পাকিস্তানে সেনাদের ট্রাকে আত্মঘাতী বোমা হামলা, ৮ সেনা সহ নিহত ১৫

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৩ আগস্ট ২০১৭, রবিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:২২
পাকিস্তানের কোয়েটায় সেনাবাহিনীর একটি ট্রাককে টার্গেট করে চালানো আত্মঘাতী বোমা হামলায় কমপক্ষে ১৫ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে রয়েছেন ৮ জন সেনা সদস্য। এতে আহত হয়েছেন ৪০ জন। এর মধ্যে কমপক্ষে ৮ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ফলে কর্মকর্তারা আশঙ্কা করছেন নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হামলার দায় স্বীকার করে নি কেউ। কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন। এতে বলা হয়, শনিবার দিবাগত রাতে পিশিন বাস স্টপে এ ঘটনা ঘটেছে। যেখানে এই হামলা হয়েছে তার কাছেই রয়েছে বেলুচিস্তান প্রাদেশিক পরিষদ, কোয়েটা ল কলেজ, একটি বেসরকারি হাসপাতাল ও বিভিন্ন রকম অফিস। বোমা নিষ্ক্রিয়করণ স্কোয়াডের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা  আসলাম তারিন বলেছেন, মোটর সাইকেলে করে সেনাবাহিনীর ট্রাকের কাছে চলে যায় এক ব্যক্তি। তারপর সে নিজেকে উড়িয়ে দেয় বোমা বিস্ফোরণের মাধ্যমে। এ হামলায় ব্যবহৃত বিস্ফোরকের ওজন ২৫ থেকে ৩০ কেজি। বিস্ফোরণের তীব্রতা এত বেশি ছিল যে, এ সময় আশপাশে থাকা অন্য গাড়িগুলোতে আগুন ধরে যায়। কোয়েটা শহরের সব জায়গা থেকে শোনা গেছে ওই বিস্ফোরণের শব্দ। ভেঙেচুরে গেছে আশপাশের বিভিন্ন ভবনের জানালা। এ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন সেনা প্রধান জেনারেল কমর জাভেদ বাজওয়া। তিনি বলেন, স্বাধীনতা দিবসের উৎসবকে কেন্দ্র করে এমন হামলা চালানো হয়েছে। তিনি এ সময় ঘোষণা দেন কোনো চ্যালেঞ্জের কাছে মাথা নত করবেন না। ঘটনার পর পর ঘটনাস্থল ঘিরে ফেলে আইন প্রয়োগকারী বাহিনীর সদস্যরা। নিহত ও আহতদের দ্রুত নিয়ে যাওয়া হয় সিভিল হাসপাতাল কোয়েটায়। সঙ্গে সঙ্গে শহরের অন্যান্য জরুরি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়। ওদিকে ইন্টার-সার্ভিসেস পাবলিক রিলেশনস বলেছে, ডিউটিতে থাকা একটি সামরিক যানে এই হামলা হয়েছে।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন