ব্যাটেই জবাব দেবেন সৌম্য

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৩৫
৮, ১৫ ও ৩৩, ৯ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাট হাতে সৌম্য সরকারের এই অবদান। এরপরও তাকে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ১৫ সদস্যের দলে রাখতে একটুও দ্বিধা করেনি নির্বাচকরা। বিশেষ করে প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে তো সৌম্যকে ছাড়া দল ভাবতেই পারেন না। যে কারণে আলোচনা সমালোচনার শেষ নেই। কেন দলে রাখা হচ্ছে সৌম্যকে? তবে একটু পেছনে ফিরে তাকালে তার জবাবটাও পরিষ্কার। অস্ট্রেলিয়ার সিরিজের আগে ৮ ইনিংসে ৪ ফিফটি। তাও দেশের বাইরে। ওয়ানডেতে তার পারফরম্যান্স দারুণ। ক্যারিয়ারের শুরুটা যেভাবে আলোতে শুরু করেছিলেন। কিন্তু কিছুদিন হলো সেই আলোতে নেই তিনি। তাই বলে দল ভরসা হারায়নি তার ওপর। সৌম্যও দলের আস্থার মান রাখতে চান। অবশ্য তার চেয়ে বেশি এখন সমালোচনারও জবাব দিতে চান। তবে সেটি ব্যাট হাতেই। গতকাল মিরপুর শেরে বাংলা মাঠের একাডেমি ভবনে জিম করতে করতেই জানালেন সেই লক্ষ্যের কথা।। তিনি বলেন, ‘এই সময়টায় ফেসবুকে কম যাওয়ার চেষ্টা করি। যেহেতু আমাদের দেশে কেউ ভালো খেললে তাকে নিয়ে অনেক আলোচনা হয়, খারাপ খেললেও কথা হবেই। এটাকে ইতিবাচকভাবে দেখি। ভালো-মন্দ যাই হোক, সবাই আমাকে নিয়েই কথা বলছে। এসব ভেবে মানসিকভাবে শক্ত থাকার চেষ্টা করি। সমালোচকদের চুপ করানোর একটাই উপায় আছে, সেটা হলো রান করা। আমি কঠোর পরিশ্রম করছি রান করার জন্য।’
দক্ষিণ আফ্রিকাতে সবার ভয় গতি আর বাউন্সকে। সৌম্য অবশ্য এতে বেশ খুশি। কারণ নিজ দেশের মতো অন ইভেন উইকেট সেখানে নেই। বাউন্স হলে তা একটি ধারাতেই থাকবে। কোনটা বেশি বা কোনটা কম হবে তাও নয়। তিনি বলেন, ‘কঠিন সিরিজ হবে। তারপরও তো খেলতেই হবে! চেষ্টা করবো বাউন্সি উইকেটে যেভাবে রান করা যায়, সেখানে ওইভাবে খেলতে। মানসিকভাবেও সেভাবে প্রস্তুত হবো। তবে কঠিনের মধ্য দিয়েই ভালো করতে পারলে সেটা বেশি মর্যাদা পাবো। নিজেকেও আত্মবিশ্বাসী মনে হবে। ওদের মাটিতে, ওদের কন্ডিশনে গিয়ে ভালো কিছু করতে পারলে আলাদা মজা থাকবে। চেষ্টা করবো ভালো কিছু করার এবং পেছনের ম্যাচগুলো ভুলে যাওয়ার।’
শেষ শ্রীলঙ্কা সফরে দুই টেস্টে করেছিলেন ৭১, ৫৩, ৬১ ও ১০। মূলত তার দেশের বাইরে এমন পারফরম্যান্সটাই দল চায়। সৌম্যও প্রস্তুত নিজেকে সেভাবে প্রস্তুত করতে। তিনি বলেন, ‘শ্রীলঙ্কাতে যেভাবে খেলেছি, এখানেও সেভাবে খেলতে চেয়েছি। কারণ শ্রীলঙ্কার উইকেট আর আমাদের উইকেট প্রায় একই রকম। এ কারণেই ওই ধরনের ব্যাটিংই করেছি। যতটুকু সময় উইকেটে ছিলাম, ব্যাটেও বল আসছিলো। কিন্তু একটা ভুলের কারণে আউট হয়ে যাচ্ছিলাম। কাজ করছি। দেখছি যে, এটা আমার ভুল নাকি ওরা বেশি ভালো বল করেছে। এই ভুলটা যাতে ওখানে (দক্ষিণ আফ্রিকায়) গিয়ে না হয়, সেই চেষ্টা করছি।’

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

খালেদ

২০১৭-০৯-১৩ ২২:১৬:৩৮

তোমার জবাব দেয়া লাগব না, তোমার পক্ষে হাতুরু আছে, জবাব দিলেও খেলবা না দিলেও খেলবা, দলে তোমার জায়গা ২০০% নিশ্চিত, তোমার নাম লেখার পরে সাকিব, তামিম, মাশরাফিদের নাম লেখা হয়.. যতদিন পারো এমনেই খেলতো থাকো. প্রতি ম্যাচে তো ০ থেকে ১০ এর মধ্যেই রান করো. ওইটাই চলুক..

আপনার মতামত দিন