এক ধর্ষিতার মর্মস্পর্শী চিঠি

প্রথম পাতা

মানবজমিন ডেস্ক | ১২ আগস্ট ২০১৭, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫১
মাত্র ১২ বছর বয়সে ধর্ষণের শিকার হওয়া ক্যাথরিন মনের অভিব্যক্তি তুলে ধরেছেন চিঠির মাধ্যমে। স্কটল্যান্ড নিবাসী ক্যাথরিন এখন ১৪ বছরের কিশোরী। ধর্ষক ড্যানিয়েল সিয়েসল্যাকে মার্চ মাসে মুক্ত করে দেয় আদালত। ধর্ষণের সময় ড্যানিয়েলের বয়স ছিল ১৯। গ্ল্যাসগো হাইকোর্টের বিচারক রায় দেয়ার সময় বলেছেন, ক্যাথরিনকে দেখে মনে হয় তার বয়স ১৬’র বেশি। এরপর আদালত মুক্তি দেয় ড্যানিয়েলকে। এরপর ক্যাথরিন একটি চিঠিতে নিজের কষ্টের কথা লিখেছে। সে বলেছে, ওই ঘটনা তার স্বাভাবিক জীবনকে ওলট পালট করে দিয়েছে। বিষণ্নতা ঘিরে ফেলেছে তাকে। কয়েকবার আত্মহত্যারও চেষ্টা করেছে। অনেকেই ক্যাথরিনকে বলেছে ধর্ষক ড্যানিয়েলকে ক্ষমা করে দিতে। ক্যাথরিন প্রশ্ন রেখেছেন, কি করে সে ওই ব্যক্তিকে ক্ষমা করে দেবে যে কিনা তার সুন্দর জীবনকে নষ্ট করে দিয়েছে?   
চিঠিটি প্রকাশিত হয় ডেইলি রেকর্ডে। এখানে চিঠিটির হুবহু অনুবাদ তুলে ধরা হলো:
‘১২ বছর বয়সে আমি ধর্ষণের শিকার হই। একজন মানুষের জীবনে এর থেকে খারাপ ঘটনা আর কি হতে পারে। ড্যানিয়েল আদালতকে বলেছিল, সে আমার বয়স কত তা জানতো না। ওই রাতের কথা আমি স্পষ্ট মনে করতে পারি না। সেই থেকে ওই ঘটনার ভাসাভাসা কিছু ছবি ভেসে ওঠে মনে। আমি বাইরের ঘরে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছিলাম। সে আমাকে উঠিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল- এতটুকু মনে আছে। এরপর সংজ্ঞা ফিরলে নিজেকে বিছানায় আবিষ্কার করি।
বলা হয়েছে যে, আমার সম্মতিতেই সবটা হয়েছে। কিন্তু, কেউ একজন সম্মতি কিভাবে দেবে যখন তার কথা বলারই অবস্থা নেই?
এই ঘটনার আগে আমি ছিলাম আত্মবিশ্বাসী আর সুখী। সবসময় আমার মুখে হাসি থাকতো। এখন আমার হাসিটা হয় মেকি। আমার সময় কাটে বিষণ্নতায়। ঘুমের ঔষধ ছাড়া আমার ঘুম হয় না। আমি সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যারও  চেষ্টা করেছি কয়েকবার।
অনেক খারাপ সময় গেছে আমার। এরপর আমি জানতে পারলাম ড্যানিয়েল দোষ স্বীকার করেছে আর আমাকে আদালতে যেতে হবে না। আমার পরিবার ও আমি খুশি হয়েছিলাম। এরপর তাকে মুক্তি দেয়া হলো- আর কিছুই হলো না।
আমি সম্পূর্ণ ভেঙে পড়ি। আমি জানি না তাকে মাফ করতে পারবো কি না? সবাই বলে তাকে ক্ষমা করে দিতে। যে আমার জীবনটা নষ্ট করে দিয়েছে তাকে আমি কি করে ক্ষমা করবো?  আমার সঙ্গে যা হয়েছে তা আমি কখনই ভুলবো না। সারা জীবন ওই ঘটনা আমাকে তাড়িয়ে বেড়াবে। তবে, আমাকে ও আমার পরিবারকে জীবন চালিয়ে যেতে হবে। আমিও স্বাভাবিক জীবনে ফেরার চেষ্টা করবো। ওই ঘটনা মনের ভেতর চাপা দিয়ে রাখার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো। মানুষ যা খুশি তাই বলতে পারে। কিন্তু এটাই আমার সত্যি ঘটনা। আসল সত্যটা শুধু আমি জানি আর জানে ড্যানিয়েল।

-ক্যাথরিন’
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

জুনাইদ হোছাইন

২০১৭-০৮-১১ ২৩:২৯:০০

এর চেয়ে খারাপ অবস্তা আমাদের দেশে ঘটতেছে।

আপনার মতামত দিন