উলিপুরে পুলিশ অবরুদ্ধ ৩ ঘণ্টা পর উদ্ধার

বাংলারজমিন

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি | ১২ অক্টোবর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
পথচারীকে থাপ্পড় মারায় পুলিশের এক এএসআইকে অবরুদ্ধ করে রাখে জনতা। পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে ৩ ঘণ্টা পর তাকে উদ্ধার করে। উলিপুরে গত মঙ্গলবার সন্ধা ৭ টার দিকে হাতিয়া ইউনিয়নের অনন্তপুর বাজারে এ ঘটনা ঘটে। ঐদিন সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের হাতিয়া ভবেশ বগাপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৫০) অনন্তপুর বাজারে পাটখড়ি কিনে গলি দিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় উলিপুর থানার এএসআই আসাদ মোটরসাইকেলে চড়ে বাজারের গলি দিয়ে প্রবেশ করার সময় পাটখড়ি তার শরীর স্পর্শ করে। এতেই তিনি ক্ষীপ্ত হয়ে ওই পথচারীকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে চড়-থাপ্পড় মারেন।
এ সময় পথচারী আকুতি মিনতি করে মাফ চাইলেও ক্ষিপ্ত ওই এএসআই’র মন গলেনি। তাকে হ্যান্ডকাপ পরিয়ে টেনে-হিঁচড়ে বাজারের শাহীন হোটেলে নিয়ে যায়। এ খবর বাজারে ছড়িয়ে পড়লে সহস্রাধিক মানুষ ওই এএসআইকে গণধোলাই দেয় এবং হোটেলে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে উলিপুর থানার এসআই রাজুর নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধারের চেষ্টা চালান। এতেও কাজ না হলে রাত ৯ টার দিকে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেনের শরণাপন্ন হন। পরে পুলিশের এসআই রাজু তার সহকর্মীর কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চেয়ে ৩ ঘণ্টা পর তাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন। স্থানীয় জনতা অভিযোগ করে বলেন, বর্তমানে বন্যাকবলিত এই ইউনিয়নটিতে পুলিশ মাদক উদ্ধারের নামে যত্রতত্র নিরীহ মানুষজনকে আটক করে নানাভাবে হয়রানি করছে। এতে করে স্থানীয় জনতা পুলিশের বেআইনি তৎপরতায় বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। অভিযুক্ত এএসআই আসাদ জানান, সারাদিন দায়িত্ব পালন করে মাথা ঠিক ছিল না। উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ এসকে আবদুুল্লাহ আল সাঈদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ভুল বোঝাবুঝির কারণে সৃষ্ট ঘটনা স্থানীয় চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপে নিরসন হয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বৃটিশ নারী এমপিদের যৌন নির্যাতনের কাহিনী

প্রাণ-আরএফএল’র মহিলা শ্রমিককে গণধর্ষণ

মাও সেতুংয়ের পর সবচেয়ে শক্তিশালী প্রেসিডেন্ট সি জিনপিং

সাবেকদের সঙ্গে ইসির সংলাপ শুরু

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নতুন অবরোধ আরোপের কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র

শীর্ষ সন্ত্রাসী সাদ্দাম হোসেন গ্রেপ্তার

আশ্রয়শিবিরে রোহিঙ্গা নারীদের যৌন ব্যবসা, খদ্দের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া থেকে স্থানীয় রাজনীতিক

এম কে আনোয়ারের দাফন আগামীকাল

‘আন্দোলনের দাবিগুলো নিয়ে ক্যাবিনেটে সুপারিশ করা হয়েছে’

জঙ্গি অভিযান শেষ, আটক হয়নি কেউই

খালেদা জিয়া কক্সবাজার যাচ্ছেন রোববার

রোনালদোই সেরাা

সেরা একাদশে যারা

রোহিঙ্গা ইস্যু- ফের  আসছেন চীনের বিশেষ দূত

রোহিঙ্গাদের জন্য ৩০০০ কোটি টাকার প্রতিশ্রুতি

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমার ও বাংলাদেশকে একই সাথে খুশি করা ভারতের জন্য কি কূটনীতির পরীক্ষা?