ফেঞ্চুগঞ্জে লন্ডন প্রবাসী ২ নারীর বসতভিটা দখলের চেষ্টা

বাংলারজমিন

ফেঞ্চুগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি | ১২ আগস্ট ২০১৭, শনিবার
ফেঞ্চুগঞ্জে লন্ডন প্রবাসি দুই নারী বাংলাদেশে এসে চরম নিরাপত্তাহীনতায় পড়েছেন। তাদের বসতভিটে জবরদখলের পাঁয়তারা করা হচ্ছে। মাস্তানবাহিনীর প্রকাশ্য ঘোরাফেরায় তারা আতংকিত রয়েছেন। গতকাল ফেঞ্চুগঞ্জ প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এমন অভিযোগ করেন লন্ডন প্রবাসী রাজনা বেগম ও হাসনা আলী। তারা উপজেলার বাদেদেউলি গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী মরহুম তফজ্জুল আলীর মেয়ে। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, তারা দীর্ঘদিন পর  গত ১০ই জুলাই বাংলাদেশে বেড়াতে আসেন। ওইদিন তারা এয়ারপোর্ট থেকে গ্রামের বাড়ি ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ঘিলাছড়ার বাদেদেউলি গ্রামে যান। বাড়িতে এসে দেখতে পান প্রধান ফটকে  তালা দেয়া। এ সময় তাদের ভাই তাহির আলীর কথিত কেয়ারটেকার মছব্বির তাদেরকে বাড়িতে ঢুকতে নিষেধ করেন। ওই বাড়িটি তাদের নয় বলে মছব্বির তাদেরকে সেখান থেকে চলে যেতে বলে। উপায়ন্তর না পেয়ে দুই বোন তখন পার্শ্ববর্তী তাদের খালার বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেন। ভাই কর্তৃক বোনদেরকে তাদের বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়ার বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। ঘটনার ২দিন পর গ্রামের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যস্থতায় রাজনা ও হাসনা আলী তাদের পৈতৃক বাড়িতে উঠতে সক্ষম হন ।  রাজনা আলী জানান, বাড়িতে উঠলে রাতে সন্ত্রাসীরা বাড়ির সামনে গাড়ি নিয়ে অবস্থান নেয়, গভীর রাতে বাড়ির বৈদ্যুতিক লাইন কেটে দেয়। অজানা আতংকে  আমরা বাধ্য হয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীকে এ ব্যাপারে অবগত করি। তিনি এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ায় বর্তমানে সন্ত্রাসীদের উপদ্রুপ কমলেও অজানা আতংক আমাদের পিছু ছাড়ছে না। তারা এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।  সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন রাজনা বেগমের বড় বোন মাহমুদা খাতুনের ছেলে   আলমগীর জামান বুলবুল। ফেঞ্চুগঞ্জ প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, মাহমুদা খাতুন, রাজনা বেগম, হাসনা আলী, হামিদা বেগম।

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন