ভেনিজুয়েলায় বিরোধী দলের গণভোট, গুলিতে নিহত ১

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৭ জুলাই ২০১৭, সোমবার
সংবিধান পুনর্লিখন পরিকল্পনার প্রতিবাদে প্রতীকী গণভোট করেছে ভেনিজুয়েলার বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। এতে সহিংসতায় নিহত হয়েছেন কমপক্ষে একজন। প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো দেশের সংবিধান সংশোধন করে তা নতুন করে লেখার পরিকল্পনা নিয়েছেন। এর প্রতিবাদ করছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। তারই অংশ হিসেবে সেখানে অনানুষ্ঠানিক গণভোট আয়োজন করে বিরোধীরা। এতে রাজধানী কারাকাসের ঠিক উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত ক্যাটিয়া অঞ্চলে একটি চার্চে স্থাপিত ভোট গ্রহণ কেন্দ্র হামলা চালায় মোটর সাইকেল আরোহীরা। সেখানে সরকার সমর্থকদের সঙ্গে বিরোধীদের সংঘর্ষ হয়। এ সময় গোলাগুলিতে ৬১ বছর বয়সী একজন নারী নিহত হন। আহত হয়েছেন চারজন। বিরোধী দলীয় মুখপাত্র কার্লোস ওকারিজ বলেছেন, ক্যাটিয়াতে প্যারামিলিটারিরা প্রকাশ্যে গুলি চালিয়েছে। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম রিপোর্টে বলেছে, সরকারপন্থি সশস্ত্র গ্রুপগুলো, যারা ‘কোলেস্টিভোস’ নামে পরিচিত তারাই বিরোধী দলীয় সমর্থকদের ওপর গুলি চালিয়েছে। ভেনিজুয়েলার বিরোধী দলীয় নেতা হেনরিক ক্যাপ্রিলেস টুইটে এ জন্য দায়ী করেছেন প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে। বলেছেন, তার দুর্নীতিপরায়ণ নেতৃত্ব তার প্যারামিলিটারিদের হামলা চালাতে পাঠিয়েছে ক্যাটিয়ায়। রোববার এ ভোট হলেও এটা নির্বাচন কমিশন অনুমোদিত নয়। বিরোধীরা বলছে, এতে অংশ নিয়েছেন ৭১ লাখের বেশি মানুষ। উল্লেখ্য, ভেনিজুয়েলায় মোট জনসংখ্যা প্রায় ৩ কোটি।

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন