বিএফডিসিতে নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ১২ অক্টোবর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএফডিসি)-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে তপন কুমার ঘোষকে ২০১৫ সালের মে মাসে নিয়োগ দেয়া হয়। এর আগে এই সংস্থার পরিচালক (অর্থ ও প্রশাসন) বিভাগে ছিলেন তিনি। তপন কুমার ঘোষ গত দুই বছরের বেশি সময় বিএফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এবার মো. আমির হোসেন নামে নতুন একজনকে ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। বিদায় নেয়া ব্যবস্থাপনা পরিচালক তপন কুমার ঘোষ মানবজমিনকে বলেন, মঙ্গলবার পর্যন্ত আমি বিএফডিসিতে অফিস করেছি। এখানে গত দু’বছরের বেশি সময় ধরে কাজ করে বেশ ভালোই লেগেছে।
মেয়াদ শেষ হওয়ার কারণে বর্তমানে আমাকে জাতীয় সংসদে দেয়া হয়েছে। এফডিসির যাবতীয় সমস্যা দূরীকরণ ও সংস্থাটিকে সমৃদ্ধ করতে বেশ কিছু প্রকল্প আমি জমা দিয়ে এসেছি। এসব প্রকল্পের বাস্তবায়ন হলে চলচ্চিত্রের অনেক সমস্যার সমাধান হবে। আর নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আমির হোসেন আমার এক ব্যাচ (১৯৮৬-বিসিএস প্রশাসন ক্যাডার) জুনিয়র। ওনার জন্য শুভ কামনা রইলো। গতকাল দুপুর থেকে বিএফডিসির নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক আমির হোসেন। তিনি বলেন, সরকার প্রতিনিয়ত চলচ্চিত্রের উন্নয়নের স্বার্থে কাজ করছে। অনেক প্রকল্প আমাদের হাতে রয়েছে। শিল্পী, পরিচালক, প্রযোজক, কলাকুশলী- সকলের সহযোগিতায় চলচ্চিত্র শিল্পকে আমাদের এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সোনাজয়ী শুটার হায়দার আলী আর নেই

নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত মুক্তামনি

খাল থেকে উদ্ধার হলো হৃদয়ের লাশ

রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানকে কঠিন পর্যায়ে নিয়ে গেছে সরকার: খসরু

সঙ্কট সমাধানে প্রয়োজন পরিবর্তন: দুদু

চোখের চিকিৎসা করাতে লন্ডনে গেলেন প্রেসিডেন্ট

সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ আওয়ামী লীগের সদস্য হতে পারবে না

টানা বৃষ্টিতে ভোগান্তিতে রাজধানীবাসী

বৌদ্ধ ভিক্ষু সেজে কয়েক শত কিশোরীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক

৫০ বছরের মধ্যে জাপানে কানাডার প্রথম সাবমেরিন

ছিচকে চোর থেকে মাদক সম্রাট!

বোতলে ভরা চিঠি সমুদ্র ফিরিয়ে দিল ২৯ বছর পর!

কার সমালোচনা করলেন বুশ, ওবামা!

জুমের মাধ্যমে পেমেন্ট নিতে পারবেনা বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সাররা

অস্ট্রেলিয়ার গহীন মরুতে ১৮শতাব্দীর বাংলা পুঁথি

হারভে উইন্সটেন যেভাবে হোটেলকক্ষে অভিনেত্রীকে যৌন নির্যাতন করেন