ফিফার বিবৃতি: খবরটি ভুয়া

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৮ জুলাই ২০১৭, মঙ্গলবার
কাতার বিশ্বকাপ নিয়ে প্রকাশিত একটি ভুয়া খবরে ফুটবল বিশ্বে তোলপাড়। আগামী বছরের ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ বসবে রাশিয়ায়। ২০২২ সালের বিশ্বকাপের আয়োজক মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতার। সম্প্রতি তারা বেশ ঝামেলায় রয়েছে। ‘সন্ত্রাসবাদে সহায়তা’ দেয়ার অভিযোগে ৬টি প্রতিবেশী দেশ তাদের বয়কট করেছে। এই তালিকায় রয়েছে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। এমন সংকটের মধ্যে অনেকে কাতারের বিশ্বকাপ আয়োজনের সামর্থ্য নিয়ে নতুন করে প্রশ্ন তোলা শুরু করেছে। আর এরই মধ্যে এক ভুয়া খবরে তোলপাড় সৃষ্টি হলো।
বিশ্ব ফুটবল নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা ফিফার প্রধান কার্যালয় সুইজারল্যান্ডে। সেই দেশের একটি স্থানীয় পত্রিকা সম্প্রতি খবর প্রকাশ করে যে, কাতারের প্রতিবেশী ৬ দেশ- সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইয়েমেন, মৌরিতানিয়া, বাহরাইন ও মিশর ফিফার কাছে একটি চিঠি পাঠিয়েছে। তারা কাতার বিশ্বকাপ বাতিল করার আহ্বান জানিয়েছে। কাতার দর্শক ও খেলোয়াড়দের নিরাপত্তা দিতে পারবে না বলে তারা অভিযোগ করে। এমন কি বিশ্বকাপের সময় দর্শক ও খেলোয়াড়রা কোনো বিপদে পড়লে তারজন্য প্রতিবেশী কোনো দেশকে দায় দিতে পারবে না বলেও তারা সতর্ক করে দিয়েছে। সুইজারল্যান্ডের স্থানীয় পত্রিকাটি এই খবর প্রচারের পর বিশ্বের বেশ কয়েকটি বড়বড় পত্রিকা তা প্রচার করে। সংবাদমা্যধ্যম বিবিসি জানাচ্ছে যে, বিশ্বের বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠিত সংবাদসংস্থাও এই খবর প্রচার করে। বিষয়টি প্রকাশ হওয়ার পর বিব্রত বোধ করে ফিফার কর্মকর্তারা। কাতার বিশ্বকাপ বাতিল করার ব্যাপারে তারা কারো কাছ থেকে কোনো চিঠি বা আবেদন পায়নি বলে জানিয়েছে। খবরটি ভুয়া উল্লেখ করে ফিফা এক মুখপাত্র বিবিসি’কে বলেন, ‘ফিফার প্রেসিডেন্ট এই ধরনের কোনো চিঠি পাননি। এমন কি এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্যও তিনি করেননি। খবরটির কোনো সত্যতা নেই।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমরা ২০২২ সালে কাতারের বিশ্বকাপ আয়োজক কমিটির সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। আশা করছি, ঠিক সময়ে বিশ্বকাপ হবে।’


 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন