জাতিসংঘের ফ্যাক্টফাইন্ডিংয়ের কাজ শুরু হচ্ছে কাল থেকে

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২২ অক্টোবর ২০১৭, রবিবার, ১১:২০ | সর্বশেষ আপডেট: ৪:১৯
রাখাইনে রোহিঙ্গা নির্যাতন তদন্তে বাংলাদেশ সফরে এরই মধ্যে এসেছে জাতিসংঘের নিরপেক্ষ ফ্যাক্টফাইন্ডিং টিম। তিন সদস্যের এ প্রতিনিধিদল আগামীকাল সোমবার থেকে মাঠপর্যায়ে কাজ শুরু করবে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, জাতিসংঘের নিরপেক্ষ  ফ্যাক্টফাইন্ডিং টিমের সদস্য মারজুকি দারুসমান ও শ্রীলঙ্কার রাধিকা কুমরাস্বামী গতকাল শনিবার ঢাকায় পৌঁছেছেন। অন্য সদস্য অস্ট্রেলিয়ার ক্রিস্টোফার ডমিনিক সিডোটি আজ রোববার ঢাকায় আসছেন। কাল থেকে প্রতিনিধিদলটি মাঠপর্যায়ে কাজ করবে। এরপর সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলবে।
জেনেভায় ফিরে প্রতিনিধিদলটি একটি প্রতিবেদন জমা দেবে।
গত বছরের অক্টোবরে রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ব্যাপক নিধনযজ্ঞের পর এ বছরের মার্চে জাতিসংঘের নিরপেক্ষ  ফ্যাক্টফাইন্ডিং টিমটি গঠন করা হয়েছিল। জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলে সিদ্ধান্ত হয়েছিল,  ফ্যাক্টফাইন্ডিং টিমটি মিয়ানমার গিয়ে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর ব্যাপক হারে হত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতনের ব্যাপারে নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযোগের তদন্ত করবে। কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে বেশ কয়েকবার অনুরোধ জানানোর পরও দলটিকে মিয়ানমার সে দেশে ঢুকতে দেয়নি। এই পরিস্থিতিতে এ বছরের ২৫শে আগস্টের পর রাখাইনে নতুন করে আবার দমন অভিযান শুরু হয়। ফলে এবার দলটিকে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া শরণার্থীদের কাছে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনারের দপ্তর (ওএইচসিএইচআর)।
জাতিসংঘের নিরপেক্ষ  ফ্যাক্টফাইন্ডিং টিমের বাংলাদেশ সফর বেশ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ চলতি মাসের ১১ তারিখ ওএইচসিএইচআরের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২৫ আগস্ট তল্লাশিচৌকিতে সন্ত্রাসী হামলার জবাব দিতে রোহিঙ্গাদের ওপর সেনা অভিযান শুরু হলেও এই অভিযান ছিল পূর্বপরিকল্পিত। রোহিঙ্গাদের শুধু রাখাইন থেকে তাড়িয়ে দিতেই নয়, পুনরায় নিজেদের বাড়িতে ফেরা বন্ধ করতে তাদের ওপর নৃশংস আর পরিকল্পিত হামলা চালিয়েছে মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী।
[মিজান/এমকে]

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ঢাকা ওয়াসাকে ১৩টি খাল উদ্ধারের নির্দেশ

এসডিজি অর্জন করতে হলে প্রতিবছর ৩০ শতাংশ নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ বাড়াতে হবে

‘অনুপ্রবেশকারীদের ৫০০০ পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না’

‘ক্ষমতা থাকলে সরকারকে টেনে-হিচড়ে নামান’

আগামীকাল আদালতে যাবেন খালেদা জিয়া

‘সেনা মোতায়েনের প্রয়োজন নেই’

‘তদন্তের স্বার্থেই তনুর পরিবারকে ডাকা হয়েছে’

জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন ‘কুমির মানুষ’

আশ্রয়শিবিরে সংক্রমণযুক্ত পানির বিষয়ে ইউনিসেফের সতর্কতা

চীন, উত্তর কোরিয়ার ১৩ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ

রোহিঙ্গা সঙ্কট: উচ্চ আশা নিয়ে বাংলাদেশ-মিয়ানমার বৈঠক শুরু

ঘোড়ামারা আজিজসহ ছয় জনের মৃত্যুদণ্ড

নিবিড় পর্যবেক্ষণে মহিউদ্দিন চৌধুরী

আফ্রিকার স্বৈরাচারদের মেরুদণ্ডে শিহরণ

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে চীনের প্রস্তাব, যা বললেন মুখপাত্র...

দুদকের মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন মেয়র সাক্কু