ব্লু হোয়েলে আসক্ত চবি শিক্ষার্থীকে পুলিশ হেফাজতে কাউন্সেলিং

শেষের পাতা

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ১২ অক্টোবর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:০১
অনলাইনে ভয়ঙ্কর সুইসাইড গেম ব্লু হোয়েলে আসক্ত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে আত্মহত্যার পথ থেকে বাঁচালো পুলিশ। চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উত্তর) মসিউদ্দৌলা রেজা গতকাল বুধবার সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, ভয়ঙ্কর অনলাইন ব্লু হোয়েল গেম খেলে প্রায় আত্মহত্যার পথে চলে গিয়েছিল চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের  ইতিহাস বিভাগের ওই শিক্ষার্থী। খবর পেয়ে গত মঙ্গলবার তাকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়। ২৪ ঘণ্টারও বেশি সময় কাউন্সেলিংয়ের পর ওই ছাত্র স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসে।
মসিউদ্দৌলা রেজা বলেন, গত ৫ই অক্টোবর রাত থেকে ওই শিক্ষার্থী অনলাইনে ব্লু হোয়েল গেম খেলতে শুরু করে। এতে পর পর কয়েকটি ধাপ অতিক্রমের পর সে আত্মহত্যার অপেক্ষায় ছিল।

শিক্ষার্থীর বিবরণ মতে, গত ৫ই অক্টোবর তার ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে একটি লিংক আসে। লিংকটি ক্লিক করলে গেমটি মোবাইল ফোনে ডাউনলোড হয়ে যায়। এরপর গেমটি খেলবে কি না অ্যাডমিন থেকে সম্মতি জানতে চাওয়া হয়। সম্মতি দিলে প্রথম ধাপে গভীর রাতে পুরো ক্যাম্পাস হাঁটার চ্যালেঞ্জ দেয়া হয়।
সেটিতে উত্তীর্ণ হলে দ্বিতীয় ধাপে হলের ছাদের রেলিংয়ে হাঁটার চ্যালেঞ্জ দেয়া হয়। এরপর তৃতীয় ধাপে ব্লেড দিয়ে হাত কেটে তিমি আঁকেন তিনি। চতুর্থ ধাপে সারাদিন চুপচাপ বসে থাকেন তিনি। এসব চ্যালেঞ্জ পার করেন ওই শিক্ষার্থী।
কিন্তু হঠাৎ বিষয়টি আঁচ করতে পেরে তার হলের এক রুমমেট ফেসবুকে পুলিশের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। বিষয়টি নজরে এলে মঙ্গলবার দুপুরে আসক্ত ছাত্রকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়। হয়তো আর কয়েকটি ধাপ পার হলেই ওই শিক্ষার্থী আত্মহত্যার পথে পা বাড়াতো বলে জানান মসিউদ্দৌলা রেজা।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উত্তর) মসিউদ্দৌলা রেজা বলেন, কাউন্সিলিংয়ের পর ওই শিক্ষার্থী স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে নিজের ভুল বুঝতে পেরেছে। ফলে তাকে মঙ্গলবার রাতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মসিউদ্দৌলা রেজা আরো বলেন, ব্লু হোয়েলে আসক্ত শিক্ষার্থীকে আমরা ৬ মাস পর্যবেক্ষণে রাখবো। তাকে কোনো ধরনের স্মার্টফোন ব্যবহার করতে দেয়া হবে না। এই শর্তে তাকে প্রক্টরের কাছে দেয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে কেউ এই গেম খেললে দণ্ডবিধির ৩০৯ ধারায় তাকে আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Raju

২০১৭-১০-১২ ০২:৩৮:৪৭

এরকম পাগল ছাগলকে মরতে দেওয়াই ভাল।

Anarul

২০১৭-১০-১১ ১৮:১৪:৫১

It's right

আপনার মতামত দিন

‘এখন ভালো কথা ও সুরের চেয়ে মিউজিকটাকেই বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়’

ডেমরায় অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আটজন

‘অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন প্রত্যাশা করে ভারত’

আরো একটি লজ্জা

শাসন যেখানে বাছবিচারহীন

উচ্চ ব্যয়ের ঢাকায় নিম্নমানের জীবন

সৌদি আরবে অনাহারে-অর্ধাহারে তাদের দিন

জলাবদ্ধতার কী দেখেছেন কলকাতা-মুম্বই যান

চট্টগ্রামে যুবলীগ নেতার পায়ে আওয়ামী লীগ নেতার গুলি

গ্রাহক টানতে পারছে না ‘দোয়েল’

সিলেটে যে ছবিটি এখন ভাইরাল

পর্যবেক্ষকদের সতর্ক করলেন সিইসি

লড়াই হবে ত্রিমুখী

পাহাড়ে হঠাৎ বেপরোয়া সশস্ত্র সংগঠনগুলো

পাঁচ বিভাগীয় শহরে বিটিভি’র স্টেশন হচ্ছে

প্রধানমন্ত্রীকে লেখা এক প্রধান শিক্ষকের খোলা চিঠি