হলিউডে যৌন নির্যাতন ও একটি হ্যাসট্যাগ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ অক্টোবর ২০১৭, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৪২
কয়েক সপ্তাহ ধরেই হলিউড মোঘল, প্রযোজক হারভে উইন্সটেনের যৌন কেলেঙ্কারি হলিউড তো বটেই, সারা বিশ্বে মুখরোচক কাহিনীতে পরিণত হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও যৌন হয়রানির অভিযোগ আনছেন হলিউড, আন্তর্জাতিক পর্যায়ের কমপক্ষে তিন ডজন অভিনেত্রী ও সংশ্লিষ্ট নারীরা। তারা সবাই হলিউডের প্রথম শ্রেণির। ঠিক এই ঘটনা নাড়া দিয়েছে নিউ ইয়র্কের এক নারী অ্যালিসা মিলানোকে। এক বন্ধুর পরামর্শে তিনি টুইটারে একটি পোস্ট দিয়েছেন। তাতে লিখেছেন, যদি আপনি যৌন হয়রানির বা অবমাননার শিকার হয়ে থাকেন তাহলে এই টুইটের জবাবে লিখুন ‘মি ঠু’ (আমিও)।
অর্থাৎ তিনি বোঝাতে চেয়েছেন যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন ‘মি ঠু’ লেখা নারীরাওÑ এ বিষয়টি তিনি নিশ্চিত হতে চান। তার এই পোস্ট দেন রোববার রাতে। কিন্তু সোমবার রাত নাগাদ ওই টুইটে মন্তব্য করেছেন কমপক্ষে ৫৩ হাজার নারী। হাজার হাজার নারী জবাবে জানিয়েছেন ‘মি ঠু’। অর্থাৎ তিনিও যৌন নির্যাতনের শিকার। তবে এক্ষেত্রে দায়ী হারভে উইন্সটেন নন, অন্য কেউ, অন্যকোনখানে ঘটিয়েছে এই অপরাধ। এর মধ্য দিয়ে বেরিয়ে এসেছে নারীর প্রতি যৌন নির্যাতনের এক অন্ধকার অধ্যায়। ওই টুইটে অনেক নারী তাদের ধর্ষিত হওয়া, যৌন অবমাননার শিকার হওয়া ও হয়রান হওয়ার কথা শেয়ার করেছেন। অনেকে তাদের জীবনে প্রথমবার এমন নির্যাতনের শিকার হওয়া সম্পর্কে বলেছেন। অ্যালিসা মিলানোর করা হ্যাসট্যাগ #মি ঠু মাত্র ৪৮ ঘন্টার মধ্যে প্রায় ১০ লাখ বার টুইট করা হয়েছে। কেউ এতে লিখেছেন, আমিও এমন অভিজ্ঞতার শিকার হয়েছি। এ সম্পর্কে অ্যালিসা মিলানো বলেছেন, আমার প্রত্যাশা হলো এ উদ্যোগের মাধ্যমে মানুষ জানতে পারবে বিশ্বে, আমাদের এই সময়ে এবং এই যুক্তরাষ্ট্রে কি পরিমাণ নারী এমন যৌন হয়রানির শিকার। তার পোস্ট নিয়ে ২৪ ঘন্টারও কম সময়ের মধ্যে ফেসবুকে এক কোটি ২০ লাখের বেশি পোস্ট, মন্তব্য ও প্রতিক্রিয়া এসেছে। এ তথ্য মার্কিন কোম্পানি ফেসবুকের। ২০১৪ সালে এমন একটি সামাজিক প্রবণতা লক্ষ্য করা গিয়েছিল। তখন ‘ইয়েসালওমেন’ পোস্ট নিয়ে প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছিল। তাতে নারীরা তাদের ওপর যৌন হয়রানি ও এর শিকারে পরিণত হওয়ার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেছিলেন। ওই সময়ে টুইটারের ব্যবহারকারী ছিলেন কম। তবু চার দিনে ওই পোস্টটি ১২ লাখ বার টুইট করা হয়েছির। যুব অধিকারকর্মী তারানা বুরকি ২০০৭ সালে ‘মি ঠু’ প্রচারণা শুরু করেছিলেন। তিনি এর মাধ্যমে যৌন নির্যাতনের শিকার নারীদের জানাতে চেয়েছিলেন ‘তোমরা একা নও, আমরাও আছি তোমাদের সঙ্গে’।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বাড়ি ফিরেছেন নিখোঁজ ব্যবসায়ী অনিরুদ্ধ রায়

শিক্ষার্থীদের মাথা ন্যাড়ার শর্তে এসএসসি’র ফরম পূরণ!

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে

একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ

শিক্ষিকা-ছাত্রের যৌন সম্পর্ক, অতঃপর...

রাবি অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার

‘সমাবেশে জোর করে লোক আনা হয়েছে’

সমাবেশ মঞ্চে শেখ হাসিনা

যুদ্ধাপরাধের ২৯তম রায়ের আপেক্ষা

ঈদে মিলাদুন্নবী নিয়ে চাঁদ দেখা কমিটির সভা কাল

সিরিয়া ইস্যুতে আবারো রাশিয়ার ভেটো

হারিরির সৌদি আরব ত্যাগ

ঢাকায় চীন-বাংলাদেশ বৈঠক শুরু

প্যারাডাইস পেপারসে শিল্পপতি মিন্টু ও তার পরিবারের নাম

ইরাক ও ইসরায়েল সুন্দরী একসঙ্গে সেলফি তুলে বিপাকে

‘বিএনপিকে দূরে রেখে নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে’