।
[এমকে]


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

morsidul alam

২০১৭-১০-২২ ০৯:৩৩:২১

ঢাকার অবস্থা আর কত খারাপ হলে আপনার ভাল লাগবে?

F.alam

২০১৭-১০-২২ ০৬:৩৯:১৩

Why not looking for uk low & order .u should say same like this .

Abu Taleb

২০১৭-১০-২২ ০৫:১১:২৯

For this reason he is Minister.

selina

২০১৭-১০-২২ ০৫:০৫:৫৬

khal ,canal wet land ,water body ,bil, hawor ,jhil should recover , needs urgently digging ,dragging adjacent to metro Dhaka to save permanent water logging .in this program should follow cs survey land map .

kazi

২০১৭-১০-২২ ০৪:৫৫:২২

বাংলাদেশের মন্ত্রীরা খারাপের সাথে তুলনা করতেই পছন্দ করেন ভালর সাথে নয়। কথায় আছে তূমি অধম বলে কি আমি উত্তম হব না? এই মানসিকতা কেন বাংলাদেশের মন্ত্রীদের মাঝে কাজ করে না ? কলকাতা মুম্বাই এর মত জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করতে চাইলে অতি সহজ। মন্ত্রী সাহেব ঢাকার সব নালা নর্দমা ভরাট করে ফেলেন। আপনার ইচ্ছা পূরণ হয়ে যাবে।

আপনার মতামত দিন

ঢাকা ওয়াসাকে ১৩টি খাল উদ্ধারের নির্দেশ

এসডিজি অর্জন করতে হলে প্রতিবছর ৩০ শতাংশ নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ বাড়াতে হবে

‘অনুপ্রবেশকারীদের ৫০০০ পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না’

‘ক্ষমতা থাকলে সরকারকে টেনে-হিচড়ে নামান’

আগামীকাল আদালতে যাবেন খালেদা জিয়া

‘সেনা মোতায়েনের প্রয়োজন নেই’

‘তদন্তের স্বার্থেই তনুর পরিবারকে ডাকা হয়েছে’

জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন ‘কুমির মানুষ’

আশ্রয়শিবিরে সংক্রমণযুক্ত পানির বিষয়ে ইউনিসেফের সতর্কতা

চীন, উত্তর কোরিয়ার ১৩ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ

রোহিঙ্গা সঙ্কট: উচ্চ আশা নিয়ে বাংলাদেশ-মিয়ানমার বৈঠক শুরু

ঘোড়ামারা আজিজসহ ছয় জনের মৃত্যুদণ্ড

নিবিড় পর্যবেক্ষণে মহিউদ্দিন চৌধুরী

আফ্রিকার স্বৈরাচারদের মেরুদণ্ডে শিহরণ

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে চীনের প্রস্তাব, যা বললেন মুখপাত্র...

দুদকের মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন মেয়র সাক্কু