উল্টো পথে আবার ধরা সচিবের গাড়ি

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, সোমবার, ৮:২০
উল্টো পথে গাড়ি নিয়ে এসে আবারো পুলিশের হাতে ধরা পড়লেন পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব মাফরুহা সুলতানা। এর আগের দিন রোববারও উল্টো পথে যাওয়ার অপরাধে হেয়াররোড়ে পুলিশ তার গাড়ি আটকে দিয়ে জরিমানা করেন। আজ সোমবার সন্ধ্যায় আবারো একই অপরাধে শেরাটন হোটেলের দিক থেকে উল্টো পথে এসে বাংলামটর মোড়ে পৌঁছানোর কিছুটা আগে তার গাড়ি আটকায় ট্রাফিক পুলিশ। এদিন উল্টো পথে আসা পুলিশ সুপার পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তার গাড়িও আটকানো হয়। ট্রাফিক পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মো. মোসলেহ উদ্দিন আহমেদ ও উপ-কমিশনার রিফাত রহমান শামীম এই অভিযানে নের্তৃত্ব দেন। পরে যুগ্ম কমিশনার মফিজ উদ্দিন আহম্মেদও তাদের সঙ্গে যোগ দেন।
আগের দিন রোববার সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদসহ অনেক ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাকে উল্টো পথে গাড়ি নিয়ে যাওয়ার কারণে জরিমানা করা হয়। হেয়ার রোডে ট্রাফিক পুলিশের প্রায় ২ ঘন্টা ধরে চালানো ওই অভিযানে ৫৭টি গাড়ি আটকিয়ে মামলা করা হয়। এছাড়া রেকার বিল আদায় করা হয় আরো ৭ গাড়ি থেকে। এসব গাড়ির মধ্যে ৪০টির বেশি ছিলো সরকারি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের গাড়ি। উল্টো পথে চলা শাস্তি পাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ছিল প্রতিমন্ত্রী, এমপি, সচিব, প্রকৌশলী, রাজনীতিবিদ, পুলিশ, সাংবাদিক, বিচারক ও ব্যবসায়ীদের গাড়ি। আজ বিকাল থেকে আবারো অভিযান চালানো হয়। তবে এবার অভিযান চলে শেরাটন হোটেল থেকে বাংলামটরের দিকে। এ সময় পৌনে ৬টার দিকে সচিব মাফরুহা সুলতানার গাড়ি (ঢাকা মেট্রো ঘ ১৫-৪৮৮৯) উল্টো পথে বাংলামটরের পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স ভবনের সামনে আসলে সেটি আটকান পুলিশ সদস্যরা। ড্রাইভিং লাইসেন্স ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় গাড়ির চালক বাবুল মিয়ার বিরুদ্ধে মামলার পাশাপাশি এই গাড়িকে জরিমানা করা হয়। গাড়িটি ঘুরিয়ে সোজা পথ দিয়ে আসার নির্দেশ দেয় পুলিশ। এ সময় সচিব মাফরুহা সুলতানা গাড়িতে থাকলেও সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি। রোববার হেয়ার রোডে যেসব গাড়ি আটকানো হয় তার মধ্যে এই গাড়িও ছিল। অভিযানে অংশ নেয়া কর্মকর্তারা জানান, রোববারও চালক বাবুল মিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছিলেন তারা। আগের দিন পুলিশের কাছে ধরা পড়ার পর আবার উল্টো পথে এলেন  কেন- প্রশ্ন করা হলে নিরুত্তর থাকেন এই চালক। অভিযান শেষে অতিরিক্ত কমিশনার মোসলেহ উদ্দিন আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বাংলামটরে তারা অভিযান শুরু করেন। উল্টো পথে আসায় দু’টি গাড়ি ও সাতটি মোটরসাইকেল আটকানো হয়। গাড়ি দু’টিকে জরিমানা করার পাশাপাশি একটি মটরসাইকেল ডাম্পিংয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি। রোববার ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় ট্রাফিক পুলিশের এই অভিযানে উল্টো পথে আসা মোট ৩০০টি গাড়ি আটকে মামলা দেয়া হয় বলে জানান অতিরিক্ত কমিশনার। তিনি বলেন, আমাদের এই অভিযান প্রায়ই চালানো হবে। কোন কোন জায়গা দিয়ে উল্টো পথে গাড়ি আসে, সে বিষয়ে খোঁজ নিয়ে ওই সব জায়গায় অভিযান চালানো হবে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Faisal

২০১৭-০৯-২৫ ২০:০৯:৪০

I appreciate such traffic activities, should be continue ............

Md.Monjurul Haq

২০১৭-০৯-২৫ ১০:১৭:০২

Many many thanks to police officers. They(PO) are the proud of the country.

selina

২০১৭-০৯-২৫ ০৯:১০:৫৭

Concern authority. should. initiate departmental deciplineray action .

Rubo

২০১৭-০৯-২৫ ০৭:৪১:২১

এই সচিবকে অবিলম্বেে বরখাস্ত করা হোক । তার গাড়ী বাজেয়াপ্ত এবং তার বিরুদ্ধে আ়ইন ভংগের মামলা করা হোক ।

আপনার মতামত দিন

বৃটিশ নারী এমপিদের যৌন নির্যাতনের কাহিনী

প্রাণ-আরএফএল’র মহিলা শ্রমিককে গণধর্ষণ

মাও সেতুংয়ের পর সবচেয়ে শক্তিশালী প্রেসিডেন্ট সি জিনপিং

সাবেকদের সঙ্গে ইসির সংলাপ শুরু

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নতুন অবরোধ আরোপের কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র

শীর্ষ সন্ত্রাসী সাদ্দাম হোসেন গ্রেপ্তার

আশ্রয়শিবিরে রোহিঙ্গা নারীদের যৌন ব্যবসা, খদ্দের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া থেকে স্থানীয় রাজনীতিক

এম কে আনোয়ারের দাফন আগামীকাল

‘আন্দোলনের দাবিগুলো নিয়ে ক্যাবিনেটে সুপারিশ করা হয়েছে’

জঙ্গি অভিযান শেষ, আটক হয়নি কেউই

খালেদা জিয়া কক্সবাজার যাচ্ছেন রোববার

রোনালদোই সেরাা

সেরা একাদশে যারা

রোহিঙ্গা ইস্যু- ফের  আসছেন চীনের বিশেষ দূত

রোহিঙ্গাদের জন্য ৩০০০ কোটি টাকার প্রতিশ্রুতি

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমার ও বাংলাদেশকে একই সাথে খুশি করা ভারতের জন্য কি কূটনীতির পরীক্ষা?