খান আতা ইস্যু নিয়ে এফডিসিতে চলচ্চিত্র পরিবারের প্রতিবাদ

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ২০ অক্টোবর ২০১৭, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৪১
প্রয়াত বরেণ্য নির্মাতা, গীতিকার, সুরকার, সংগীত পরিচালক, প্রযোজক ও অভিনেতা খান আতাউর রহমানকে সম্প্রতি ‘রাজাকার’ মন্তব্য করে বিতর্কের সৃষ্টি করেছেন বিশিষ্ট নাট্যজন-মুক্তিযোদ্ধা নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু। এরই প্রতিবাদ স্বরূপ গতকাল দুপুরে এফডিসি’র জহির রায়হান কালারল্যাব মিলনায়তনে ‘দুঃখের কিছু কথা বলতে চাই’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা-মুক্তিযোদ্ধা ফারুক, নির্মাতা আমজাদ হোসেন, সিবি জামান, আজিজুর রহমান, মুশফিকুর রহমান গুলজার, খান আতার মেয়ে সংগীতশিল্পী রোমানা ইসলাম, ছেলে সংগীতশিল্পী-অভিনেতা আগুনসহ আরো অনেকে। সংবাদ সম্মেলনে চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেন বলেন, কিছু দুঃখের কথা বলতে চাই। সে সময়ের কথা বলবো আজ। মুক্তিযুদ্ধের নয় মাসে আমরা একটা গালি তৈরি করেছিলাম।
সে গালিটির নাম ‘রাজাকার’। যারা স্বাধীনতার বিরুদ্ধে ছিলেন তাদের আমরা এই গালিটি দিতাম। আন্তর্জাতিকভাবে আমাদের দেশের প্রথম নায়ক খান আতাউর রহমান। বাচ্চু সাহেব তুমি আমার দেশের লোক। তুমি একজন মুক্তিযোদ্ধা। তুমি কেন এই গালিটা আতা ভাইকে দিলে? তিনি তো তোমার কোনো ক্ষতি করেন নাই। তিনি অনেক আগে পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছেন। তুমি কেন তার সম্পর্কে এই গালিটা উচ্চারণ করলে? তুমি যদি সত্যিই এ কথাটা বলে থাকো, তোমাকে ক্ষমা চাইতে হবে চলচ্চিত্রের মানুষের কাছে, বাংলার মানুষের কাছে। আর ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ছবিটি দেখানোর জন্যই এ আয়োজন। সবাই দেখে বুঝুক কি ছবি খান আতা তৈরি করেছিলেন। একজন মৃত মানুষকে কবর থেকে তুলে তাকে অপমান করার অধিকার তোমার নেই। এর বিচার আল্লাহর উপর ছেড়ে দিলাম। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবারের আহ্বায়ক ও চলচ্চিত্রের অভিনেতা ফারুক বলেন, আমি আজ দুঃখের কথা জানাতে সকলকে ডেকেছি। অনেক কষ্ট মনে চেপে রেখেছি এসব কথা। খান আতা পরিচালিত ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ছবিটি মুক্তি পায় ১৯৭৩ সালে। তখন বঙ্গবন্ধুর সরকার ক্ষমতায় ছিল। মুক্তিযুদ্ধের সরকারই ছবিটি নিয়ে যখন আপত্তি করেনি তখন আপনি (নাসির উদ্দিন ইউসুফ) কেন খান আতার বিরুদ্ধে কথা বলছেন। তার মানে আপনি স্বাধীনতার বিরুদ্ধে কথা বলছেন! জাতির কাছে বিচার চাই আমি। কি কারণে গুণী এই মানুষকে ‘রাজাকার’ বলা হচ্ছে এর জবাব দিতে হবে। আরেক পরিচালক সিবি জামান বলেন, খান আতার মতো মানুষকে নিয়ে যারা এমন মন্তব্য করতে পারে তাদেরকে ঘৃণা করি। আগুন তার বক্তব্যে বলেন, এভাবে গুণী মানুষদের ছোট করতে নেই। আমার বাবাকে দেশের সবাই চেনেন ও জানেন। আজকে হঠাৎ তাকে রাজাকার বলে দিলেই তাকে খাটো করা যাবে না। আমি যদি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের মানুষ হয়ে থাকি তবে অবশ্যই এই যুদ্ধে আমি জয়ী হবোই। প্রমাণ হবেই আমার বাবা রাজাকার ছিলেন না। আমার সঙ্গে দেশবাসী রয়েছেন। সবার প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা। বক্তব্য পর্ব শেষে, খানা আতা’র ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ছবিটি প্রদর্শিত হয়। উল্লেখ্য, সম্প্রতি নিউ ইয়র্কে অনুষ্ঠিত সাংস্কৃতিক অভিবাসীদের সমাবেশে নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু খান আতাউর রহমানকে ‘রাজাকার’ বলে মন্তব্য করেন। তিনি আরো বলেন, খান আতা নির্মিত ‘আবার তোরা মানুষ হ’-তো নেগেটিভ ছবি। যেখানে মুক্তিযোদ্ধাদের বলছে, ‘আবার তোরা মানুষ হ!’

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

শিক্ষার্থীদের মাথা ন্যাড়ার শর্তে এসএসসি’র ফরম পূরণ!

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে

একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ

শিক্ষিকা-ছাত্রের যৌন সম্পর্ক, অতঃপর...

রাবি অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার

‘সমাবেশে জোর করে লোক আনা হয়েছে’

সমাবেশ মঞ্চে শেখ হাসিনা

যুদ্ধাপরাধের ২৯তম রায়ের আপেক্ষা

ঈদে মিলাদুন্নবী নিয়ে চাঁদ দেখা কমিটির সভা কাল

সিরিয়া ইস্যুতে আবারো রাশিয়ার ভেটো

হারিরির সৌদি আরব ত্যাগ

ঢাকায় চীন-বাংলাদেশ বৈঠক শুরু

প্যারাডাইস পেপারসে শিল্পপতি মিন্টু ও তার পরিবারের নাম

ঝুঁকিপূর্ণ উপায়ে আসছে রোহিঙ্গারা, ইউএনএইচসিআরের উদ্বেগ

ইরাক ও ইসরায়েল সুন্দরী একসঙ্গে সেলফি তুলে বিপাকে

‘বিএনপিকে দূরে রেখে নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে’