এক ফ্রেমে নয় তারকা

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ অক্টোবর ২০১৭, শনিবার
মিশা সওদাগর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির বর্তমান সভাপতি। বিগত প্রায় ছয় মাস ধরে তিনি সমিতির জন্য নিয়োজিত থেকে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই তিনি সমিতির উন্নয়নের পাশাপাশি এর সদস্যদের নিয়মিত খোঁজ নেয়া, তাদের বিপদে-আপদে পাশে থাকার চেষ্টা করছেন। তবে নিজের এবং সমিতির কাজে তাকে এতটাই ব্যস্ত থাকতে হয়েছে, যে কারণে বাসায় একটা গেটটুগেদার পরিকল্পনা করার সুযোগ পাননি তিনি। যেহেতু শিগগিরই তিনি ওমরায় যাবেন এবং এই সময়ে ব্যস্ততা কিছুটা কম আছে, তাই শিল্পীদের কাছে দোয়া চাইতে এবং একসঙ্গে কিছুটা সময় কাটানোর উদ্যোগ নেন মিশা। তারই নিমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে গেল বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর উত্তরার ১২নং সেক্টরে তার বাসায় উপস্থিত হয়েছিলেন নায়ক-প্রযোজক সোহেল রানা, ফারুক, নায়িকা রোজিনা, নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন, বাপ্পারাজ, আমিন খান, সম্রাট, নায়িকা পপি, পূর্ণিমা, শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, নিপুণ, সাইমন সাদিক, পরিচালক ছটকু আহমেদ, চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু, শামসুল আলম, সুমন দেসহ আরো অনেকে।
হঠাৎ এমন আয়োজন প্রসঙ্গে মিশা সওদাগর বলেন, এটা সত্য যে আমরা শিল্পীরা সবসময়ই শিল্পীর সুখে-দুঃখে পাশাপাশি থাকার চেষ্টা করি। একে অন্যের বিপদে হাত বাড়িয়ে দেই। শুধু সমিতির সভাপতি হয়েই নয়, ক্ষমতার বাইরে থেকেও আমি আমার শিল্পীদের বিপদে-আপদে পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। শিল্পী সমিতির সভাপতি হিসেবে আমি আমার দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের চেষ্টা করছি। যারা নিমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে আমার বাসায় এসেছিলেন তাদের প্রতি আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। বেশি কৃতজ্ঞ আমি সোহেল রানা ভাই আর ফারুক ভাইয়ের কাছে। তারা দুজন চলচ্চিত্রে আমার অভিভাবক। সবচেয়ে বড় কথা শিল্পীর পাশে যেকোনো পরিস্থিতিতে শিল্পী থাকবেন- এটাই আমাদের এগিয়ে যাওয়ার বড় শক্তি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বলিউড ছবি নিয়ে ভারতে তোলপাড়, নিষেধাজ্ঞা নেই-সুপ্রিম কোর্ট

চকবাজারে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

ভারতে স্বামীর সামনে স্ত্রীকে ধর্ষণ

দেশীয় অস্ত্রসহ আটক ৯ ডাকাত

রাজধানীতে মা-মেয়ের ‘আত্মহত্যা’

লন্ডনে ফিন্সবারি পার্ক মসজিদে হামলাকারী: 'যত বেশি সম্ভব মুসলিম মারতে চেয়েছি।'

সিএনজি চালক হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ২

যুক্তরাষ্ট্রের সরকারের অচলাবস্থার অবসান

নতুন নতুন পথ খুঁজছেন সুচি

দু’বছরের মধ্যে জেরুজালেমে দূতাবাস খুলবে যুক্তরাষ্ট্র

রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন বিলম্বিত করার কথা আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয় নি মিয়ানমারকে

শিক্ষামন্ত্রণালয়ের দুই কর্মচারী ও লেকহেড স্কুলের মালিকের বিরুদ্ধে মামলা

প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচন ১৯শে ফেব্রুয়ারি

ফেরত পাঠালে রোহিঙ্গারা ঝুঁকিতে পড়বে

একই রাতে মা ও ছেলের মৃত্যু

ধনী ১ শতাংশ মানুষের হাতে বিশ্বের ৮২ শতাংশ সম্পদ