রামগঞ্জে ইভটিজিংয়ের দায়ে যুবককে কারাদণ্ড

বাংলারজমিন

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি | ১২ আগস্ট ২০১৭, শনিবার
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবু ইউসুফ বৃহস্পতিবার বিকেলে ইভটিজিংয়ের দায়ে ফজলে রাব্বী নামের যুবককে ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন। দণ্ডপ্রাপ্ত ফজলে রাব্বী রামগঞ্জ পৌরসভা কলচমা গ্রামের কামার বাড়ির মনির হোসেনের ছেলে।
সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পূর্ব বিঘা গ্রামের আক্তার হোসেনের মেয়ে রামগঞ্জ মডেল কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী সিফাত সুলতানাকে দীর্ঘ কয়েক মাস থেকে ফজলে রাব্বী প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছে। কিন্তু ওই ছাত্রী প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় রাব্বী ক্ষিপ্ত হয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে (১০ই আগস্ট) কলেজ প্রাঙ্গণে একা পেয়ে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী করে।
সৃষ্ট ঘটনায় ছাত্রী সিফাত সুলতানা বাদী হয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে বৃহস্পতিবার বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও মোহাম্মদ আবু ইফসুফ সাক্ষ্য প্রমাণ ও ইভটিজারের স্বীকারোক্তিতে ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। ভ্রম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আবু ইউসুফ বলেন, ফজলে রাব্বী নিজেই অপরাধ স্বীকার করায় দণ্ড কমানো হয়েছে। নতুবা ছাত্রীকে ইভটিজিং এবং শ্লীলতাহানীর ঘটনায় লঘুদণ্ড দেয়া হতো।


 ।


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন