প্রেমে সাড়া না দেয়ায় কলেজছাত্রীকে ছুরিকাঘাত

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল থেকে | ১৬ অক্টোবর ২০১৭, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৩৬
বরিশাল বিএম কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ছাত্রী শান্তাকে ছুরিকাঘাত করার ঘটনায় দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উজিরপুর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো. হেলাল উদ্দিন। আটককৃতরা হলো- সৌরভ ও মিরাজ। শনিবার রাতে বিএম কলেজে দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে উজিরপুরের ধামুরা বাজারের রত্নপুর ভ্যান স্ট্যান্ডে বখাটেরা ক্ষুর দিয়ে শান্তার মুখমণ্ডল জখম করে ছিল। তিনি বর্তমানে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আহত ছাত্রী শান্তার মা নিলুফা বেগম ও চাচা মো. লিটন জানান, ওই এলাকার বখাটে আলাল বিভিন্ন সময়ে শান্তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিতো।
তাকে বোঝানো হলেও সে কারো কথা শুনতো না। তার প্রেম প্রস্তাবে সারা না দেয়ায় শনিবার রাতে ধামুরা বাজারে ভ্যানস্ট্যান্ডে শান্তাকে কুপিয়ে আহত করে। তারা এই ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেন। উজিরপুর থানার এসআই জসিম উদ্দিন বলেন, শান্তা আগৈলঝাড়া উপজেলার সিমান্তবর্তী রত্নপুর গ্রামের মৃত মোস্তফা সরদারের মেয়ে। ৩ বছর আগে থেকে পার্শ্ববর্তী উজিরপুর উপজেলার কাংশি গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে আলালের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক হয়। মাধ্যমিকের গণ্ডি না পেরোনো আলাল ঢাকায় একটি চাইনিজ রেস্তরাঁয় বেয়ারার কাজ করে শান্তার পরিবারকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করতো। শান্তা ইতিপূর্বে ৩বার আলালের বাড়ি গিয়েছিল। তাদের মধ্যে পারিবারিকভাবে বিয়ের কথাও হয়েছিল। কিন্তু শান্তা বিএম কলেজে অনার্সে ভর্তি হওয়ার পরই তাদের সম্পর্কে ছেদ পড়ে। ইদানীং আলালের সন্দেহ হচ্ছিলো শান্তার সঙ্গে অন্য কারোর সম্পর্ক আছে। এই ক্ষোভ-হতাশা থেকে সে ওই ছাত্রীকে ছুরিকাঘাত করতে পারে। শেরেবাংলা মেডিকেলের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. সুব্রত পাল জানান, তার মুখমণ্ডলে সেলাই দিয়ে তাকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। তার অবস্থা স্থিতিশীল। তিনি বর্তমানে মহিলা সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছেন। উজিরপুর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো. হেলাল উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় আহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হবে বলে আমাদের নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে এর আগেই উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গতকাল সকালে সৌরভ ও মিরাজ নামের দুই জনকে আটক করা হয়েছে। অবশ্য আহত শান্তা আটক দুই জনের নাম পূর্বেই বলেছিল। তাই আটকদের ছবি তুলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শান্তার কাছে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া মূল অভিযুক্তকে আটকের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ঢাকা ওয়াসাকে ১৩টি খাল উদ্ধারের নির্দেশ

এসডিজি অর্জন করতে হলে প্রতিবছর ৩০ শতাংশ নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ বাড়াতে হবে

‘অনুপ্রবেশকারীদের ৫০০০ পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না’

‘ক্ষমতা থাকলে সরকারকে টেনে-হিচড়ে নামান’

আগামীকাল আদালতে যাবেন খালেদা জিয়া

‘সেনা মোতায়েনের প্রয়োজন নেই’

‘তদন্তের স্বার্থেই তনুর পরিবারকে ডাকা হয়েছে’

জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন ‘কুমির মানুষ’

আশ্রয়শিবিরে সংক্রমণযুক্ত পানির বিষয়ে ইউনিসেফের সতর্কতা

চীন, উত্তর কোরিয়ার ১৩ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ

রোহিঙ্গা সঙ্কট: উচ্চ আশা নিয়ে বাংলাদেশ-মিয়ানমার বৈঠক শুরু

ঘোড়ামারা আজিজসহ ছয় জনের মৃত্যুদণ্ড

নিবিড় পর্যবেক্ষণে মহিউদ্দিন চৌধুরী

হাফ ডজন গোলে দ্বিতীয় রাউন্ডে রিয়াল মাদ্রিদ

আফ্রিকার স্বৈরাচারদের মেরুদণ্ডে শিহরণ

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে চীনের প্রস্তাব, যা বললেন মুখপাত্র...