দুই সন্তানকে চোখের সামনে গলা কেটে হত্যা করেছে মগরা

দেশ বিদেশ

মুফিজুর রহমান, নাইক্ষ্যংছড়ি (বান্দরবান) থেকে | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার
অপলক দৃষ্টিতে সীমান্তের ওপারে জ্বলতে থাকা একটি গ্রামের দিকে তাকিয়ে আছেন। আগুনের লেলিহান শিখা এপার থেকেও দেখা যাচ্ছিল। উপরে আকাশের মেঘের সাথে মিশে যাচ্ছিল ধোঁয়ার কুন্ডলি। ওপারের পুড়তে থাকা এলাকাটা দেখিয়ে বললেন, সেখানে তাদের বাড়ি। নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন তার স্বামী। সেখানেই মিয়ানমার সেনাবাহিনী এবং মগরা এক কোপে তার মাথা ফেলে দিয়েছিল।
প্রাণ বাঁচাতে এলাকার আরো কয়েকজনের সঙ্গে নৌকায় করে চলে আসলেন এপারে। কথাগুলো বলছিলেন মারজান বিবি, বয়স ৬৫। বৃদ্ধা মারজান বিবি যখন তখন তার কণ্ঠ কেঁপে কেঁপে উঠছিল। আর দেখা যাচ্ছিল, দু’চোখ বেয়ে নামছে অশ্রুধারা। নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুনধুম পশ্চিমকুল শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেয়া মারজান বিবি বলেন, দুটি সন্তানকেই চোখের সামনে হত্যা করেছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। গলা কেটে, ঘাড় থেকে মাথা আলাদা করেছে। বর্তমানে আশ্রয় শরণার্থী শিবিরে ছোট একটি ঝুঁপড়িতে। কিন্তু সন্তানের শোকে দু’দিন যাবত মুখে কোনো খাবারই তুলতে পারছেন না এই মা। মিয়ানমার সন্ত্রাসীদের হত্যাযজ্ঞ থেকে প্রাণ বাঁচাতে স্রোতের মতো রোহিঙ্গা ছুটে আসছে বাংলাদেশে। জাতিসংঘ বলছে, এবারের সহিংসতায় পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের সংখ্যাটা ইতিমধ্যে চার লাখ ছাড়িয়ে গেছে। নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে তারা আশ্রয় নিচ্ছে বাংলাদেশে এসে।
তবে আশ্রয় নেয়া শরণার্থী ক্যাম্পে ৯৫ ভাগ মানুষ নারী, শিশু আর বৃদ্ধ। সক্ষম পুরুষের সংখ্যা নেই বললেই চলে। তারা কোথায়? রোহিঙ্গা সমপ্রদায়ে কী যুবক-তরুণ নেই? এমনকি কিশোর বয়সী কোনো ছেলেকেও দেখতে পাচ্ছিলাম না। কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলতেই জানা গেল- মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হামলার মূল টার্গেটই হচ্ছে যুবক-তরুণরা। তাদেরকে দেখামাত্র গুলি করে। ধরে নিয়ে যায়। জবাই করে, পুড়িয়ে মেরে, কিংবা কুপিয়ে যখম করে এরপর মৃত্যু নিশ্চিত করে বর্বর মিয়ানমার সেনাবাহিনী এবং স্থানীয় বৌদ্ধরা।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বৃটিশ নারী এমপিদের যৌন নির্যাতনের কাহিনী

প্রাণ-আরএফএল’র মহিলা শ্রমিককে গণধর্ষণ

মাও সেতুংয়ের পর সবচেয়ে শক্তিশালী প্রেসিডেন্ট সি জিনপিং

সাবেকদের সঙ্গে ইসির সংলাপ শুরু

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নতুন অবরোধ আরোপের কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র

শীর্ষ সন্ত্রাসী সাদ্দাম হোসেন গ্রেপ্তার

আশ্রয়শিবিরে রোহিঙ্গা নারীদের যৌন ব্যবসা, খদ্দের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া থেকে স্থানীয় রাজনীতিক

এম কে আনোয়ারের দাফন আগামীকাল

‘আন্দোলনের দাবিগুলো নিয়ে ক্যাবিনেটে সুপারিশ করা হয়েছে’

জঙ্গি অভিযান শেষ, আটক হয়নি কেউই

খালেদা জিয়া কক্সবাজার যাচ্ছেন রোববার

রোনালদোই সেরাা

সেরা একাদশে যারা

রোহিঙ্গা ইস্যু- ফের  আসছেন চীনের বিশেষ দূত

রোহিঙ্গাদের জন্য ৩০০০ কোটি টাকার প্রতিশ্রুতি

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমার ও বাংলাদেশকে একই সাথে খুশি করা ভারতের জন্য কি কূটনীতির পরীক্ষা?