ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা শিথিল করলো আদালত

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৪ জুলাই ২০১৭, শুক্রবার
ছয়টি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের ওপর ডনাল্ড ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা শিথিল করেছেন দেশটির একটি আদালত। হাওয়াই অঙ্গরাজ্যের ডিস্ট্রিক্ট জাজ ডেরিক ওয়াটসন এক আদেশে বলেছেন, প্রেসিডেন্টের নিষেধাজ্ঞার অধীনে যুক্তরাষ্ট্রে বৈধভাবে বসবাস করেন এমন ব্যক্তিদের দাদা-দাদী/নানা-নানী ও অন্যান্য আত্মীয়স্বজনকে দেশটিতে প্রবেশে বাধা দেওয়া যাবে না। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।
খবরে বলা হয়, বিচারক ওয়াটসনের এই আদেশ প্রেসিডেন্টের কঠোর অভিবাসন নীতির ওপর আরেকটি আঘাত। বিচারক বলেছেন, সুপ্রিম কোর্টের আদেশকে খুব সংকীর্ণভাবে নিয়ে ওই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট গত মাসে ছয়টি মুসলিম দেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে শরণার্থী ও পর্যটক প্রবেশের ওপর ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা আংশিকভাবে পুনর্বহাল করে। তার আগে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে বহু আদালত ওই নিষেধাজ্ঞা বাতিল করে দিয়েছিলেন।
কিন্তু পুর্ণাঙ্গ শুনানির আগ পর্যন্ত আংশিকভাবে এই নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করেন সুপ্রিম কোর্ট। তবে একটি শর্তে যে, যুক্তরাষ্ট্রে বৈধভাবে বসবাসরত ওই ছয়টি দেশের নাগরিকদের ঘনিষ্ঠ পারিবারিক আত্মীয়স্বজনকে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে দিতে হবে।
কিন্তু ট্রাম্প প্রশাসন এই ঘনিষ্ঠ আত্মীয় স্বজনের সংজ্ঞায় দাদা-দাদী (গ্রান্ডপ্যারেন্টস), নাতি-নাতনি, শ্যালক (ব্রাদার্স-ইন-ল’), শ্যালিকা (সিস্টার্স-ইন-ল’), চাচা (আংকেলস), চাচী (আন্টস), ভাগ্নে/ভাগ্নি (নেফিউ/নিস) ও কাজিনদের অন্তর্ভ’ক্ত করেনি।  বিচারক ওয়াটসন সরকারের এমন সংকীর্ণ সংজ্ঞায়নের নিন্দা জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, ‘উদাহরণস্বরূপ, কাণ্ডজ্ঞান বলে যে ঘনিষ্ঠ পারিবারিক সদস্যদের মধ্যে দাদা-দাদীও (গ্রান্ডপ্যারেন্টস) থাকেন। নিশ্চয়ই, গ্রান্ডপ্যারেন্টসরা ঘনিষ্ঠ পারিবারিক সদস্যদের কেন্দ্রবিন্দু।’
উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা এখনও সুপ্রিম কোর্টে বিবেচনাধীন রয়েছে। তার এই নিষেধাজ্ঞা মোতাবেক ইরান, লিবিয়া, সোমালিয়া, সুদান, সিরিয়া ও ইয়েমেন থেকে লোকজন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। ট্রাম্পের দাবি, আমেরিকাকে নিরাপদ রাখা ও সন্ত্রাসী হামলা প্রতিরোধে এই নিষেধাজ্ঞা প্রয়োজন। তবে সমালোচকরা বলেন, এই নিষেধাজ্ঞায় মুসলিমদের বিরুদ্ধে বৈষম্য করা হয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সব স্কুলে ছাত্রলীগের কমিটি দেয়ার নির্দেশ

একতরফা নির্বাচন কোন নির্বাচনী প্রক্রিয়া নয়

‘অনুমোদনহীন বারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’

কি পেলাম কি পেলাম না সেই হিসাব মেলাতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা ওয়াসাকে ১৩টি খাল উদ্ধারের নির্দেশ

এসডিজি অর্জন করতে হলে প্রতিবছর ৩০ শতাংশ নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ বাড়াতে হবে

‘অনুপ্রবেশকারীদের ৫০০০ পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না’

‘ক্ষমতা থাকলে সরকারকে টেনে-হিচড়ে নামান’

আগামীকাল আদালতে যাবেন খালেদা জিয়া

‘সেনা মোতায়েনের প্রয়োজন নেই’

‘তদন্তের স্বার্থেই তনুর পরিবারকে ডাকা হয়েছে’

জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন ‘কুমির মানুষ’

আশ্রয়শিবিরে সংক্রমণযুক্ত পানির বিষয়ে ইউনিসেফের সতর্কতা

চীন, উত্তর কোরিয়ার ১৩ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ

রোহিঙ্গা সঙ্কট: উচ্চ আশা নিয়ে বাংলাদেশ-মিয়ানমার বৈঠক শুরু

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে চীনের প্রস্তাব, যা বললেন মুখপাত্র...