পুলিশের ধাওয়ায় যুবকের মৃত্যু

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম থেকে | ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বুধবার
পুলিশের ধাওয়া খেয়ে আব্দুর সবুর (৪৪) এর মৃত্যুর ঘটনায় রৌমারী পুলিশ ঘটনা ধামাচাপা দিতে ভোররাতে আটককৃত ৫ জুয়াড়িকে থানা থেকে ছেড়ে দেয়। এ ঘটনায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। ঘটনা নিয়ে বাড়াবাড়ি না করতে পরিবারকে ম্যানেজ করে পুলিশ। পরে মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় কর্ত্তিমারী কেন্দ্রীয় কবরস্থানে ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন করা হয়। যাদুর চর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাখওয়াত হোসেন সবুজ ও রৌমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবর রহমান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। নিহত আব্দুর সবুরের ভাই নুর হোসেন জানান, সোমবার দিবাগত রাত ২টার দিকে রৌমারী উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের গোলাবাড়ি নামক এলাকার মাহবুবুর রহমান রিপনের বাড়িতে ১০/১২ জনের একটি দল তাস খেলছিল।
এ সময় গোপন সংবাদে রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গির আলমের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ওই বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় ৫ জনকে আটক করে পুলিশ। আটক ব্যক্তিরা হলেন- গোলাবাড়ি গ্রামের মৃত আইজুদ্দিনের ছেলে মুঞ্জিল হোসেন (৪৮), ধনারচর আকন্দপাড়া  গ্রামের মৃত- কসব উদ্দিনের ছেলে তৌহিদুল ইসলাম (৩৫), কাশিয়াবাড়ি গ্রামের আজিজল হক মণ্ডলের ছেলে মোবারক হোসেন (৪৮), কোমরভাঙ্গি নয়াপাড়া গ্রামের ময়দান আলীর ছেলে আমজাদ হোসেন (৩৩) ও কর্ত্তিমারী বাজারের প্যারিস টেইলার্সের মালিক গোলাপ হোসেন (৪৫)। অন্যদেরকে ধাওয়া করলে তারা দৌড়ে পালায়। এ সময় পালাতে গিয়ে আব্দুর সবুর বাড়িতে (ঘটনাস্থলের কাছাকাছি) গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পানি পানি বলে চিৎকার করে আকস্মিকভাবে মৃত্যু হয় তার।


মৃত সবুর গোলাবাড়ি গ্রামের ভেলু শেখের ছেলে। সে ১ ছেলে ও ১ মেয়ের জনক। এ ঘটনায় পরিবারটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গির আলম বলেন, আমাদের অভিযান চালানোর আগেই ঐ ব্যক্তির মৃত্যু হয়। এছাড়া কোনো জুয়াড়িকে পুলিশ আটক করেনি। বরং পৃথক কয়েকটি অভিযান চালিয়ে রৌমারী থানা পুলিশ ৮০ কেজি ৫০০ গ্রাম গাজা ও ১১টি ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ ৪ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে। এ ছাড়া একজন ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনার বাইরে যা শুনছেন তা গুজব। আর মৃত্যুর ঘটনায় একটি ইউডি মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মুগাবের ভাগ্য নির্ধারণে বৈঠকে বসেছে দলের শীর্ষ নেতারা

আখতার হামিদ সিদ্দিকী আর নেই

‘এবার প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোনো সুযোগ নেই’

নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করবে না শেখ হাসিনার সরকার-নৌ মন্ত্রী

‘আমি ব্যবসায়িক প্রতিহিংসার শিকার’

সেনা মোতায়েন নিয়ে বৈঠকে কোনো আলোচনা হয়নি : সিইসি

২০১৮ সালে প্রবল ভুমিকম্পের আশঙ্কা!

কেয়া চৌধুরী এমপি’র উপর হামলার ঘটনায় মামলা

বাংলাদেশের রাজনীতি, বিকাশমান মধ্যবিত্ত এবং কয়েকটি প্রশ্ন

ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতাতে আহত ডিবি পুলিশ

প্রতিবেশীদের মধ্যে সুসম্পর্ক থাকা জরুরীঃ বাংলাদেশকে মিয়ানমার

রোহিঙ্গা শিবিরে যেতে চান প্রণব মূখার্জি

তালাকপ্রাপ্ত নারীকে অপহরণের পর গণধর্ষণ

জাতিসংঘকে দিয়ে রোহিঙ্গা সঙ্কটের সমাধান হবে নাঃ চীন

সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত এমপি গোলাম মোস্তফা আহমেদ

খেলার মাঠে দেয়াল ধসে দর্শক যুবকের মৃত্যু