ব্রিজিতকে ফার্স্টলেডি খেতাব না দেয়ার পিটিশন

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৯ আগস্ট ২০১৭, বুধবার
ফ্রান্সের ফার্স্টলেডি ব্রিজিত ম্যাক্রনকে ‘ফার্স্টলেডি’ খেতাব না দেয়ার আহ্বান জানিয়ে একটি পিটিশনে স্বাক্ষর করেছে ২ লাখ ১৩ হাজারেরও বেশি মানুষ। এ সংখ্যা সোমবার বিকেল নাগাদ রেকর্ড করা। এ পিটিশনে বলা হয়েছে, মিসেস ম্যাক্রনের জন্য সরকারি কোনো অর্থ খরচ করা উচিত হবে না। তার স্বামী প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রনেরও জনপ্রিয়তায় এরই মধ্যে ধস নেমেছে। তিনি নির্বাচনের আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তিনি তার স্ত্রীর জন্য একটি সরকারি পদ দেবেন। কিন্তু এরপর এমপিরা যাতে তাদের পরিবারের কোনো সদস্যকে সহকারী বা অধীনস্ত পদে নিয়োগ দিতে না পারেন সে জন্য শিগগিরই নতুন আইন পাস করতে যাচ্ছে ফ্রান্স। এটা এমানুয়েল ম্যাক্রনের দুর্নীতি বিরোধী পদক্ষেপের অংশ। যদি এমপিরা তাদের পরিবারের সদস্যদের নিয়োগ করতে না পারেন, তাহলে প্রেসিডেন্ট কেন তার স্ত্রীকে ফার্স্টলেডি হিসেবে মর্যাদা দেবেন- তা নিয়ে প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে দু’সপ্তাহ আগে অনলাইনে ওই পিটিশন উন্মুক্ত করা হয়। এতে বলা হয়, যে সময়ে ফ্রান্সের জনগণ নৈতিকতার মধ্যে আছে, যখন পরিবারের সদস্যদের নিয়োগ বন্ধে ডিক্রি জারি সংক্রান্ত বিলে ভোট হয়েছে, তখন আমরা প্রেসিডেন্টের স্ত্রীকে বিশেষ মর্যাদা অনুমোদন করতে পারি না। ওই পিটিশনে আরো বলা হয়, ব্রিজিত ম্যাক্রনের বর্তমানে দুই থেকে তিন জন সহযোগী আছেন। আছেন দু’জন সেক্রেটারি ও দুজন গার্ড।

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন