‘জহির-দ্রাবিড়দের অপমান করা হচ্ছে’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৮ জুলাই ২০১৭, মঙ্গলবার
অনিল কুম্বলেকে অপমানিত করা হয়েছে। আর এবার অপমান করা হচ্ছে রাহুল দ্রাবিড় ও জহির খানের মতো সাবেক ক্রিকেটারদের। এমনটাই মনে করেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রশাসক কমিটির সাবেক সদস্য ও ক্রিকেট ইতিহাসবিদ রামচন্দ্র গুহ। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নতুন কোচ নিয়োগ দেয়া নিয়ে অনেক নাটক হয়েছে। শেষ পর্যন্ত অনিল কুম্বলের জায়গায় নতুন কোচ করা হয়েছে রবি শাস্ত্রীকে। এরসঙ্গে ভারতীয় দলের বোলিং কোচ হিসেবে জহির খান ও বিদেশের মাটিতে রাহুল দ্রাবিড়কে ব্যাটিং কোচ হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয়। কিন্তু জহির খানকে নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। বিসিসিআই-এর অ্যাডভাইসরি কমিটির সদস্যরা বোলিং কোচ হিসেবে জহির খানের নাম ঘোষণা করলেও তাকে পছন্দ নয় রবি শাস্ত্রীর। ভরত অরুণকে বোলিং কোচ হিসেবে চাইছেন তিনি। এছাড়া রাহুল দ্রাবিড়কেও তার পছন্দ নয়। এক্ষেত্রে তার পছন্দ সঞ্জয় বাঙ্গারকে। জহির ও দ্রাবিড়ের নিয়োগের ব্যাপারে প্রকাশ্যে অভিনন্দন জানালেও বোর্ডের প্রশাসনিক মহলকে তাদের নিয়ে নিজের অপছন্দের কথা জানিয়েছেন শাস্ত্রী। এতে এই চাকরিতে আপাতত জহির খানের ভবিষ্যৎ কী তা এখনো অস্পষ্ট। জহির খান ও রাহুল দ্রাবিড়ের মতো খেলোয়াড়ের সঙ্গে বোর্ডের এমন আরচণকে অপমান হিসেবে দেখছেন রামচন্দ্র গুহ। এ বিষয়ে তিনি বেশ কয়েকটি টুইট করেছেন। একটিতে লেখেন, ‘অনিল কুম্বলের সঙ্গে যেমন লজ্জাজনক আচরণ করা হয়েছে ঠিক আচরণ করা হচ্ছে জহির খান ও রাহুল দ্রাবিড়দের সঙ্গে।’ তিনি আরেক টুইটে লেখেন, ‘কুম্বলে, দ্রাবিড় ও জহির খান ক্রিকেটে সত্যিকারের গ্রেট খেলোয়াড়। তাদের এভাবে অপমান প্রাপ্য ছিল না।’
জহির খান ও রাহুল দ্রাবিড়কে নিয়ে এখন পর্যন্ত যা চলছে তাতে মনে হচ্ছে কোচ হিসেবে তারা থাকতে পারবেন না। সহকারী কোচ নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রধান কোচের মতামতের অনেক গুরুত্ব। তিনি যাদের সঙ্গে কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন তাদেরকেই তার সহকারী করা হয়। এছাড়া বোর্ডে রবি শাস্ত্রীর অনেক প্রভাব রয়েছে। এই হিসেবে, জহির আর দ্রাবিড়ের ভবিষ্যৎ এখনো ধোঁয়াশা। আর এই ধোঁয়াশা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে বিসিসিআই-এর এক কর্মকর্তার মন্তব্যে। তিনি বলেন, ‘জহির খান ও দ্রাবিড়ের নাম ঘোষণা ‘নিয়োগ’ ছিল না। সেটা ছিল ‘সুপারিশ’। সুতরাং তাদেরকে ভালো যে কোনো দায়িত্ব দেয়া যেতে পারে।’

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন