পদ্মার বালু উত্তোলনে হুমকিতে সিলিকন ভ্যালি

বাংলারজমিন

আসলাম-উদ-দৌলা রাজশাহী থেকে | ১৭ জুলাই ২০১৭, সোমবার
রাজশাহীতে আইন ভেঙে পদ্মা নদীর বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। সেই বালু স্তূপ করে রাখা আছে নদীর তীরেই। প্রতিদিন ট্রাকে করে বালু পৌঁছে যাচ্ছে মহানগর ও আশেপাশের উপজেলা শহরে। বালুমহলগুলো একটি সিন্ডিকেটের হাতে থাকায় চড়া দামে কিনতে বাধ্য হচ্ছে ক্রেতারা। এসব দেখেও অজ্ঞাত কারণে প্রশাসন নীরব থাকছে। এতে করে সিলিকন ভ্যালি, পুলিশ একাডেমি, ক্যাডেট কলেজ, জেলাখানাসহ রাজশাহীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা হুমকির মুখে। এছাড়া চারঘাট ও ইসবপুর বালুমহাল থেকে বালু উত্তোলন করায় হুমকিতে রাজশাহী ক্যাডেট কলেজ ও দেশের একমাত্র পুলিশ একাডেমি। এদিকে অপরিকল্পিতভাবে বালু তোলায় ভাঙন তীব্রতর হচ্ছে। নদীর তলদেশ গভীর হয়ে গেছে। এ জন্য বর্ষাকালে এলাকায় ভাঙন তীব্র হচ্ছে। এরকম ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা থেকে বালু উত্তোলন করার অনুমতি কীভাবে জেলা প্রশাসন দেয়- প্রশ্ন এলাকাবাসীর। রাজশাহীর পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) আশঙ্কা করেছিলো- পদ্মা নদী থেকে অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলন করা হলে হুমকিতে পড়বে এই জেলার গুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু স্থাপনা। এজন্য পাউবোর পক্ষ থেকে একাধিক চিঠি দিয়ে বালু উত্তোলন ঠেকানোর আবেদন জানানো হয়েছিলো জেলা প্রশাসনকে। এ কারণে বালুমহাল ইজারা না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো প্রশাসন। কিন্তু এক শ্রেণির সুবিধাভোগী তাদের রাজনৈতিক ক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে চাপ সৃষ্টি করে বালুমহাল ইজারা দিতে প্রশাসনকে বাধ্য করেছে। এখন তারা আইন ভেঙে বালু উত্তোলন করছে।
সম্প্রতি নগরীর জিয়ানগর-বুলনপুরে প্রস্তাবিত সিলিকন ভ্যালি এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, দেদারছে বালু উত্তোলন চলছে। পদ্মার তীর ঘেষে ড্রেজার দিয়ে চলছে বালু উত্তোলন। একদিকে নদীর পাড় ভাঙছে আবার অন্যদিকে বালু উত্তোলনও চলছে। ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ড বালুর বস্তা ফেলছে। কিন্তু স্থানীয়রা আশঙ্কা করছে, বালু উত্তোলন অব্যাহত থাকলে এই পার রক্ষা করা যাবে না। জিয়ানগর-বুলনপুরে পদ্মার তীর থেকে প্রায় ৩০০ মিটার উত্তরেই নির্মাণ করা হচ্ছে রাজশাহীর মানুষের স্বপ্নের বঙ্গবন্ধু সিলিকন সিটি। গতবছরই এলাকাটি অনেকটা ভেঙে গেছে। এবারও একটু একটু করে ভাঙছে। উজান থেকে পদ্মার পানি এসে ধাক্কা খাচ্ছে পাড়ে। এরপর পানির স্রোত চলে যাচ্ছে নদীর মাঝে থাকা একটি চরের দিকে। এতে সে চরও কাটছে। জিয়ানগর এলাকার বাসিন্দা জালাল উদ্দিন (৬০) বলেন, বসুড়ি এলাকায় নদীর পাড় থেকেই বালু তোলা হয়। শুষ্ক মৌসুমে বালু তুলে নিয়ে যায় ট্রাক। আর ভরা মৌসুমে ড্রেজারের সাহায্যে বালু তোলা হয় নৌকায়। এরফলে নদী ভেঙে উত্তরের দিকে যাচ্ছে। যার ফলে বুলনপুর, নবগঙা, বসুড়ি, নবীনগর ও জিয়ানগরে ভাঙন দেখা দিয়েছে। তারপরের বন্ধ হচ্ছে না বালু উত্তোলন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের এক কর্মকর্তা বলেন,  কেবল বালু উত্তোলনের কারণে রাজশাহী শহর রক্ষা বাঁধ হুমকিতে একথা সত্য নয়। তবে অবশ্যই বালু উত্তোলনও একটি কারণ। এ জন্য আমরা বালু উত্তোলনকারীদের নির্দেশ দিয়েছি বাঁধ থেকে কমপক্ষে এক কিলোমিটার দূর থেকে বালু উত্তোলন করতে। তবে অনেক সময় সেই নিয়ম মানেন না বালু উত্তোলনকারীরা।
রাজশাহী জেলা প্রশাসনের দেয়া তথ্য মতে, জেলায় মোট বালুমহাল রয়েছে ১১টি। সবগুলোই বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন অনুযায়ী ইজারা দেয়া হয়েছে বাংলা ১৪২৪ সালের জন্য। কিন্তু অনুসন্ধানে জানা গেছে, ১১টি বালুমহাল ছাড়াও আরো প্রায় ১৫টি পয়েন্ট থেকে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। ইজারা নেয়া মহাল থেকে বালু উত্তোলন বৈধ হলেও বালু উত্তোলনের কারণে ক্ষতির আশঙ্কা থাকায় তা আইনের স্পষ্ট লঙ্ঘন হিসেবেই প্রতীয়মান হচ্ছে। আজিজুল আলম বেন্টু জানান, তারা আইন মেনে বালু উত্তোলন করছেন। বিধি মেনে জেলা প্রশাসন থেকে লিজ নিয়ে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। পরিবেশের বিষয়টিও দেখা হচ্ছে। তাদের বালু উত্তোলনে পরিবেশের কোনো ক্ষতি হচ্ছে না।
রাজশাহী জেলা প্রশাসক হেলাল মাহমুদ শরীফ মানবজমিনকে জানান, বঙ্গবন্ধু সিলিকন সিটি যাতে কোনোভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। ঢাকা থেকে একজন বিশেষজ্ঞ এনেও এখানকার পরিবেশ, প্রতিবেশ পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয়েছে। যদি কারো বালু উত্তোলনে তা ক্ষতিগ্রস্ত হয় তাহলে অবশ্যই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

শচীন যা পরেননি পৃথ্বি তা-ই পারলেন

টেকনাফে ৫ কোটি ৭০লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার

‘নিজ অবস্থান থেকে আইন মানলে দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণে আসবে’

চাল আমদানি করছেন না ব্যবসায়ীরা

তারেকের গ্রেপ্তার সংক্রান্ত প্রতিবেদন ৩১শে ডিসেম্বর

প্লেবয় মডেল হারতে’র ‘মজা’

আদালতে হাজিরা দিলেন নওয়াজ শরীফ

ইরাকে আগ্রাসনের হুমকি এরদোগানের

এতিম রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য আলাদা ব্যবস্থা করা হচ্ছে

মাঝারী ধরনের ভারী বর্ষণের আশঙ্কা

মিয়ানমার ইস্যুতে বৃহস্পতিবার নিরাপত্তা পরিষদে বৈঠক

বিসিবির কার্যনির্বাহী কমিটির কার্যক্রম নিয়ে রুল, সভায় বাধা নেই

মারকেলের নতুন মিশনের কাজ শুরু

বিস্ময়কর উত্থান ঘটলেও জার্মানিতে এএফডি’র নেতা কে!

‘এখন শুধুমাত্র ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবছি’

মার্কিন যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার হুমকি উ.কোরিয়ার