রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতীয় ঐক্য গড়ার আহ্বান সুজনের

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৩ অক্টোবর ২০১৭, শুক্রবার
রোহিঙ্গা সংকটের সমাধানের জন্য জাতীয় ঐক্য গড়ার আহ্বান জানিয়েছে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে সুজন আয়োজিত ‘রোহিঙ্গা সমস্যা: বর্তমান পরিস্থিতি ও করণীয়’ শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে সুজন নেতৃবৃন্দ এই আহ্বান জানান। গোলটেবিল বৈঠকে লিখিত বক্তব্যে সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আলী ইমাম মজুমদার বলেন, রোহিঙ্গাদের পক্ষে যে বিশ্ব জনমত তাকে কাজে লাগাতে আমাদের সক্রিয় ও বিরামহীন প্রচেষ্টা নিতে হবে। যারা মিয়ানমারকে এ নিধনযজ্ঞে সক্রিয় বা নীরবে সমর্থন করছে আমাদের প্রতিও তাদের দায়বদ্ধতা আছে। এটা কূটনৈতিক চ্যানেলে তুলে ধরতে হবে বারবার। মিয়ানমার সরকারই গঠন করেছিল কফি আনান কমিশন।
সে কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নে মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে হবে। সুজন সভাপতি ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এম হাফিজ উদ্দিন খান বলেন, রোহিঙ্গা সংকট জাতীয় জীবনে এক বড় বিপর্যয় হিসেবে দেখা দিয়েছে। মিয়ানমার আমাদের প্রতিবেশী রাষ্ট্র। কিন্তু এই দেশটির সঙ্গে আমাদের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আজও তৈরি হলো না কেন তা আমাদের বোধগম্য নয়। সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, বাংলাদেশের পক্ষে প্রায় দশ লক্ষ শরণার্থীর চাপ সহ্য করা দুরূহ হবে। এ ছাড়াও রোহিঙ্গা ইস্যু ভয়াবহ নিরাপত্তাজনিত সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে। এ বিরাট উদ্বাস্তু জনগোষ্ঠীকে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় আবদ্ধ করে রাখা প্রায় অসম্ভব হয়ে উঠতে পারে। ফলে তারা জীবন-জীবিকা নির্বাহের প্রচেষ্টায় স্থানীয়দের সঙ্গে প্রতিযোগিতা, এমনকি দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়তে পারে। উপরন্তু বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের কেউ কেউ নানা অপরাধ কর্মকাণ্ডে যুক্ত হতে পারে। সবচেয়ে শঙ্কার বিষয় হলো, চরমভাবে নিগৃহীত ও ক্ষুব্ধ এ জনগোষ্ঠীকে স্বার্থান্বেষী মহল উগ্রবাদের পথে প্ররোচিত করতে পারে, যা শুধু বাংলাদেশ নয় পুরো রিজিয়নকেই অস্থিতিশীল করে তুলতে পারে। রাজনীতিবিদ এসএম আকরাম বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে আমরা কূটনৈতিকভাবে চরম ব্যর্থ হয়েছি। আমরা যাদের বন্ধু বলে মনে করি, বন্ধু বলে প্রচার করি, এরকম পরিস্থিতিতে তারাই পাশে দাঁড়ায়নি। কলামনিস্ট ও সাংবাদিক সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, রোহিঙ্গারা দীর্ঘদিন ধরে বঞ্চিত, নিগৃহীত। এ সংকটের আশু সমাধান প্রয়োজন। ’৭১ এর পরে এ ধরনের জাতীয় দুর্যোগ আর আসেনি। এ সংকটের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক প্রভাব রয়েছে। বৈঠকে সুজন নির্বাহী সদস্য ড. হামিদা হোসেন, আবুল হাসান চৌধুরী, সাবেক রাষ্ট্রদূত মুন্সী ফয়েজ আহমেদ, এম আনোয়ারুল হক, ড. সি আর আবরার, রেহেনা সিদ্দীকী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘এখন ভালো কথা ও সুরের চেয়ে মিউজিকটাকেই বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়’

ডেমরায় অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আটজন

‘অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন প্রত্যাশা করে ভারত’

আরো একটি লজ্জা

শাসন যেখানে বাছবিচারহীন

উচ্চ ব্যয়ের ঢাকায় নিম্নমানের জীবন

সৌদি আরবে অনাহারে-অর্ধাহারে তাদের দিন

জলাবদ্ধতার কী দেখেছেন কলকাতা-মুম্বই যান

চট্টগ্রামে যুবলীগ নেতার পায়ে আওয়ামী লীগ নেতার গুলি

গ্রাহক টানতে পারছে না ‘দোয়েল’

সিলেটে যে ছবিটি এখন ভাইরাল

পর্যবেক্ষকদের সতর্ক করলেন সিইসি

লড়াই হবে ত্রিমুখী

পাহাড়ে হঠাৎ বেপরোয়া সশস্ত্র সংগঠনগুলো

পাঁচ বিভাগীয় শহরে বিটিভি’র স্টেশন হচ্ছে

প্রধানমন্ত্রীকে লেখা এক প্রধান শিক্ষকের খোলা চিঠি