দার্জিলিং পরিস্থিতি নিয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনা ইতিবাচক

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৩০ আগস্ট ২০১৭, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:২২
ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দার্জিলিং পাহাড়ে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনতে পাহাড়ের বিভিন্ন দলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে ইতিবাচক আলোচনা হয়েছে। মঙ্গলবার নবান্নে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, পাহাড়ে শান্তি ফেরাতে সব দলই সহমত হয়েছে। পাহাড়ে যে অনির্দিষ্টকালের বনধ চলছে তা তুলে নেবারও অনুরোধ করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, এতদিন পরে আলোচনা শুরু হয়েছে। আলোচনার মাধ্যমেই সমস্যার সমাধান হবে। আবার বৈঠক হবে।
সেই বৈঠকটি হবে ১২ সেপ্টেম্বর উত্তরবঙ্গের সচিবালয় উত্তরকন্যায়। মুখ্যমন্ত্রী পাহাড়ের দলগুলিকে দার্জিলিংয়ের পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার লক্ষ্যে এদিন বৈঠকে ডেকেছিলেন। এই বৈঠকে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার প্রধান বিমল গুরুঙ যোগ না দিলেও মোর্চার ৫ প্রতিনিধি এবং গোর্খা ন্যাশানালিস্ট লিবারেশন ফ্রন্ট, অখিল ভারতীয় গোর্খা লীগ ও জনআন্দোলন পার্টির নেতারা যোগ দিয়েছিলেন। বৈঠকের শুরুতেই গোর্খা নেতাদের পক্ষ থেকে আলাদা গোর্খা রাজ্যের দাবি নিয়ে আলোচনার দাবি জানান। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী এ বিষয়ে আলোচনা করতে অপারগতা জানান। তবে বৈঠকে মোর্চার চীফ কোঅর্ডিনেটর বিনয় তামাঙ বলেছেন, পাহাড়ে শান্তি ফেরা জরুরি। তিনি পাহাড়ে সাম্প্রতিক সময়ে যে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে তার নিন্দা করেছেন। সেই সঙ্গে তিনি মোর্চা সমর্থকদের মৃত্যুর সিবিআই তদন্তের পাশাপাশি বিচারবিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়েছেন। জানা গেছে,পাহাড়ের দলগুলি ফিরে গিয়ে আলোচনা করে বনধ প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেবে ।
দার্জিলিং পাহাড়ে গত ৭৮ দিন ধরে টানা বনধ চলছে। স্কুল কলেজ, বাজার হাট, কল কারখানা সবই বন্ধ। বন্ধ দার্জিলিংয়ের সুখ্যাতি যে চা নিয়ে সেই চা বাগানের উৎপাদনও। খাদ্য ও নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষের অভাবে পাহাড়ের জনজীবন এক রকম বিপর্যস্ত।
এই পরিস্থিতিতে গোর্খা ন্যাশানালিস্ট লিবারেশন ফ্রন্টের প্রধান মন ঘিসিঙ প্রথম মুখ্যমন্ত্রীকে দার্জিলিংয়ের অচলাবস্থার অবসানের অনুরোধ জানিয়ে চিঠি লিখেছিলেন। সেই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে গত ২২ আগষ্ট মুখ্যমন্ত্রী বৈঠকের কথা ঘোষণা করেছিলেন। তিনি পাহাড়ের সব দলকে এই বৈঠকে যোগ দেবার আহ্বানও জানান। এর পরেই গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার পক্ষে চিফ কোঅর্ডিনেটর বিনয় তামাংও মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখে আলোচনায় বসার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। এদিনের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, বৈঠক হওয়ার অর্থই আলোচনার পথ খুলেছে। আর সব দলই শান্তি ফেরাতে চায়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নবীনগরে আওয়ামী লীগ নেত্রী খুন

রোহিঙ্গাদের সঙ্গে দেখা হবে পোপের

রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবর্তনে বিশ্বজনমত গঠিত হয়েছে

৬৯ মাসে তদন্ত প্রতিবেদন পেছালো ৫২ বার

মসনদে বসছেন ‘কুমির মানব’

রোহিঙ্গাদের ফেরাতে সমঝোতার কাছাকাছি বাংলাদেশ-মিয়ানমার

তনুর পরিবারের সদস্যদের ঢাকায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ

স্বপ্ন দেখাচ্ছে সৌর বিদ্যুৎ

আসন ধরে রাখতে চায় আওয়ামী লীগ, ফিরে পেতে মরিয়া বিএনপি

মেয়র পদে ১৩ জনের মনোনয়নপত্র জমা

জিদান খুনের রোমহর্ষক বর্ণনা আবু বকরের

অসহনীয় শব্দ দূষণে বেহাল নগরবাসী

সব স্কুলে ছাত্রলীগের কমিটি দেয়ার নির্দেশ

একতরফা নির্বাচন কোন নির্বাচনী প্রক্রিয়া নয়

‘অনুমোদনহীন বারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’

কি পেলাম কি পেলাম না সেই হিসাব মেলাতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী