ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের বার্ষিকী পালন করছে তুরস্ক

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৫ জুলাই ২০১৭, শনিবার
ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের প্রথম বার্ষিকী পালন করছে তুরস্ক। গত বছর আজকের এই দিনে ১৫ই জুলাই সেখানে প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়্যিপ এরদোগানকে উৎখাত করার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু অভ্যুত্থানকারীরা জনতার কাছে হেরে যায়। এরপর আটক করা হয় অসংখ্য মানুষকে। চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয় হাজার হাজার কর্মকর্তা, কর্মচারীকে। ওইদিনটিকে উদযাপন করতে আজ শনিবারকে ‘গণতন্ত্র ও ঐক্য’ ঘোষণা দিয়ে তুরস্কে সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। দিনভর আয়োজন করা হয়েছে বিভিন্ন অনুষ্ঠান। গত বছর ১৫ই জুলাই সেনাবাহিনীর একাংশ রাজপথে ট্যাংক নিয়ে, আকাশপথে যুদ্ধবিমান নিয়ে অভ্যুত্থান ঘটানোর চেষ্টা করে। এতে কমপক্ষে ২৪৯ জন নিহত হন। ওইসব সেনাদের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে থামিয়ে দেয় প্রেসিডেন্ট এরদোগানের সমর্থকরা। তারা রাজপথে নেমে পড়ে। নিজেরা সংগঠিত হয়ে ট্যাংকের সামনে দাঁড়ায়। এতে অভ্যুত্থানকারীরা থমকে যায়। তাদেরকে আটক করা হয়। এখনও চলছে এর বিচার কার্যক্রম। এ অভ্যুত্থান চেষ্টার জন্য দায়ী করা হয় যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত ধর্মীয় নেতা ফেতুল্লাহ গুলেন ও তার অনুসারীদের। কিন্তু ফেতুল্লাহ গুলেন এতে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন। ওদিকে অভ্যুত্থান চেষ্টার পর তুরস্কে জারি করা হয় জরুরি অবস্থা। তা এখনও অব্যাহত আছে। উল্লেখ্য, ওই ঘটনার পর কমপক্ষে অর্ধ লক্ষ মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে এক লাখেরও বেশি মানুষকে।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন