মুসলিমরা ডোনাট খায় না গুজবের নেপথ্যে

রকমারি

| ৮ জুলাই ২০১৭, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:০৫
সোশ্যাল মিডিয়ায় আবারও এই বলে মিথ্যে গুজব ছড়ানো হচ্ছে যে মুসলিমরা 'ডোনাট' খায় না। আর এই গুজব ছড়াচ্ছে মুসলিমরাই। কেন তারা এই কাজ করছেন?
মূলত ইসলামবিদ্বেষী ব্যঙ্গ-বিদ্রুপের জবাব দিতে তারা এই রসিকতা বেছে নিয়েছেন।
২০১৪ সালে প্রথম সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব ছড়ানো হয় যে 'ডোনাট' হালাল নয়, কাজেই এটি মুসলিমদের খাওয়া নিষেধ। টুইটারে গত তিন বছর ধরে এই গুজব ছড়ানো হয়।২০১৬ সালে কিছু মসজিদের বাইরে শুকরের মাংস রেখে যাওয়ার ঘটনার পর একই গুজব ছড়ানো হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।
একজন তখন টুইটারে মজা করে লেখেন, "ডোনাট হারাম। দয়া করে আমাদের মসজিদের বাইরে গাদা গাদা ডোনাট রেখে যাবেন না, আমরা এটা ঘেন্না করি।"তবে এই রসিকতা বুঝতে না পেরে অনেকেই বিভ্রান্ত হয়েছেন। একজন টুইটারে প্রশ্ন করেন, "ডোনাট হারাম হলো কিভাবে?"
কিন্তু এর পর টুইটারে আরও পোস্ট ছড়িয়ে দেয়া হয় ডোনাট ইসলামে নিষিদ্ধ এমন কথা বলে।এবছর ডোনাট নিয়ে এই গুজব আবার নতুন করে ছড়াতে থাকে সাংবাদিক মেহেদী হাসান এটি টুইট করার পর।
তিনি লিখেন, "আমার অনেকদিনের বিশ্বাস, আমরা যদি 'ডোনাট হারাম' এমন গুজব ছড়িয়ে দিতে পারি তাহলে আমাদের লোকে এখন থেকে ডোনাট দিয়ে আক্রমণ করবে।"
আরেকজন এর উত্তরে মজা করে অনলাইনে লেখেন, "আমি স্টারবাকস, টাকিস, পিজ্জা, কুকি, আইফোন, প্লেস্টেশন ফোর সবকিছু ঘৃণা করি।
দয়া করে আমাকে এসব দিয়ে অপমান করার চেষ্টা করো।"

সুত্রঃ বিবিসি বাংলা

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভিডিও দেখে অস্ত্রধারীদের খোঁজা হচ্ছে

‘অতিষ্ঠ হয়ে প্রেমিককে ছুরিকাঘাত’

ফল প্রকাশের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, অবরোধ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সময় লাগবে ৯ বছর!

মত প্রকাশের স্বাধীনতা সীমিত, আক্রমণের শিকার নাগরিক সমাজ

মেয়র আইভী হাসপাতালে

জিয়াউর রহমানের ৮২ তম জন্মবার্ষিকী আজ

এবার আটকে গেল দক্ষিণের ১৮ ওয়ার্ডের নির্বাচনও

হাথুরুকে দেখিয়ে দেয়ার লড়াই

‘আপনার এত তাড়াহুড়া কিসের?’

সংবাদটি আমাকেও শোকে মুহ্যমান করে ফেলে

‘নেতৃত্ব তৈরির প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত করতেই ছাত্র সংসদ নির্বাচন বন্ধ রাখা হয়েছিল’

৬ মাসের প্রাণ পেলো যশোর রোডের গাছগুলো

সিলেটে রাজনীতির আড়ালে সক্রিয় ‘চিহ্নিত’ অপরাধীরা

‘নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে ৮০ শতাংশ ভোট পাবে বিএনপি’

কাজাখস্তানে বাসে আগুন লেগে ৫২ জনের মৃত্যু