‘এটা মোটেও সাংঘর্ষিক না’

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার, চনবুরি (থাইল্যান্ড) থেকে | ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বুধবার
ম্যাচের দিন সকালে মেয়েদের অনুশীলন করিয়ে কঠোর সমালোচনা জন্ম দিয়েছেন টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলি। তার কারণে কোণঠাসা হেড কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। গুঞ্জন আছে তার আপত্তির পরও ম্যাচের পরদিন সকালে দলকে ঘণ্টাখানেক অনুশীলন করিয়েছেন পল। ছোটন চেয়েছিলেন মেয়েদের আর লোড না দিয়ে বিকালে হালকা স্টেচিং করাতে। কিন্তু সম্ভব হয়নি। যদিও এর ব্যাখ্যা দিয়েছেন পল। গতকাল অনুশীলনের আগে হোটেল বেনসিন হেরিটেজে কথা হয় তার সঙ্গে। সেখানেই নানা যুক্তি তুলেন ধরেন তিনি। যার কিছু অংশ মানবজমিন পাঠকের সামনে তুলে ধরা হলো।
প্রশ্ন: উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে রেজাল্ট এতে খারাপ হলো কেন?  
পল: তারা অত্যন্ত শক্তিশালী। প্রকৃত চ্যালেঞ্জের ম্যাচ ছিল এটি। বিশ্লেষণ করলে দেখা যাবে খুব বড় ভুল হয়েছে কয়েকটি, যার শাস্তি পেয়েছি। আট মিনিটের মধ্যে গোলরক্ষকের ভুলে দুই গোল ম্যাচ থেকে ছিটকে দেয়।
প্রশ্ন: সকালের অনুশীলন ম্যাচে প্রভাব পড়েছে কিনা?
পল: সকালে অনুশীলন ম্যাচে প্রভাব পড়েনি। এটা বিশ্বের অনেক দেশই করে। শারীরিকভাবে মোটেও ক্লান্ত ছিল না। এ রকমটি হলে শেষ ম্যাচে হতে পারে। প্রথম ম্যাচে মোটেও শারীরিকভাবে ক্লান্ত ছিল না। নার্গিস, মৌসুমী কিছুটা অন্য রকম ছিল। সেটা পরিবেশ ও সামগ্রিক কারণে হয়েছে।
প্রশ্ন: আপনি বলতে চাইছেন ওরা ক্লান্ত ছিল না?
পল: শারীরিকভাবে ক্লান্ত ছিল না। আবেগ ছিল। তবে ওরা মানসিকভাবে ক্লান্ত ছিল। ম্যাচের দিন ট্যাকটিক্যাল সেশন ছিল। অপ্রয়োজনীয় তেমন কোনো অনুশীলন ছিল না।
প্রশ্ন: জাপান ম্যাচের আগে কোন দিকটায় বেশি নজর দিচ্ছেন?
পল: আমরা এখন কাজ করছি ভুলগুলো কাটিয়ে ওঠার। কীভাবে মানসিকভাবে চাঙ্গা করা যায় সেটা নিয়ে। মনে রাখতে হবে জাপানও উত্তর কোরিয়ার মতো শক্তিশালী প্রতিপক্ষ। তারা কিন্তু অস্ট্রেলিয়াকে পাঁচ গোলে হারিয়েছে। মেয়েদের সামনে আরো বড় অভিজ্ঞতা।
প্রশ্ন: ডাগ আউট থেকে একই সময়ে আপনাকে এবং কোচকে চিৎকার করতে দেখা যায়। এতে কি খেলোয়াড়রা বিভ্রান্ত হয় না?
পল: ডাগ আউট থেকে যা বলা হয় একই। মেয়েরা দ্বিধান্তিত হয় না। গত এক বছর থেকে এভাবেই হয়ে আসছে। পার্থক্য শুধু কোচ বাংলায় আর আমি ইংরেজিতে। এটা বিশ্বে অনেক দেশেই হয়। আমাদের নির্দেশনা মোটেও সাংঘর্ষিক নয়।
প্রশ্ন: ম্যাচ শেষে মেয়েরা কী বললো?
পল: মেয়েদের বলার সুযোগ দিয়েছি। তাদের অভিজ্ঞতা শুনেছি আমরা। তারা যেসব সমস্যার কথা বলেছে আমরা শুনেছি। সামনে দু’দিন আমরা এসব নিয়ে কাজ করবো।



 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘অযথা এসব গুঞ্জনের কোন মানে হয় না’

সন্তানের নাড়ি কাটার সময়ও পাননি হামিদা

সেনাবাহিনীর কার্যক্রম শুরু, ফিরছে শৃঙ্খলা

কাল থেকে গণশুনানি

সার্ক সম্মেলন নিয়ে এবারও অনিশ্চয়তা

মাদরাসায় শিক্ষক নিয়োগ মন্ত্রণালয়ে অভিযোগের স্তূপ

যেখানে এখনো পৌঁছেনি ত্রাণ

স্বস্তিতে বিএনপি আওয়ামী লীগ টেনশনে

চলছে পূজার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি

বজ্রপাতে নিহত ১১

শাহীনুর পাশাকে নিয়ে যে ঝড় বইছে সিলেটে

প্রবাসীর স্ত্রী ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে

সীমিত আকারে প্রবাসীদের ভোটার করার উদ্যোগ

স্পেনে মালিক, দেশে ১১ কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব

টয়লেট থেকে যুবকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

চট্টগ্রামে কমছে চালের দাম, ফুঁসছেন ব্যবসায়ীরা