‘এটা গৌরবময় এক অভিজ্ঞতা’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২৬
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের জন্য বাংলাদেশ দলের স্পিন বোলিং কোচের দায়িত্ব পান সুনীল যোশি। দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে শক্তিধর অজিদের হারিয়ে চমক দেখায় টাইগাররা। আর সিরিজ শেষে অন্য স্বীকৃতি পেলেন কোচ সুনীল যোশিও।  ভারতীয় সাবেক এ বাঁ-হাতি স্পিনারের সঙ্গে এক বছরের স্থায়ী চুক্তি করলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ২০১৮’র সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের স্পিন কোচের দায়িত্ব সামলাবেন সুনীল যোশি। টেস্ট ইতিহাসে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথমবারের মতো জয় দেখলো বাংলাদেশ। ঢাকা টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার পতন হওয়া ২০ উইকেটের ১৯টিই ভাগাভাগি করেন বাংলাদেশ দলের তিন স্পিনার সাকিব আল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম।
ম্যাচের উভয় ইনিংসে পাঁচ উইকেটের কৃতিত্ব দেখান বাঁ-হাতি স্পিনার সাকিব আল হাসান। অফস্পিনার মিরাজ ৫ অপর বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম নেন ম্যাচে চার উইকেট। অস্ট্রেলিয়ার অন্য উইকেটটি ছিল রানআউট। আর কোচ সুনীল যোশি বলেন, ‘এটা ছিল ব্যতিক্রমী এবং গৌরবময় এক অভিজ্ঞতা।’ পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে, পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশের সঙ্গে সফরে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে থাকছেন সুনীল যোশিও। সফরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে টাইগাররা। তার আগে সুনীল যোশি বলেন, বোলিংয়ের মৌলিক ও টেকনিক্যাল কিছু বিষয় নিয়ে কাজ করেছি আমি।
কিভাবে ক্রিজটাকে ব্যবহার করতে হয় এবং সঠিক ফিল্ডিং নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন কোণে বল করার পরামর্শ দিয়েছি তাদের। ফিল্ড প্লেসমেন্ট স্পিনারদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আর আমি খুশি, সাকিব ও মেহেদী দ্রুতই আমার পরামর্শ বুঝতে পেরেছে। কোচ সুনীল যোশি বলেন, মেহেদীর সিম ও রিস্ট (ক্রিকেট বলে) পজিশন দারুণ। আমি এতো কম বয়সী (১৯ বছর) কোনো খেলোয়াড়কে বোলিংয়ে এমন ভালো ড্রিফট পেতে দেখিনি। সাকিব ক্রিজের ভিন্ন ভিন্ন কোণ ও লেন্থে বোলিংয়ে দক্ষ। তার ফিল্ডিং পজিশনটাও আঁটসাঁট। যেমনটি দেখা যেতো বেদী স্যারের (বিষেণ সিং বেদী) বোলিংয়ে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে ২০ রানে জয় কুড়ায় বাংলাদেশ। ঢাকার অপর এক ভেন্যুতে মধুর স্মৃতি রয়েছে সুনীল যোশিরও। ১৭ বছর আগে বাংলাদেশের অভিষেক টেস্টে ভারতের ব্যাট-বল হাতে ম্যাচজয়ী নৈপুণ্য দেখান সুনীল যোশি। ম্যাচে ভারতের বল হাতে ৮ উইকেট শিকার ও ব্যাটে ৯২ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন তিনি। আর খেলা শেষে সুনীল যোশিরই হাতে ওঠে ম্যাচ সেরার পুরস্কার। সুনীল যোশি বলেন- হ্যাঁ, বাংলাদেশে আমার মধুর স্মৃতি রয়েছে। তবে এবারেরটি বিশেষ কিছু। এটা এলো ভিন্ন ভূমিকা নিয়ে। আর আমার ভালো লাগলো এ জন্য যে, বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা তাদের পাঠটা দ্রুতই শিখে নিতে পারছে।
শিষ্য টাইগারদের শেখার আগ্রহ দেখেও খুশি গুরু সুনীল যোশি। কোচ যোশি বলেন, তারা খুবই সন্ধানী মনস্ক। দিনের খেলা শেষে তারা তিন সেশনে তাদের নৈপুণ্যের নানা দিক নিয়ে আলোচনা করতে আসবে আমার কাছে। আমি ভারতের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে খুব কম খেলোয়াড়কেই এমন করতে দেখেছি।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

অভিযোগের পাহাড়, অসহায় ইউজিসি

প্রত্যাবাসন শুরু হচ্ছে না আজ

মৈত্রী এক্সপ্রেসে শ্লীলতাহানির শিকার বাংলাদেশি নারী

‘২০৬ নম্বর কক্ষে আছি, আমরা আত্মহত্যা করছি’

ট্রেনে কাটা পড়ে দুই পা হারালেন ঢাবি ছাত্র

পুলে যাচ্ছে সেই সব বিলাসবহুল গাড়ি

নীলক্ষেত মোড়ে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ, এমপির আশ্বাসে স্থগিত

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সফর সফল করতে নির্দেশনা

নেতাকর্মীরা জেলে থাকলে নির্বাচন হবে না: ফখরুল

তিন দিনের ধর্মঘটে এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা

ইডিয়ট বললেন মারডক

সহায়ক সরকারের রূপরেখা প্রণয়নের কাজ শেষ পর্যায়ে

২৩শে ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন

বাসায় ফিরছেন মেয়র আইভী

‘আমাকে ইমোশনাল ব্ল্যাকমেইল করে’

জনগণ রাস্তায় নেমে ভোটাধিকার আদায় করবে: মোশাররফ