শাহজালালে ৬ জন ভারতীয় নাগরিকসহ ১১ জনকে আটক সিগারেট, মেমোরি কার্ড, ওষুধ জব্দ

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বুধবার
 হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৬ ভারতীয় নাগরিকসহ ১১ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ আমদানি নিষিদ্ধ বিদেশি সিগারেট, মেমোরি কার্ড ও ওষুধ জব্দ করা হয়েছে। গতকাল শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা দুটি পৃথক ফ্লাইটে করে আসা ১১ ব্যক্তিকে আটক করেন। এর মধ্যে ভারতীয় ৬ নাগরিকের কাছ থেকে ৫০ লাখ টাকার এবং অপর ৫ জনের কাছ থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকার পণ্য জব্দ করেন গোয়েন্দারা। শুল্ক গোয়েন্দা সূত্র জানায়, মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে সোমবার রাত দেড়টার দিকে এমঅএইচ০১৯৬ ফ্লাইটে করে ভারতীয় পাসপোর্টধারী ৬ নাগরিক হজরত শাহজালালে পৌঁছান। এরা হলেন- নিরমাল সিংহ (পাসপোর্ট নং-চ৩৮২৮৮০৮), পারমিন্দের জিত সিংহ (পাসপোর্ট নং-ঘ৪৮৬৪৪৬৬), মানিক আররা (পাসপোর্ট নং-ঘ২৩৯১৭৭৮), রাম কুমার গৌতম (পাসপোর্ট নং-গ৬৫৯৬৪৩১), মাঞ্জিত সিংহ (পাসপোর্ট নং-ঘ৮৪৬০০৩১), নেহা আররা আলিয়াস রাজনি খান্না (পাসপোর্ট নং-ক৬০৬৩৭১১)।
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুল্ক গোয়েন্দারা ব্যাগেজ বেল্টসহ গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করার সময় তাদেরকে বিশেষ নজরদারি বজায় রাখে। যাত্রীরা ১নং বেল্ট থেকে লাগেজ সংগ্রহ করে স্ক্যানিং ফাঁকি দিয়ে গ্রিন চ্যানেল দ্রুত অতিক্রম করার চেষ্টা করে। এ সময় গোয়েন্দারা তাদের গতিরোধ করে। পরবর্তীতে কাস্টমস হলে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে তাদের সঙ্গে থাকা ৮টি লাগেজ খুলে ১ লাখ ৭০ হাজার শলাকা আমদানি নিষিদ্ধ বিদেশি সিগারেট জব্দ করা হয়। জব্দকৃত সিগারেট ৮৫০টি মিনি কার্টনে ছিল। এসব সিগারেট কোরিয়ান ইজি লাইট ব্রান্ডের। শুল্ককরসহ আটক এসব পণ্যের মূল্য প্রায় ৫০ লাখ টাকা। এদিকে শুল্ক গোয়েন্দারা সকাল সাড়ে ১১টার দিকে শ্রীলঙ্কা থেকে ইউএল১৮৯ ফ্লাইটে করে বিমানবন্দরে আসা আরো ৫ ব্যক্তিকে আটক করে। এই যাত্রীরা হলেন- এয়ার আহমেদ (পাসপোর্ট নং- এএফ৮৫৮৩৮২৭), জহির (পাসপোর্ট নং- বিএল০৮৩৩০২৭) জাকারিয়া (পাসপোর্ট নং-বিএম০০০৬৮১৪), নাজমুল (পাসপোর্ট নং বিজে০৬৮৫০২৩) এবং মিনার (পাসপোর্ট নং- এই১৪৬৩০৫৩)। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুল্ক  গোয়েন্দারা ব্যাগেজ বেল্টসহ গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করার সময় তাদেরকেও বিশেষ নজরদারিতে রাখে। যাত্রীরা ৫ নং বেল্ট থেকে লাগেজ সংগ্রহ করে স্ক্যানিং ফাঁকি দিয়ে গ্রিন চ্যানেল দ্রুত অতিক্রম করে চলে যাওয়ার সময় তাদের গতিরোধ করা হয়। পরবর্তীতে কাস্টমস হলে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে তাদের সঙ্গে  থাকা ৫টি লাগেজ খুলে ৫০ হাজার শলাকা আমদানি নিষিদ্ধ বিদেশি সিগারেট জব্দ করা হয়। একইসঙ্গে ৩০০ পিস মেমোরি কার্ড ও ৪০০ পাতা বিদেশি ক্যাভিনটন ওষুধ আটক করা হয়। আটককৃত সিগারেট ২৫০টি মিনি কার্টনে ছিল। এসব সিগারেট কোরিয়ান ইজি লাইট ব্রান্ডের। শুল্ককরসহ আটক পণ্যের মূল্য প্রায় ২০ লাখ টাকা। ধারণা করা হচ্ছে, সিগারেটের ওপর উচ্চ শুল্ক (প্রায় ৪৫০ শতাংশ) পরিহারের জন্যই এসব সিগারেট আনা হয়েছে। আমদানি নীতি আদেশ অনুযায়ী সিগারেট প্যাকেটের গায়ে বাংলায় ধূমপানবিরোধী সতর্কীকরণ লেখা ব্যতীত বিদেশি সিগারেট, ওষুধ শিল্প প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া বিদেশি ওষুধ ও বিটিআরসির অনুমতি ছাড়া মেমোরি কার্ড আমদানি করা যায় না। শুল্ক গোয়েন্দা সূত্র জানিয়েছে, আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা হিমঘরে পাঠালেন আরো এক বিচারক

পেপ্যালের জুম সেবার উদ্বোধন

মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে দায়ী করলো যুক্তরাষ্ট্র

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি মজনু গ্রেপ্তার

ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা কাল

কুয়েতে এসি বিস্ফোরণে নিহত পাঁচজনের মরদেহ দেশে,বিকালে দাফন

আমাদের অনেক এমপি অত্যাচারী, অসৎ : অর্থমন্ত্রী

মিয়ানমার থেকে শূন্য হাতে ফিরলেন জাতিসংঘ কর্মকর্তা

‘এ নিয়ে আমার কোনো আফসোস নেই’

সোমালিয়ায় হামলায় নিহত ৩ শতাধিক, বৈশ্বিক সংহতি কোথায়?

মেসির সেঞ্চুরি, বার্সেলোনার জয়

ম্যানইউ’র জয়ের ধারা অব্যাহত

ইভিএম চায় আওয়ামী লীগ সীমানায় অনীহা

আরো একটি পরাজয়

আরো অর্থায়ন না হলে রোহিঙ্গা শিশুদের সহায়তায় বিপর্যয়

চীন-রাশিয়া পাশে আছে