নড়াইলে গোপনে বিক্রি হচ্ছে কৃষি বিভাগের সরকারি যন্ত্রপাতি

বাংলারজমিন

নড়াইল প্রতিনিধি | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
নড়াইলে কৃষি বিভাগের মেশিনারিজ গোপনে বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রাপ্ত অভিযোগে জানা গেছে, সুকান্ত রায় নামে একজন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা দীর্ঘদিন যাবত এহেন কাজটি করছেন। তার বাড়ি নড়াইল সদর উপজেলার মালিয়াট গ্রামে। তিনি গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়ায় উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন। গোপালগঞ্জ হতে বিভিন্ন ধরনের কৃষি মেশিনারিজ এনে এলাকায় বিক্রি করছেন। ৫টি স্যালো মেশিন, ২টি ধান মাড়াই মেশিন, ৪টি স্প্রে মেশিনসহ বিভিন্ন ধরনের গুরুত্বপূর্ণ কৃষিজ মেশিনারিজ এনে নিজ এলাকায় বিক্রি করেছেন।
মালিয়াট গ্রামের নসিমন চালক সাগর বাগচী ও সঞ্জীব রায় জানান, তাদের নসিমনে করে ওইসব মেশিন গোপালগঞ্জ ও কোটালীপাড়া হতে নড়াইলের মালিয়াট নিয়ে আসেন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সুকান্ত রায়। গোপালগঞ্জ জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সমীর কুমার গোস্বামীর বাড়ি সুকান্ত রায়ের বাড়ির পাশের গ্রাম নড়াইল সদর উপজেলার বেনাহাটি গ্রামে। দু’জনের সু-সম্পর্ক থাকার সুবাদে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সুকান্ত রায় তাকে ম্যানেজ করে গোপালগঞ্জ হতে মূল্যবান মেশিনারিজ এনে বিক্রি করে ব্যক্তিগতভাবে লাভবান হচ্ছেন। ওইসব মেশিনারিজের কোনো কাগজপত্র কোনো ক্রেতাকেই তিনি দিতে পারেননি। ক্রেতারা প্রায়ই তার বাড়ি যাচ্ছেন কাগজের জন্য। তিনি আজ কাল বলে ঘুরাচ্ছেন। কাগজপত্র না পেয়ে ক্রেতারা এ  ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। স্থানীয়দের অভিযোগ সুকান্ত প্রায়ই বিভিন্ন ধরনের কৃষি যন্ত্রপাতি এনে এলাকায় বিক্রি করে। এসব সরকারি পণ্য এক জেলা হতে অন্য জেলায় এনে কিভাবে বিক্রি করছেন? এমন প্রশ্নের কোনো জবাব দিতে পারেননি উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সুকান্ত রায়।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মুগাবের পদত্যাগ, জিম্বাবুয়েজুড়ে উল্লাস

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে চীনের প্রস্তাব, যা বললেন মুখপাত্র...

তিন বাহিনীকে আধুনিক করতে সবই করবে সরকার

নিজেদের কার্যালয়ে এজাহার দায়েরের ক্ষমতা চায় দুদক

জাতিসংঘের সম্পৃক্ততায় আপত্তি মিয়ানমারের

চলতি সপ্তাহেই সমঝোতার আশা সুচির

বিচারক রেফারি মাত্র

বাংলাদেশে বসবাসকারী রোহিঙ্গা নেতা নিখোঁজ

অভিশংসনের মুখে মুগাবে

মাঠ গোছাতে ব্যস্ত প্রার্থীরা

নিজাম হাজারীর লোকজন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলা করে

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের নামে লুটপাট চলছে

দুদকের মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন মেয়র সাক্কু

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন টিটু রায়

আনসারুল্লাহ’র দুই জঙ্গি কলকাতায় গ্রেপ্তার

‘আওয়ামী লীগ ৪০টির বেশি আসন পাবে না’