টঙ্গীবাড়ীতে ৫ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুলছাত্রী পপি

বাংলারজমিন

টঙ্গীবাড়ী (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১২ আগস্ট ২০১৭, শনিবার
টঙ্গীবাড়ী থেকে অপহরণের ৫ দিন অতিবাহিত হলেও স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করা যায়নি। পুলিশ বলেছে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। গত ৭ই জুলাই সোমবার সকাল ৮টায় উপজেলার বালিগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির মানবিক বিভাগের ছাত্রী শ্রী পপি রানী মল্লিক স্কুলে যাওয়ার পথ থেকে অপহরণ হয় বলে তার পরিবারের অভিযোগ। পপির বাবা বালিগাঁও ঋষিপাড়ার বাসিন্দা অর্জুন মল্লিক বাদী হয়ে সোমবার রাতে একই এলাকার সিরাজ মোল্লা (৫৪), তার স্ত্রী গুলি বেগম (৪৮), ২ পুত্র আমির মোল্লা (৩০) ও গোলাম মোল্লা (২৭)কে আসামি করে টঙ্গীবাড়ী থানায় একটি অপহরণ মামলা করেন। অর্জুন জানান, পপির জন্য সিরাজের স্ত্রী গুলি বেগম প্রায়ই তার প্রবাসী পুত্র মনিরের বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে বাড়িতে আসত। হিন্দু ধর্মের মেয়ের জন্য মুসলিম পরিবারের ছেলের বিয়ের প্রস্তাব দেয়ায় অর্জুন বালিগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান দুলাল হাজীর নিকট গুলি বেগমের বিরুদ্ধে বিচার চেয়ে প্রতিকার পায়নি বলে এলাকাবাসী জানান।
অপর দিকে মামলা হওয়ার পর থেকে সিরাজ মোল্লা, তার স্ত্রী গুলি বেগম ও ২ ছেলে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। ঋষিপাড়ার সংখ্যালঘুরা জানান, সিংগাপুর যাওয়ার আগে মনিরের সঙ্গে পপির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ১১ই জুলাই শুক্রবার পপির বিয়ের দিন তারিখ ধার্য করার জন্য বর পক্ষ নারায়ণগঞ্জ থেকে অর্জুনের বাড়ি আসার কথা ছিল। এই খবর জানাজানি হলে সিরাজ মোল্লা ও তার পরিবারের লোকদের জোগসাজশে পপিকে  ফুসলিয়ে অপহরণ করে কোথাও লুকিয়ে রেখেছে বলে পপির পরিবারের লোকেরা জানায়। টঙ্গীবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসাইন জানান, পপিকে উদ্ধারের জন্য পুলিশ তৎপর।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ছিচকে চোর থেকে মাদক সম্রাট!

সুপারমডেল থেকে মাতৃসেবায়

বোতলে ভরা চিঠি সমুদ্র ফিরিয়ে দিল ২৯ বছর পর!

কার সমালোচনা করলেন বুশ, ওবামা!

১১ ঘন্টা পর পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া রুটের ফেরি চলাচল শুরু

জুমের মাধ্যমে পেমেন্ট নিতে পারবেনা বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সাররা

স্বাধীনতা নয়, কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে যাচ্ছে কাতালান

অস্ট্রেলিয়ার গহীন মরুতে ১৮শতাব্দীর বাংলা পুঁথি

হারভে উইন্সটেন যেভাবে হোটেলকক্ষে অভিনেত্রীকে যৌন নির্যাতন করেন

আজও সারাদিন বৃষ্টি

ভারতের ‘অ্যাক্ট ইস্ট’ পলিসির মূল স্তম্ভ হলো বাংলাদেশ

ভর্তি পরীক্ষায় ‘র‌্যাগের’ বিরুদ্ধে রাবি প্রশাসনের কঠোর অবস্থান

‘এই ধরনের কাজ করতে আমি সবসময়ই বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি’

মসজিদে গুলি ছোড়ার পর পাল্টে গেল এক মার্কিনীর জীবন

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দুর্নীতির মচ্ছব

দৃশ্যপট একই