রোডম্যাপ বাস্তবায়নই হবে চ্যালেঞ্জ

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ জুলাই ২০১৭, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৪০
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের কর্মপরিকল্পনাকে (রোডম্যাপ) ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন সাবেক নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ ছহুল হোসাইন। এ বিষয়ে মানবজমিনকে তিনি বলেছেন, রোডম্যাপ প্রয়োজন ছিল এবং অত্যন্ত ভালো কাজ। পূর্ব পরিকল্পনা প্রকাশ করে দেয়া অর্থাৎ আগামীতে এই মাসে, এই সপ্তাহে, এই দিনে কী করব। সবকিছু নির্বাচনকে কেন্দ্র করে। ভালো কাজ করেছে তারা। আমাদের উচিত এটাকে স্বাগত জানানো।
আমরাও এটা করেছিলাম। এর আগেও হয়নি, পরেও হয়নি। বর্তমান কমিশন করলো।
রোডম্যাপে যেসব কাজের কথা বলা হয়েছে সেগুলো সংবিধানসম্মত বলে মনে করছেন মোহাম্মদ ছহুল হোসাইন। এ  প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভোটার তালিকা হালনাগাদ, সীমানা পুনঃনির্ধারণ এগুলো করার জন্য সংবিধান বলে দিয়েছে। নতুন লোক ভোটার হওয়ার যোগ্য; আবার বহু লোক মারা গেছেন তাদেরকে বাদ দিতে হবে। ঠিক তেমনি সীমানা নির্ধারণের কাজও আইন বলে দিয়েছে, সংবিধান বলে দিয়েছে। এখানে কতগুলো নীতি আছে। সব জায়গায় জনসংখ্যার প্রতিনিধিত্ব যেন সমান হয় এই কারণে সীমানা পুনঃনির্ধারণ করতে হবে। প্রশ্নটা হলো, নির্বাচন কমিশন কত নিরপেক্ষভাবে, আন্তরিকভাবে, নিষ্ঠার সঙ্গে এই কাজগুলো বাস্তবায়ন করে এটা দেখার বিষয়। তাই তাদের দেয়া রোডম্যাপ বাস্তবায়নই এখন তাদের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ।
গত রোববার ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা (রোডম্যাপ)’ ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। রোডম্যাপে বলা হয়েছে, নির্বাচন কমিশন নির্ধারিত সময়ে সংসদ নির্বাচন করতে দৃঢ়তার সঙ্গে ও সুচিন্তিত পন্থায় এগিয়ে যাচ্ছে। দেশবাসী একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের অপেক্ষায় রয়েছেন। সার্বিকভাবে দেশে জাতীয় নির্বাচনের একটি অনুকূল আবহ সৃষ্টি হয়েছে। ইসি’র রোডম্যাপে অন্তর্ভুক্ত বিষয়গুলো নিয়ে অংশীজন, গণমাধ্যম, দলসহ সংশ্লিষ্টদের সামনে উপস্থাপন করে সবার মতামত নেবে। সবার মতামতের আলোকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন আইনানুগ ও গ্রহণযোগ্য করে তোলা সম্ভব বলে ইসি বিশ্বাস করে। রোডম্যাপে উল্লিখিত সাতটি বিষয় হচ্ছে- আইনি কাঠামো পর্যালোচনা ও সংস্কার, নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে সহজীকরণ ও যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট সকলের পরামর্শ গ্রহণ, সংসদীয় এলাকার সীমানা পুনঃনির্ধারণ, নির্ভুল ভোটার তালিকা প্রণয়ন এবং সরবরাহকরণ, বিধি-বিধান অনুসরণপূর্বক ভোটকেন্দ্র স্থাপন, নতুন রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন এবং নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের নিরীক্ষা এবং সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট সকলের সক্ষমতা বৃদ্ধির কার্যক্রম গ্রহণ।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সমাপনীতে অনুপস্থিত ১৪৫৩৮৩ শিক্ষার্থী

ঈদ-ই মিলাদুন্নবি ২ ডিসেম্বর

দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য তারেক রহমানকে দরকার: এমাজউদ্দিন

দল থেকে বরখাস্ত মুগাবে

দেখা হলো, কথা হলো কাদের-ফখরুলের

আখতার হামিদ সিদ্দিকী আর নেই

ইইউ প্রতিনিধি ও তিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন

‘এবার প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোনো সুযোগ নেই’

নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করবে না শেখ হাসিনার সরকার-নৌ মন্ত্রী

‘আমি ব্যবসায়িক প্রতিহিংসার শিকার’

সেনা মোতায়েন নিয়ে বৈঠকে কোনো আলোচনা হয়নি : সিইসি

২০১৮ সালে প্রবল ভুমিকম্পের আশঙ্কা!

কেয়া চৌধুরী এমপি’র উপর হামলার ঘটনায় মামলা

বাংলাদেশের রাজনীতি, বিকাশমান মধ্যবিত্ত এবং কয়েকটি প্রশ্ন

সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত এমপি গোলাম মোস্তফা আহমেদ

খেলার মাঠে দেয়াল ধসে দর্শক যুবকের মৃত্যু