মিয়ানমারকেই রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতে হবে

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:১০
জাতিসংঘ শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর’র প্রধান ফিলিপো গ্র্যান্ডি বলেছেন, রোহিঙ্গা সমস্যার মূল কারণ নাগরিকত্ব। এই সমস্যার শুরু মিয়ানমারে, সমাধানও তাদেরই করতে হবে। রোহিঙ্গারা যেন নিরাপদে তাদের দেশে ফেরত যেতে পারে, সে ব্যবস্থাও মিয়ানমারকেই করতে হবে। গতকাল বিকালে গুলশানের একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় ফিলিপো গ্র্যান্ডি আরো বলেন, জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা রাখাইনে কাজ করছে, কিন্তু নিরাপত্তার অভাবে তাদের কার্যক্রম খুবই সীমিত। অন্যান্য মানবিক সাহায্য দাতা সংস্থাগুলো যাতে সেখানে কাজ শুরু করতে পারে, তার ব্যবস্থা করা এখন জরুরি।
রাখাইনে রোহিঙ্গাদের জন্য নিরাপদ অঞ্চল গড়ে তোলার বিষয়ে গ্র্যান্ডি বলেন, এই নিরাপদ অঞ্চলে কে সুরক্ষা দেবে, সেটি বিবেচনার বিষয়। মিয়ানমারের দায়িত্ব হচ্ছে, তার নাগরিকদের সুরক্ষা দেয়া। তারা না দিলে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে যদি এই সুরক্ষা দিতে হয়, তাহলে সেটি হবে একটি দীর্ঘ প্রক্রিয়া। কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থীদের অবস্থা বর্ণনা করতে গিয়ে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত চার লাখ ৩৬ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে এসেছে। আমি সেখানে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলেছি। তাদের ওপরে শারীরিক ও যৌন হয়রানিসহ বিভিন্ন ধরনের নির্যাতন চালানো হয়েছে। সেখানে রোহিঙ্গাদের থাকার জায়গা, পানি, স্যানিটেশন ও খাদ্যের প্রয়োজন। এদিকে রোহিঙ্গাদের নিবন্ধনের বিষয়ে ইউএনএইচসিআর কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে বলে জানান তিনি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বৃটিশ নারী এমপিদের যৌন নির্যাতনের কাহিনী

প্রাণ-আরএফএল’র মহিলা শ্রমিককে গণধর্ষণ

মাও সেতুংয়ের পর সবচেয়ে শক্তিশালী প্রেসিডেন্ট সি জিনপিং

সাবেকদের সঙ্গে ইসির সংলাপ শুরু

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নতুন অবরোধ আরোপের কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র

শীর্ষ সন্ত্রাসী সাদ্দাম হোসেন গ্রেপ্তার

আশ্রয়শিবিরে রোহিঙ্গা নারীদের যৌন ব্যবসা, খদ্দের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া থেকে স্থানীয় রাজনীতিক

এম কে আনোয়ারের দাফন আগামীকাল

‘আন্দোলনের দাবিগুলো নিয়ে ক্যাবিনেটে সুপারিশ করা হয়েছে’

জঙ্গি অভিযান শেষ, আটক হয়নি কেউই

খালেদা জিয়া কক্সবাজার যাচ্ছেন রোববার

রোনালদোই সেরাা

সেরা একাদশে যারা

রোহিঙ্গা ইস্যু- ফের  আসছেন চীনের বিশেষ দূত

রোহিঙ্গাদের জন্য ৩০০০ কোটি টাকার প্রতিশ্রুতি

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমার ও বাংলাদেশকে একই সাথে খুশি করা ভারতের জন্য কি কূটনীতির পরীক্ষা?