ইউনেস্কো থেকে বের হয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েল

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৩ অক্টোবর ২০১৭, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:২৯
জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো থেকে বের হয়ে যাবার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েল। বৃহ¯পতিবার সংস্থাটির বিরুদ্ধে ইসরায়েল-বিরোধী আচরণের অভিযোগ তুলে প্রথমে এমন ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্র ঘোষণা দেয়ার কয়েক ঘন্টা পর ইসরায়েলও এক বিবৃতিতে সংস্থাটি থেকে বিদায় নেবে বলে জানায়। এ খবর দিয়েছে আলজাজিরা। খবরে বলা হয়, ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহুর কার্যালয় থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের ইউনেস্কো থেকে বের হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তকে ‘সাহসী ও নীতিগত’ বলে আখ্যায়িত করা হয়। পাশাপাশি ইউনেস্কো ‘হাস্যকর এক থিয়েটারে’ পরিণত হচ্ছে বলেও অভিযোগ তোলা হয়।
বিবৃতিতে বলা হয়, ‘যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি ইউনেস্কো থেকে ইসরায়েলের বিদায়ের জন্যে প্রধানমন্ত্রী পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে প্রস্তুতি গ্রহণ করতে বলেছেন।’ এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হেদার নর্ট বলেন, প্যারিস-ভিত্তিক সংস্থাটিতে তাদের প্রতিনিধিকে প্রত্যাহার করে যুক্তরাষ্ট্র সেখানে একটি ‘পর্যবেক্ষক মিশন’ পাঠাবে।      
এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তের বিষয়ে ইউনেস্কো প্রধান ইরিনা বোকোভা বলেন, ‘তিনি নিশ্চিত হয়েছেন যে, ইউনেস্কো যুক্তরাষ্ট্রের কাছে কখনোই খুব গুরুত্বপূর্ণ কোন সংস্থা ছিলোনা। ঠিক তেমনি, যুক্তরাষ্ট্রও সংস্থাটির কাছে কখনও খুব গুরুত্বপূর্ণ(কোন সদস্য)ছিলোনা। তবে তিনি এটাও বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাহার সংস্থাটির জোটবদ্ধতার জন্যে ক্ষতিকর। বোকোভা বলেন, ‘সংঘাত যখন বিশ্বজুড়ে সমাজ ধ্বংস করে চলেছে তখন শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে ও সংস্কৃতিকে আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে শিক্ষার প্রচারণা চালানো জাতিসংঘের এই সংস্থাটি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাহার অত্যন্ত দুঃখজনক।’ ফিলিস্তিনের প্যালেস্টিনিয়ান ন্যাশনাল ইনিশিয়েটিভ পার্টির সাধারণ স¤পাদক মুস্তফা বার্ঘৌতি যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপকে ইসরায়েলের প্রতি ‘পরিষ্কার পক্ষপাত’ বলে আখ্যা দিয়েছে। তিনি বলেন, ‘এই আচরণ লজ্জাজনক ও উন্নয়ন-বিরোধী। তারা ফিলিস্তিনকে এক সময় জাতিসংঘের প্রতিটি সংস্থার সদস্য হিসেবে দেখবে। তখন কি যুক্তরাষ্ট্র ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন বা ওয়ার্ল্ড ইন্টেল্যাকচুয়াল প্রপার্টি অর্গানাইজেশনের মতন সংস্থা থেকেও বের হয়ে যাবে? এতে করে তারা নিজেদেরই ক্ষতি করছে।’ উল্লেখ্য, ফিলিস্তিন ২০১১ সালে ইউনেস্কোর পূর্ণ সদস্যপদ লাভ করে। তখন ইউনেস্কোর এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানায় ইসরায়েল। ওই সময় যুক্তরাষ্ট্র ফিলিস্তিনকে পূর্ণ সদস্যপদ দেয়ার প্রতিবাদে সংস্থাটি থেকে তাদের বরাদ্ধ বাতিল করে দেয়। শুধু ওই সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রেই নয়। ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার উদ্দেশ্য জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার যেকোন পদক্ষেপেরই বিরোধিতা করে থাকে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, সংস্থাগুলোকে মধ্যপ্রাচ্য শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরিত না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। এর আগে ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া ঠিক নয়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

‘ঢাকার জলাবদ্ধতা কী দেখেছেন, কলকাতা যান’

ফেনীর একরাম হত্যা মামলা: বিএনপি নেতা মিনারের জামিন

সুচির পদত্যাগ করা উচিত

‘প্রশ্ন ফাঁসের মূল হোতারা সরকারদলীয়’

রামের প্রার্থনা করা নারীরা অমুসলিম হয়ে গেছেন

রাজধানীতে ৫ ছিনতাইকারী আটক

টিপু জয়ন্তী নিয়ে কর্নাটকে কংগ্রেস-বিজেপি মুখোমুখি অবস্থানে

পর্যবেক্ষকদের সতর্ক করলেন সিইসি

যুবলীগ নেতাকে গুলি করায় আ’লীগ নেতা আটক, সড়কে ব্যারিকেড

ব্রায়ান ঝড়ে বৃটেনে জীবনযাত্রা বিঘ্নিত

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ১১জনকে জেরার আবেদন নিষ্পত্তি

সন্ত্রাসের সঙ্গে ইসলামপন্থিদের নিয়ে টুইট করে বৃটেনে কড়া সমালোচিত ট্রাম্প

সমকামীদের অধিকার নিশ্চিত করতে চান বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়সী প্রধানমন্ত্রী

বিমানবন্দরে নিরাপত্তা জোরদার করছে অস্ট্রেলিয়া

গ্রেপ্তার হতে পারেন স্বাধীনতা আন্দোলনের আঞ্চলিক প্রেসিডেন্ট