মুশফিকের জবাব

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৬ অক্টোবর ২০১৭, সোমবার
দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্ট সিরিজে ভরাডুবি। আর টস কান্ডে মুশফিক হয়ে উঠেছিলেন জাতীয় ভিলেন। প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের স্বেচ্ছাচারিতার সঙ্গে বোর্ডের সমালোচনার তীরে মুশফিকের হৃদয়ে যেন রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। মুখ খুলে দিতে পারছিলেন না তাকে নিয়ে অবজ্ঞা-অবহেলার জবাব। কিন্তু সেই জবাব দিলেন ব্যাট হাতে। শোনা যাচ্ছিল হয়তো প্রথম ওয়ানডেতে দলেই থাকবেন না।
কিন্তু কিম্বার্লির ডায়মন্ড ওভালে ব্যাট হাতে নেমে রঙ্গিন পোশাকে নিজেকে চেনালেন তিনি। ৬৭ রানে ২ উইকেট হারানো দলকে একাই টেনে তুললেন তিনি। দলীয় ১৩.৬ ওভারে মাঠে নেমে ১১০ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন শেষ পর্যন্ত। কিন্তু অন্যপাশে চলে আসা যাওয়ার মিছিল। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের স্কোর বোর্ডে জমা হয় ২৭৮ রান ৭ উইকেট হারিয়ে। এটিই ওয়ানডেতে  প্রোটিয়াদের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের সর্বোচ্চ সংগ্রহ। এর আগে ২০০৭ এ বাংলাদেশ করেছিল ২৫১ রান। শুধু তাই নয়, ১৫ বছরে সীমিত ওভারের ফরমেটে তাদের বিপক্ষে প্রথম সেঞ্চুরিটিও এলো মুশফিকের ব্যাট থেকে। হয়তো এমন জবাবই দিতে চাইছিলেন নীরবে। মুশফিক ছাড়া দলের বাকি ব্যাটসম্যানরা আউট হয়েছেন সেট হয়ে। সবাই দুই অংক ছুঁয়েও কেউই পার করতে পারেননি ৩০ এর কোটা। মুশফিক ১১৬ বলে ১১ চার ও ২ ছয়ে একাই পৌঁছান তিন অংকে। এটি তার ১৭৮ ম্যাচের ক্যারিয়ারে ৫ম সেঞ্চুরি। ২ বছর আগে ঢাকায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি।
সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ছিল অনেক চ্যালেঞ্জের। দলের অভ্যন্তরীন কোন্দল, মাঠে বোলিং-ব্যাটিংয়ের বেহাল দশা সব মিলিয়ে যেন এক লেজেগোবরে অবস্থা। মাশরাফির নেতৃত্বে তাই ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় নিয়ে মাঠে নামে বাংলাদেশ। দুই টেস্টে টসে জিতে ফিল্ডিং নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠেছিল।  তাই ওয়ানডেতে টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিতে দেরি করেননি অধিনায়ক মাশরাফি। ব্যাট হাতে মাঠে নেমেছিলেন নয়া দুই ওপেনার। ইমরুল কায়েসের সঙ্গে দুই বছর পর একাদশে জায়গা পেয়ে লিটন কুমার দাস শুরু করলেন বেশ সতর্কতার সঙ্গে। গড়ে তোলেন ৪৩ রানের জুটি। শুরুটা যখন স্বস্তি দিচ্ছিল তখনই লিটন আউট মাত্র ২১ রানে। এক পাশে দারুণ খেলছিলেন লিটন দাস, আরেক পাশে ধুঁকছিলেন ইমরুল কায়েস। অথচ রাবাদার পিচ করে বেরিয়ে যাওয়া সময় ছোবল দিলো লিটনের ব্যাটে। স্লিপে দারুণ ক্যাচ নিলেন ডু প্লেসি। ক্যাচ সঠিক ছিল কিনা বুঝতে তৃতীয় আম্পায়ারের সাহায্য নিলেন আম্পায়াররা। মাঠের বড় পর্দায় শুরুতে ‘নট আউট’ দেখানোয় সংশয় জাগলেও পরে দেখানো হলো আউট।
লিটনের বিদায়ের পর আশার আলো হয়ে মাঠে নামেন সাকিব আল হাসান। ইমরুল কায়েসকে সঙ্গে নিয়ে নতুন ভাবে লড়াই শুরু করেন। ২৪ রানের জুটি গড়ার পরেই ফের পতন। কিন্তু শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকা ইমরুল হাল ছাড়লেন ৩১ রানে। লেগ স্টাম্পে থাকা শর্ট বল ফাইন লেগে সিঙ্গেল নিতে চেয়েছিলেন ইমরুল। বল ব্যাটে আলতো ছুঁয়ে চলে গেল কিপারের হাতে। এর আগে একবার জীবনও পেয়েছিলেন তিনি। ইমরান তাহিরের প্রথম ওভারেই আউট হতে হতে বেঁচেছিলেন তিনি ১৬ রানের সময়।
অন্যপ্রান্তে তখনো আশার আলো সাকিব। টেস্টে বিশ্রাম নিয়ে দারুণ প্রস্তুত হয়ে মাঠে নেমেছেন ওয়ানডে দলের সহ অধিনায়ক। সামনে বিরল রেকর্ড গড়ার সুযোগ। তার সঙ্গী তখন দেশের আরেক নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীম। ১৭ রান করে রেকর্ডটাও ছুঁয়ে ফেললেন। কিন্তু দলকে তার কীর্তির আলোয় আলোকিত করতে পারলেন না। মুশফিকের সঙ্গে ৫৯ রানের জুটি গড়ে দলকে এগিয়ে নিয়েছিলেন অনেকটা। সেই জুটিতে তার অবদান ২০ রান।  রেকর্ডের পর আরো ১৭ রান করে নিজের দায়িত্ব শেষ করেন সাকিব। মনে হলো যেন রেকর্ডটা করতেই মাঠে নেমেছিলেন তিনি। ইমরান তাহিরের গুগলি না বুঝেই হয়তো ড্রাইভ করেছিলেন সাকিব। ব্যাটের কানায় লেগে বল স্লিপে হাশিম আমলার হাতে।  তখন ২৬ ওভারে বাংলাদেশ ৩ উইকেটে ১২৬।
বাকি সময়টাতো মুশফিকময়। অবশ্য মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের অবদানও ছিল কিছুটা। চতুর্থ উইকেটে ৬৯ রানের সর্বোচ্চ জুটি দুই ভায়রার। কিন্তু মাহমুদুল্লাহ সেট হয়ে বিদায় নিলেন ২৬ রানে। এরপর সাব্বির রহমানকে নিয়ে আবারো ৪২ রানের জুটি। এরই মধ্যে দল পেরিয়ে যায় ২০০ রানের সংগ্রহ। সাব্বিরও সাকিব, ইমরুলদের পথ অনুসরণ করলেন। উইকেট বিসর্জন ১৯ রানে দিলেন। এরপর নাসির হোসেন ১১ ও অভিষিক্ত সাইফউদ্দিন ১৬ রানের অবদান রাখলেন মুশফিকের সঙ্গে। ব্যাটিং উইকেটে নিজেকে প্রমাণ করতে পারলেন শুধু মুশফিক। বাকিরা উইকেট বিলিয়ে দেয়াতে ৩০০ রানও হলো না। তাই ভালো ব্যাটিংয়ের পরও আক্ষেপটা রয়েই যায়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

অভিযোগের পাহাড়, অসহায় ইউজিসি

প্রত্যাবাসন শুরু হচ্ছে না আজ

মৈত্রী এক্সপ্রেসে শ্লীলতাহানির শিকার বাংলাদেশি নারী

‘২০৬ নম্বর কক্ষে আছি, আমরা আত্মহত্যা করছি’

ট্রেনে কাটা পড়ে দুই পা হারালেন ঢাবি ছাত্র

পুলে যাচ্ছে সেই সব বিলাসবহুল গাড়ি

নীলক্ষেত মোড়ে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ, এমপির আশ্বাসে স্থগিত

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সফর সফল করতে নির্দেশনা

নেতাকর্মীরা জেলে থাকলে নির্বাচন হবে না: ফখরুল

তিন দিনের ধর্মঘটে এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা

ইডিয়ট বললেন মারডক

সহায়ক সরকারের রূপরেখা প্রণয়নের কাজ শেষ পর্যায়ে

২৩শে ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন

বাসায় ফিরছেন মেয়র আইভী

‘আমাকে ইমোশনাল ব্ল্যাকমেইল করে’

জনগণ রাস্তায় নেমে ভোটাধিকার আদায় করবে: মোশাররফ