পাকিস্তানে ভেঙে গেলো দিলীপ কুমারের বাড়ি, মর্মাহত সায়রা বানু

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক | ১৭ জুন ২০১৭, শনিবার
বহু দিন ধরেই ভগ্নদশায় ছিল। অবশেষে ভেঙে পড়ল ভারতের কিংবদন্তী অভিনেতা দিলীপ কুমারের পাকিস্তানের পৈতৃক বাড়িটি। পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখাওয়া জেলার মোহল্লা খুদা দাদ এলাকায় ঐতিহাসিক কিস্সা খওয়ানি বাজারে শুধুমাত্র বাড়িটির মূল ফটক এখনও অক্ষত রয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব ওই একই জায়গায় বাড়িটির একটি প্রতিরূপ স্থাপন করা হবে বলে জানা গেছে। ২০১৪-তেই বাড়িটিকে প্রতœতত্ত্ব বিভাগ ন্যাশনাল হেরিটেজ হিসেবে নথিভুক্ত করেছিল। কিন্তু বাড়িটির দেখভাল করেনি খাইবার পাখতুনখাওয়া সরকার।
সে বিষয়ে সরব হয়েছেন শহরের বিশিষ্ট নাগরিকদের একটা বড় অংশ। কালচারাল হেরিটেজ কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক শাকিল ওয়াহদুল্লা জানিয়েছেন, মোট ছ’বার বাড়িটি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য তিনি সরকারের কাছে আবেদন পত্র জমা  দেন। কিন্তু সরকার কোনও ব্যবস্থাই নেয়নি। তাঁর কথায়, বাড়িটি ভেঙে পড়ার খবর দিলীপ কুমারের স্ত্রী অভিনেত্রী সায়রা বানুকে জানানো হয়েছে। খবর শুনে তিনি মর্মাহত। প্রতœতত্ত্ব বিভাগ ও জাদুঘরের অধিকর্তা আবদুল সামাদ মনে করেন, বাড়িটি ভেঙে পড়া এক অর্থে আশীর্বাদ। কারণ এটি আর কোনও ভাবেই সারানো যেত না। এতে অন্তত সারানো সম্ভব হবে। তাঁর কথায়, বাড়িটি রক্ষণাবেক্ষণের একমাত্র উপায় আবার নতুন করে তৈরি করা। ১৯২২ সালে মোহল্লা খুদ দাদ-এ জন্ম হয় দিলীপ কুমারের। তবে কৈশোরেই অভিনয়ের স্বপ্ন নিয়ে তিনি মুম্বই পাড়ি দেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমার ও বাংলাদেশকে একই সাথে খুশি করা ভারতের জন্য কি কূটনীতির পরীক্ষা?

বিএনপি স্থায়ী কমিটির বৈঠক শুরু

রাজধানীতে ছাত্রদলের মিছিলে হামলা, আহত ৩

যশোরে জঙ্গি সন্দেহে বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ

সুষমা কেন সহায়ক সরকারের কথা বলতে যাবেন: কাদের

আপস না করায় খালেদার বিরুদ্ধে ৩৯ মামলা: ফখরুল

আত্মবিশ্বাস থাকলে যে কোন কঠিন কাজ করা যায়: জয়

আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদারের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

৪ ঘণ্টায় হাজার মণ ইলিশ বিক্রি

সংবিধান বিরোধীদের নিবন্ধন বাতিলের দাবি

প্রতিবন্ধী স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

‘রোহিঙ্গা নিধনে পরিকল্পিত নির্যাতন চালিয়েছে মিয়ানমার’

রোহিঙ্গা প্রশ্নে ভারতীয় নীতি

অবস্থান পাল্টালো টিএসসি কর্তৃপক্ষ

রাখাইনে ১৭৭০ কোটি কিয়াতের বিশাল কর্মপরিকল্পনা

কেন উত্তরাধিকার বেছে নেবেন না শি জিনপিং?